ঢাকা, শুক্রবার, ২ অগ্রহায়ণ ১৪২৫, ১৬ নভেম্বর ২০১৮
Risingbd
সর্বশেষ:

পুরুষের মেনোপজ : যা জানা জরুরি

এস এম গল্প ইকবাল : রাইজিংবিডি ডট কম
 
     
প্রকাশ: ২০১৮-১০-১৭ ৯:০৩:৫৩ পিএম     ||     আপডেট: ২০১৮-১০-১৭ ৯:০৩:৫৩ পিএম
প্রতীকী ছবি

এস এম গল্প ইকবাল : পুরুষেরা, চলুন পুরুষ মেনোপজ সম্পর্কে কথা বলা যাক। হ্যাঁ, আপনি ঠিক পড়ছেন- পুরুষ মেনোপজ।

আপনি সম্ভবত মাথা চুলকাচ্ছেন এবং ভাবছেন, মেনোপজ তো শুধু নারীদের হয়। এটি পুরোপুরি সঠিক নয়, কারণ পুরুষদেরও মেনোপজ হয়- তারা এক ধরনের মেনোপজের মধ্য দিয়ে যেতে পারে যা নারীদের মেনোপজের অনুরূপ, যদিও মেডিক্যাল বিশ্বে এটি নিয়ে আলোচনা করা হয় না।

পুরুষের মেনোপজ কী?
টেকনিক্যাল টার্মের ক্ষেত্রে, কোনো পুরুষ মেনোপজ নেই, কিন্তু কিছু নির্দিষ্ট পরিবর্তন হয় যা ৫০ বছর বয়সে হয় এবং এটি নারী মেনোপজের কথা স্মরণ করিয়ে দেয়, বলেন যৌনরোগ বিশেষজ্ঞ ড্যামিয়ান সেন্ডলার। তিনি ব্যাখ্যা করেন, নারীদের ক্ষেত্রে মেনোপজ সাধারণত ইস্ট্রোজেন মাত্রার তারতম্যের কারণে হয়, ৪৫ বছরের পর থেকে ইস্ট্রোজেন মাত্রা প্রতিনিয়ত ধীরে ধীরে হ্রাস পেতে থাকে, শেষপর্যন্ত ৫৫ বছর বয়সে ইস্ট্রোজেনের মাত্রা অতি নিম্ন হয়। নারীদের মেনোপজের প্রতিক্রিয়ার মধ্যে হট ফ্লাশ (গরম অনুভূতি), ঘাম নিঃসরণ, ত্বকের কোয়ালিটি কমে যাওয়া, যোনির শুষ্কতা এবং যৌনাকাঙ্ক্ষা কমে যাওয়া অন্তর্ভুক্ত। একই উপসর্গ পুরুষদেরকেও অ্যাফেক্ট করে, যদিও নারীদের যেভাবে অ্যাফেক্ট করে তেমনটা তীব্র নয়।

পুরুষের মেনোপজের লক্ষণ
দুর্ভাগ্যজনকভাবে, পুরুষ মেনোপজ যৌন দুর্বলতার কারণ হতে পারে এবং কিছু উপসর্গ তেমন উদ্বেগের নয়, কিন্তু কিছু উপসর্গ ভীতিকর। পুরুষদের চুল পড়ে যায়, মূত্রত্যাগ করতে কষ্ট হয় এবং প্রোস্টেট ক্যানসারের উচ্চ ঝুঁকি থাকে। তাদের ত্বকের কোয়ালিটি হ্রাস পায় এবং ক্লান্ত দেখায়। তাদের শারীরিক শক্তি ও যৌন পারফরম্যান্স হ্রাস পায়।

বর্ধিত প্রোস্টেট আছে কিনা দেখুন
যখন পুরুষেরা ৫০ বছর বয়সে পা রাখে, তাদের প্রোস্টেট বৃদ্ধির প্রবণতা দেখা যায়, যা পুরুষ মেনোপজের কিছু বিরক্তিকর উপসর্গ সৃষ্টি করে। প্রোস্টেটের আকার অ্যান্ড্রোজেন (বিশেষ করে, ৫-ডিএইচটি নামক টেস্টোস্টেরনের রূপান্তরিত প্রোডাক্ট) দ্বারা নিয়ন্ত্রিত হয়। সেন্ডলার বলেন, ‘কম-জ্ঞাত মেকানিজমের মাধ্যমে ডিএইচটি মাত্রার হ্রাস-বৃদ্ধি প্রোস্টেটের আকার বড় করতে শুরু করে, সাধারণত ৪৫ বছর পর থেকে।’ এটি আপনার প্রস্রাব নিয়ন্ত্রণ করা কঠিন করে ফেলে। তিনি ব্যাখ্যা করেন, ‘পুরুষেরা বয়স্ক হতে থাকলে তারা বেশি লিকি হয়ে পড়ে, এর মানে হচ্ছে প্রোস্টেটের বর্ধিত আকার বেশি সময় প্রস্রাব ধরে রাখার ক্ষমতা নষ্ট করে।’

যৌন জীবনে পরিবর্তন
প্রায়ক্ষেত্রে, যৌন পারফরম্যান্স কমে যায়, কারণ লিঙ্গ খাড়া করা কঠিন হয়ে পড়ে। সেন্ডলার বলেন, ‘শারীরিক শক্তি কমে যায় এবং লিঙ্গ উত্থানে ভূমিকা পালনকারী স্নায়ুতন্ত্রের ওপর নেতিবাচক প্রভাব পড়ে।’ বয়স বেড়ে গেলে হার্ট ভালোমতো কাজ করতে পারে না, এটিও যৌন জীবনে নেতিবাচক প্রভাব ফেলে। তিনি বলেন, ‘হার্ট হচ্ছে গাড়ির ইঞ্জিনের মতো একটি পাম্প এবং মানুষ বয়স্ক হতে থাকলে এটির পাম্পিং ইউনিটের কার্যকারিতা কমে যেতে থাকে।’ যখন হার্টের পাম্পিং মেকানিজম দুর্বল হয়ে যায় তখন লিঙ্গের স্পঞ্জি টিস্যুতে রক্তপ্রবাহ কম হয়। অথচ আপনার লিঙ্গ শক্ত হওয়ার জন্য পর্যাপ্ত রক্তপ্রবাহ প্রয়োজন। অন্যথায় তা সেক্স সেশনের মেয়াদ কমাতে পারে এবং তাড়াতাড়ি বীর্য নির্গত হওয়ার কারণ হতে পারে।

পুরুষের মেনোপজের চিকিৎসা রয়েছে?
ভালো খবর: আপনি সাধারণত পুরুষ মেনোপজের উপসর্গ নিরাময় বা হ্রাস করতে পারেন। সেন্ডলার বলেন, ‘সবচেয়ে বেশি কমন চিকিৎসা হচ্ছে ৫-আলফা-রিডাক্টেজ ইনহিবিটরের মতো ওষুধের মাধ্যমে প্রোস্টেটের আকার ছোট করা, এই ওষুধটি প্রোস্টেটের পেশীতন্তু হ্রাস করে।’

কিছু লোক বেডরুমের সমস্যার জন্য লিঙ্গ উত্থানের ওষুধ গ্রহণ করেন, যেমন- ভায়াগ্রা। কিন্তু এই পথে যাওয়ার আগে মেডিক্যাল বিশেষজ্ঞের পরামর্শ নিন।

আপনি শারীরিক পরিশ্রম বাড়ানোর কথাও ভাবতে পারেন। সেন্ডলার বলেন, ‘শারীরিক শক্তি ও স্ট্যামিনা বাড়ানোর জন্য আমি বিশেষ করে শারীরিক ব্যায়াম করার কথা বলবো, যার ফলে যৌন পারফরম্যান্স পুনরুদ্ধার হবে।’ বেশি করে হাঁটুন, জগিং করুন এবং এমনকি বেয়ার ওয়ার্কআউট ও কেজেল এক্সারসাইজও করতে পারেন।

তথ্যসূত্র : ম্যান’স হেলথ



রাইজিংবিডি/ঢাকা/১৭ অক্টোবর ২০১৮/ফিরোজ

Walton Laptop
 
     
Marcel
Walton AC