ঢাকা, মঙ্গলবার, ৩০ আশ্বিন ১৪২৫, ১৬ অক্টোবর ২০১৮
Risingbd
সর্বশেষ:

ওষুধের ভুল ব্যবহার

এস এম গল্প ইকবাল : রাইজিংবিডি ডট কম
 
     
প্রকাশ: ২০১৮-০৯-২৫ ৮:৪০:৩৯ পিএম     ||     আপডেট: ২০১৮-০৯-২৬ ৮:৩৭:৪৩ এএম
প্রতীকী ছবি

এস এম গল্প ইকবাল : ওষুধের দোকান থেকে নির্দিষ্ট কিছু ওষুধ কিনতে ডাক্তারি প্রেসক্রিপশন লাগে না। এ ধরনের ওষুধ ‘ওভার-দ্য-কাউন্টার’ বা ‘ওটিসি’ ওষুধ হিসেবে পরিচিত। যেমন অ্যান্টাসিড, ইবুপ্রোফেন ইত্যাদি।

ওটিসি ওষুধ সবসময় নিরাপদ নয়। অনেক ওটিসি ওষুধের নিয়মিত ব্যবহার বা ওভারডোজ আপনার শারীরিক ক্ষতির কারণ হতে পারে। এ নিয়ে দুই পর্বের প্রতিবেদনের আজ থাকছে শেষ পর্ব।

প্রতিবেদনটির প্রথম পর্ব পড়তে এখানে ক্লিক করুন।

* নাকের ড্রপ
বন্ধ নাক খোলার ক্ষেত্রে স্প্রে বা ড্রপ অবিশ্বাস্য কার্যকর, কিন্তু লোকজন এটি ঘনঘন অতি ব্যবহার করে থাকে, বিশেষ করে অ্যালার্জি মৌসুমে। ক্যালিফোর্নিয়ায় অবস্থিত অরেঞ্জ কোস্ট মেমোরিয়াল মেডিক্যাল সেন্টারের ইন্টার্নিস্ট ক্রিস্টাইন আর্থার বলেন, ‘ওষুধ মিশ্রিত নাকের ড্রপের নিয়মিত ব্যবহার নাসিকাপথের সঙ্গে সম্পর্কযুক্ত ক্রনিক সমস্যা সৃষ্টি করতে পারে, যেমন- রক্তক্ষরণ, আলসার বা ক্ষত এবং এমনকি অত্যধিক ব্যবহারে গ্লকোমা অথবা ছানিও হতে পারে।’ শুধুমাত্র প্রয়োজনে নাকের ড্রপ ব্যবহার করুন এবং শ্বাস নিতে সমস্যা হলে চিকিৎসকের সঙ্গে কথা বলুন।

* ডিউরেটিকস
পেটফাঁপা অথবা পিএমএসের বিরক্তিকর উপসর্গ উপশমের জন্য ওয়াটার পিল ও ল্যাক্সাটিভ সাপ্লিমেন্টের ওপর নিয়মিত নির্ভরতা মারাত্মক সমস্যা সৃষ্টি করতে পারে, যেমন- কিডনি বিকল এবং তীব্র ইলেক্ট্রোলাইট ডিস্টারব্যান্স (যেমন- নিম্ন পটাশিয়াম)। ডা. আর্থার বলেন, ‘এটি হার্ট অ্যারিদমিয়ার মতো বড় ধরনের স্বাস্থ্য উদ্বেগের কারণ হতে পারে। যদি আপনার ক্রনিক পেটফাঁপা অথবা পা ফোলার মতো সমস্যা থাকে, তাহলে এ সম্পর্কে আপনার চিকিৎসককে জানানো উচিত।’

* সানস্ক্রিন
সৈকতে কিংবা আউটডোরে সময় কাটাতে যাওয়ার পূর্বে আপনি হয়তো সানস্ক্রিন ব্যবহার করেন। কিন্তু বিশেষজ্ঞরা বলছেন যে, যে পরিমাণ রোদে আপনি থাকেন, এটি তার অর্ধেক থেকে আপনাকে রক্ষা করে। কারণ অধিকাংশ লোক বিভিন্ন কাজে বাইরে বের হলে সানস্ক্রিন ব্যবহার করেন না, কিন্তু তারা ঠিকই সূর্যের অধিক রশ্মির মধ্যে থাকে, যেমন- গাড়িতে ওঠানামা, কেনাকাটা করতে যাওয়া, ডাকঘরে যাওয়া, পোষা প্রাণীকে নিয়ে হাঁটা, মেইলবক্স চেক করা, বাড়ির উঠানে কাজ করা ইত্যাদি। এ কারণে প্রতিদিন রোদের সংস্পর্শে আসে এমন ত্বকে, যেমন- মুখ, ঘাড় ও হাতে সানস্ক্রিন প্রয়োগ করা উচিত- সূর্যের তাপ যেমনই হোক না কেন।

* কটনবাড
আপনি সম্ভবত ছোটবেলা থেকেই এ ধরনের কান পরিষ্কারক ব্যবহার করে আসছেন, কিন্তু আপনি হয়তো এটি সঠিকভাবে ব্যবহার করছেন না। ফেসিয়াল প্লাস্টিক সার্জন মিশেলে ইয়াগোদা বলেন, ‘কান চুলকালে অনেক লোক কানের কানের ভেতরের পুরোটা জুড়ে কটনবাড প্রবেশ করায়। কিন্তু কটনবাট কানের পর্দার নিকট পৌঁছলে মারাত্মক এমনকি স্থায়ী ক্ষতি হতে পারে।’ এছাড়া বারবার কটনবাড ব্যবহারে কানের খইল কানের আরো গভীরে চলে যেতে পারে। শুধুমাত্র কানের ভেতরে অর্ধেক অংশ পর্যন্ত কটনবাড প্রবেশ করাতে পারেন, কিন্তু ভুলেও গভীরে নয়।

* অ্যান্টিপারস্পির‍্যান্ট
যদি আপনি গোসলের ঠিক পরে ডিওডোর‍্যান্ট ব্যবহার করে থাকেন, তাহলে এই অভ্যাসে পরিবর্তন আনুন। কারণ, অ্যান্টিপারস্পির‍্যান্ট শুষ্ক ত্বকে প্রয়োগ করলে অধিক কার্যকর হয়, বলেন ডার্মাটোলজিক্যাল সার্জন এ. ফ্রে। তিনি বলেন, ‘এর কারণ হচ্ছে, তারা ঘাম গ্রন্থির মধ্যে প্রোটিন প্লাগ সৃষ্টির মাধ্যমে কাজ করে, এটি ঘাম গ্রন্থি থেকে ঘাম নিঃসরণ প্রতিরোধ করে। ত্বক ভেজা থাকলে এই কাজটি কার্যকরভাবে হতে পারে না।’

তথ্যসূত্র : রিডার্স ডাইজেস্ট



রাইজিংবিডি/ঢাকা/২৫ সেপ্টেম্বর ২০১৮/ফিরোজ

Walton Laptop
 
     
Walton