ঢাকা, সোমবার, ১৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৪, ২৯ মে ২০১৭
Risingbd
সর্বশেষ:

কান থেকে যেসব রোগ বোঝা যায়

আসিয়া আফরিন চৌধুরী : রাইজিংবিডি ডট কম
 
   
প্রকাশ: ২০১৭-০৩-১৭ ৮:৪২:২৩ এএম     ||     আপডেট: ২০১৭-০৩-১৭ ৮:৪২:২৩ এএম
প্রতীকী ছবি

আসিয়া আফরিন চৌধুরী : আপনার দেহের ভেতরের অনেক অর্গানের সঙ্গে বাইরের অংশের স্নায়ুবিক সম্পর্ক রয়েছে। উদাহরণস্বরূপ বলা যায়, কান পর্যবেক্ষণ করে আপনি আপনার স্বাস্থ্যের বর্তমান অবস্থা বর্ণনা করতে পারবেন।

কান আমাদের সম্পর্কে কি বলে?

আমাদের কান শণাক্তকারী পরিচয় হিসেবে বিবেচিত হতে পারে। আমাদের জন্মের সময় কান থাকে পূর্ণাঙ্গ সুগঠিত। আমাদের বৃদ্ধির সঙ্গে সঙ্গে কানেরলতি সামান্য নেমে আসা ছাড়া এর তেমন কোনো পরিবর্তন হয় না। তাই হাতের ছাপের ন্যায় কান দ্বারাও শণাক্ত করা অন্যতম উপায়।
 



প্রভাবশালী বা অধনস্ত জিন :
গবেষণা অনুসারে, কানের লতি সরাসরি মাথার পাশ থেকে সংযুক্ত থাকলে অধনস্ত হিসেবে এবং কানের লতি একটু ঝুলে থাকলে তা প্রভাবশালী বৈশিষ্ট্য প্রকাশ করে।
 



করনারি রোগ :
যদি আপনার কানের লতিতে তির্যক ভাজ থাকে তবে খুব সম্ভবত আপনি করোনারি আরটারি রোগ দ্বারা আক্রান্ত।

ভিটামিন ও ক্যালসিয়ামের অভাব : যদি আপনার কান বিবর্ণ হয়ে থাকে তাহলে আপনার দেহে ভিটামিন ও ক্যালসিয়ামের ঘাটতি রয়েছে।

কিডনি সমস্যা : যদি আপনার কান লাল হয়ে থাকে, তাহলে এটি আপনার কিডনি সমস্যার নির্দেশক হিসেবে বিবেচিত হতে পারে।

ব্রেইন ডিসঅর্ডার : যদি আপনার কান গাঁড় লাল রঙ ধারণ করে, তাহলে তা নিয়মিত মাথাব্যথা, স্মৃতি হ্রাস বা ব্রেনের সমস্যার সূচক হিসেবে বিবেচিত হতে পারে।

কানের তরুণাস্থির প্রদাহ : রিল্যাপ্সিং পলিকন্ড্রাইটিস নামক একটি রোগের লক্ষণ।

ভিন্ন ধরনের চিকিৎসা

কানের বিভিন্ন পয়েন্টে চাপ প্রয়োগ করা হলে তা ধকল ও ব্যথা থেকে মুক্তি দিতে হাত ও পায়ের পয়েন্টে চাপের ন্যায় কার্যকর।
 



২০০ এর বেশি আকুপাংচার কানের বিন্দু আমাদের দেহের বিভিন্ন অর্গানের সঙ্গে যুক্ত। এই বিন্দুগুলোতে চাপ প্রয়োগ করে আপনি আপনার শারীরিক ও আবেগ সংক্রান্ত নানাবিদ স্বাস্থ্য সমস্যার সমাধান করতে পারবেন।

এই রিফ্লেক্সোলজি ম্যাপে নিদিষ্ট করা হয়েছে কিছু উদ্দীপনা বিন্দু। এই বিন্দুগুলো জেনে রেখে আপনি আপনার মাথাব্যাথার মতো অনেক সমস্যার সমাধান নিজেই করতে পারবেন। তবে বড় ধরনের কোনো সমস্যার জন্য অভিজ্ঞ ডাক্তারের শরণাপন্ন হওয়াই শ্রেয়।
 



ছোট কিছু ব্যথার সমাধান এই বিন্দুগুলোতে সামান্য চাপ প্রয়োগে সম্ভব-

১) পিঠে ও কাঁধে

২) অর্গান

৩) জয়েন্টগুলোতে

৪) গলা ও নাসিকা সংক্রান্ত

৫) হজম বা পরিপাক

৬) মাথা ও হার্ট



রাইজিংবিডি/ঢাকা/১৭ মার্চ ২০১৭/ফিরোজ

Walton Laptop