ঢাকা, বুধবার, ৬ আষাঢ় ১৪২৫, ২০ জুন ২০১৮
Risingbd
সর্বশেষ:

যেসব বিষয়ে চিকিৎসককে মিথ্যা বলা উচিত নয়

এস এম গল্প ইকবাল : রাইজিংবিডি ডট কম
 
   
প্রকাশ: ২০১৮-০৫-২৭ ১১:৫৬:৫৩ এএম     ||     আপডেট: ২০১৮-০৫-২৮ ৪:৫৩:১৪ পিএম
প্রতীকী ছবি

এস এম গল্প ইকবাল : আপনি কি পরিমাণে ধূমপান করেন, মদ্যপান করেন, ভোজন করেন ও ব্যায়াম করেন, যৌনসহবাসের সময় প্রোটেকশন ব্যবহার করেন কিনা, প্রায়সময় বাইরে সূর্যের আলোতে থাকেন কিনা ইত্যাদি বিষয়ে চিকিৎসকের সঙ্গে মিথ্যা বলবেন না। আপনার সঠিক তথ্য আপনার চিকিৎসককে সঠিক মূল্যায়নে সাহায্য করবে।

আপনার চিকিৎসককে কখনো মিথ্যা বলা উচিত নয় এমন ১৪টি বিষয় দুই পর্বের প্রতিবেদনের আজ থাকছে প্রথম পর্ব।

* আপনার অস্ত্রোপচারের ইতিহাস
নতুন চিকিৎসকের কাছে আপনার সার্জারি বা অস্ত্রোপচারের বিষয় গোপন করবেন না। ম্যানহাটনের প্লাস্টিক সার্জন ডেভিড শেফার বলেন, ‘সার্জারি ছোট হোক কিংবা বড় হোক, আপনি সত্য বলুন, যা ভবিষ্যতে আপনার স্বাস্থ্য সমস্যা উপশম করতে সাহায্য করবে। অনেক সার্জারি ইলেক্টিভ হলেও প্রত্যেক সার্জনের আপনার ব্যাকগ্রাউন্ড তথ্য জানা প্রয়োজন, যাতে তারা স্কার টিস্যু, রিঅ্যাকশন ও আরো অনেক ঝুঁকি হ্রাস করতে পারেন। ডা. শেফার শেয়ার করেন, ‘আমি এটিকে সবসময় উদ্বেগের বিষয় হিসেবে পাই যখন কোনো রোগী আমাকে বলে যে তাদের কখনো সার্জারি করা হয়নি এবং যখন আমি তাদেরকে পরীক্ষা করি তাদের মধ্যে ফেইসলিফট ইনসিশন দেখি।’

* আপনার বয়স
আপনি যখন মধ্যবয়স্কের দিকে অগ্রসর হন, আপনার যখন মেনোপজ আরম্ভ হয় অথবা যখন বয়স বাড়ার কারণে ব্যথায় ভুগেন তখন আপনি সম্ভবত সামান্য মিথ্যা বলার জন্য নিজ থেকে প্রলুব্ধ হন। আপনি বারটেন্ডার, গ্রোসার কিংবা অপরিচিত মানুষের কাছে বয়স লুকাতে পারেন, কিন্তু আপনার গত জন্মদিনের কেকের ওপর কতটি মোমবাতি ছিল তা সম্পর্কে আপনার চিকিৎসকের সত্য জানা প্রয়োজন। শুধুমাত্র চিকিৎসার প্রেসক্রাইব করার জন্যই যে প্রকৃত বয়স জানা প্রয়োজন তা নয়, রোগ বা শারীরিক দশার প্রকৃত কারণ ধরতেও এটি সাহায্য করে। মিথ্যা বললে চিকিৎসক আপনার ওপর আস্থা হারাতে পারেন। ডা. শেফার বলেন, ‘আমি জানি যে রোগীরা সঠিক বয়স বলতে চায় না, কিন্তু এ বিষয়ে সত্যবাদী হওয়া গুরুত্বপূর্ণ।’

* আপনার খাবার
যদি আপনি ওজন হ্রাসের চেষ্টা করেও ব্যর্থ হন এবং চিকিৎসকের কাছে আপনার খাদ্যাভ্যাস সম্পর্কে সত্য না বলেন, তাহলে আপনার চিকিৎসক আপনাকে খুব একটা সাহায্য করতে পারবে না। নিউ ইয়র্কের ইন্টিগ্রেটিভ ডা. তানিয়া ডেম্পসি বলেন, ‘গবেষণায় পাওয়া গেছে যে, রোগীরা কতটুকু খাবার খাচ্ছেন তাতে গুরুত্ব দেন না এবং তারা প্রায়সময় অস্বাস্থ্যকর খাবারে মগ্ন থাকেন। অনেক রোগী প্রেসক্রাইবড ডায়েট মেনে চলার কষ্টটা করতে চান না, তাই তারা সহজেই অস্বাস্থ্যকর খাবারের প্রতি ঝুঁকে পড়ে।’ আপনার চিকিৎসককে আপনি কি কি খান তা জানাতে লজ্জা অনুভব করবেন না, তিনি আপনার খাদ্যাভ্যাস সম্পর্কে জানতে পারলে আপনাকে সর্বোত্তম পরামর্শ দিতে পারবেন। ডা. ডেম্পসি বলেন, ‘যদি আমি মনে করি যে ডায়েট ইন্টারভেনশন প্রত্যাশামতো কাজ করছে না, তাহলে আমি আরো অ্যাগ্রেসিভ ট্রিটমেন্ট অপশনের দিকে যেতে পারি। যদি রোগীরা স্বীকার করেন যে তারা প্রেসক্রাইবড ডায়েট মেনে চলেন না, তাহলে চিকিৎসকরা তাদের ডায়েটকে ট্র্যাকে রাখতে স্ট্র্যাটেজি ডেভেলপ করতে পারেন।’

* আপনার ওষুধ
যদি আপনার কাশি না থামে অথবা আপনি অস্বাভাবিক শারীরিক দশায় ভুগেন, তখন একজন চিকিৎসকের কাজ শুধুমাত্র আপনার রোগ নির্ণয় করা নয়, তিনি ওষুধ প্রেসক্রাইব করে আপনার অসুস্থতাকে যত দ্রুত সম্ভব সারিয়ে তোলার চেষ্টাও করেন। কিন্তু যদি অসুস্থতা না সারে, তিনি আপনাকে ওষুধ ব্যবহারের সময় ও প্রক্রিয়া সম্পর্কে জিজ্ঞেস করতে পারেন, যেমন- মাঝেমাঝে ওষুধ খাওয়া বন্ধ করেছেন কিনা অথবা ক্রিম কিভাবে মেখেছেন। এ বিষয়ে মিথ্যা বলবেন না। ম্যানহাটনের ডার্মাটোলজিস্ট জশুয়া জেইকনার বলেন, ‘যদি আপনি ওষুধের ব্যবহার সম্পর্কে সত্য না বলেন, তাহলে আমরা সঠিকভাবে বুঝতে পারব না যে তা কাজ করছে নাকি করছে না।’ তিনি কোনো ফলো-আপ অ্যাপয়েন্টমেন্টের রোগীকে প্রশ্ন করেন যে কতদিন ধরে ওষুধ চালিয়ে গেছেন অথবা কিভাবে ওষুধ সেবন করেছেন বা প্রয়োগ করেছেন। রোগীদের অনেকে বলে যে তারা এক সপ্তাহ ওষুধ ব্যবহার করে থামিয়ে দিয়েছেন অথবা তারা নির্দেশিত উপায়ে ওষুধ ব্যবহার করেননি কিংবা তারা প্রেসক্রিপশনের সকল শর্ত মেনে চলেননি।

৫. আপনার ধূমপানের অভ্যাস
আপনি আপনার বন্ধুবান্ধব ও পরিবারকে সম্ভবত বলেন যে আপনি শুধুমাত্র সামাজিকভাবে ধূমপান করেন, যদিও প্রতিদিন এক প্যাক সিগারেট পুড়েন। কার্ডিওলজিস্ট থেকে ডার্মাটোলজিস্ট, প্রত্যেক চিকিৎসক আপনাকে এই বিপজ্জনক অভ্যাস বর্জনের জন্য পরামর্শ দেবেন। তাই তারা যখন আপনাকে ধূমপান করেন কিনা প্রশ্ন করবেন, আপনি সম্ভবত মিথ্যা বলবেন, কিন্তু ম্যানহাটনের প্লাস্টিক সার্জন অ্যান্ড্রু জে. মিলার সত্য বলার জন্য পরামর্শ দিচ্ছেন। তিনি বলেন, ‘রোগীরা যেসব বড় অভ্যাস সম্পর্কে প্রায়সময় সত্য এড়িয়ে চলেন তাদের একটি হচ্ছে ধূমপান। নিকোটিন হিলিং বা নিরাময়ের জন্য খুব ক্ষতিকর এবং অনেক সার্জন সার্জারি করেন না, কারণ দীর্ঘ নিরাময় প্রক্রিয়ার কারণে ইনসিশন বা সার্জিক্যাল কাট উল্লেখযোগ্য ক্ষতে রূপ নিতে পারে। কখনো কখনো রোগীরা সার্জারি সম্পাদনের জন্য ধূমপান সম্পর্কে মিথ্যা বলেন, কিন্তু পরিণামে তাদেরকে ব্যাপক ভুগতে হয়।’

* আপনার সাপ্লিমেন্ট
হলিস্টিক চিকিৎসক ও প্রাইমারি কেয়ার ফিজিশিয়ানদের মধ্যে মতের অমিল থাকলেও তাদের মধ্যে একটি বিষয় কমন: তারা আপনাকে সুস্থ ও সুখী রাখতে সাহায্য করতে চায়। ডা. ডেম্পসি বলেন, কখনো কখনো রোগীরা যে ভিটামিন, সাপ্লিমেন্ট অথবা হার্ব গ্রহণ করেন তা স্বীকার করতে চান না, কারণ তাদের চিকিৎসক তাদেরকে প্রাকৃতিক চিকিৎসায় আস্থা রাখার জন্য তিরস্কার করতে পারেন। কিন্তু আপনার শরীরের জন্য সর্বাধিক কার্যকরী ওষুধ প্রেসক্রাইব করতে তাদের জানা প্রয়োজন যে আপনি প্রতিদিন কি গ্রহণ করছেন। ডা. ডেম্পসি বলেন, ‘সত্য হচ্ছে, অনেক চিকিৎসক বিশ্বাস করেন যে ভিটামিন ঘাটতি আছে এমন রোগীদের ক্ষেত্রে এসব ভিটামিন গুরুত্বপূর্ণ। কিন্তু উদ্বেগের বিষয় হচ্ছে, কিছু ভিটামিন বা হার্ব এবং প্রেসক্রাইবড ওষুধের মধ্যে ইন্টারঅ্যাকশন হতে পারে। এসব ইন্টারঅ্যাকশন তারা যেসব ওষুধ গ্রহণ করছেন তাদের মাত্রা বাড়ানো বা কমানোর দিকে চালিত করতে পারে, যা স্বাস্থ্যের ওপর খুব নেতিবাচক প্রভাব ফেলতে পারে। রোগীরা যা কিছু গ্রহণ করছেন সবকিছু সম্পর্কে চিকিৎসককে জানানো গুরুত্বপূর্ণ।’

* আপনার রিক্রিয়েশনাল ড্রাগ
ডা. ডেম্পসি বলেন, ‘রিক্রিয়েশনাল ড্রাগের ব্যবহার বেড়ে যাচ্ছে এবং রোগীরা চিকিৎসকদেরকে এ বিষয়ে অন্ধকারে রাখেন। রোগীরা চিকিৎসকদের কাছে ড্রাগ সেবনের কথা স্বীকার করতে চান না, কারণ তারা চায় না যে এ তথ্য তাদের মেডিক্যাল রেকর্ডের একটি অংশ হোক। তারা ভয় পায় যে এটি তাদের ইন্সুরেন্স পলিসি অথবা চাকরিতে বিরূপ প্রভাব ফেলবে।’ সঠিকভাবে রোগনির্ণয় ও চিকিৎসার জন্য আপনার স্বাস্থ্যের সম্পূর্ণ চিত্র ও বদভ্যাস সম্পর্কে চিকিৎসকের জানা প্রয়োজন। উদাহরণস্বরূপ, যদি আপনি মাঝেমাঝে মারিজুয়ানা স্মোক করেন, তাহলে আপনার মনোযোগ ও স্মৃতি সংক্রান্ত সমস্যা হতে পারে অথবা আপনি বিষণ্ন বা মুডি অনুভব করতে পারেন। আপনার সুচিকিৎসার লক্ষার্থে চিকিৎসককে আপনি রিক্রিয়েশনাল ড্রাগ ইউজার কিনা তা জানান।

(আগামী পর্বে সমাপ্য)

তথ্যসূত্র : রিডার্স ডাইজেস্ট




রাইজিংবিডি/ঢাকা/২৭ মে ২০১৮/ফিরোজ

Walton Laptop
 
   
Walton AC