ঢাকা, বুধবার, ৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৫, ২১ নভেম্বর ২০১৮
Risingbd
সর্বশেষ:

ফুসফুস ক্যানসারের ব্যতিক্রমী ৮ লক্ষণ

এস এম গল্প ইকবাল : রাইজিংবিডি ডট কম
 
     
প্রকাশ: ২০১৮-১১-০৪ ৭:২৮:৪৯ পিএম     ||     আপডেট: ২০১৮-১১-০৫ ১০:২৫:৫০ এএম
প্রতীকী ছবি

এস এম গল্প ইকবাল : ফুসফুস ক্যানসারের একটি ভীতিকর লক্ষণ হচ্ছে, দীর্ঘস্থায়ী কাশি যা সম্পর্কে অনেকে অবগত আছেন। কিন্তু এ ক্যানসারের কিছু আনকমন বা ব্যতিক্রমী লক্ষণ রয়েছে যা সম্পর্কে আপনার জানা থাকা উচিৎ।

ফুসফুস ক্যানসার শনাক্তকরণ
ফুসফুস ক্যানসারের সবচেয়ে বেশি ঝুঁকিতে আছেন ধূমপায়ীরা, কিন্তু ১০ থেকে ১৫ শতাংশ ফুসফুস ক্যানসারের রোগী কখনো ধূমপান করেননি। প্রাথমিক পর্যায়ে ফুসফুস ক্যানসারের কোনো উপসর্গ প্রকাশ পায় না, এ কারণে যারা এই ক্যানসারের উচ্চ ঝুঁকিতে আছে তাদের জন্য স্ক্রিনিং খুব গুরুত্বপূর্ণ। ইউ.এস প্রিভেন্টিভ টাস্ক ফোর্সের (সংস্থাটি মেডিক্যাল স্ক্রিনিং পর্যালোচনা করে) মতে, ‘ধূমপায়ী এবং সাবেক ধূমপায়ী উভয়ের বয়স ৫৫ থেকে ৮০ বছরের মধ্যে বাৎসরিক স্ক্রিনিং করানো উচিত। এ ক্যানসার অগ্রসর হলে উপসর্গ প্রকাশ পেতে শুরু করে।

ফুসফুস ক্যানসার তাড়াতাড়ি শনাক্তকরণের গুরুত্ব
নিউ ইয়র্কের হোয়াইট প্লেনস হাসপাতালের থোরাসিক সার্জারির প্রধান টড ওয়েইজার এবং জর্জিয়া ক্যানসার সেন্টারের থোরাসিক সার্জন কারস্টেন স্ক্রোডার উভয়েই জোর দিয়ে বলেন যে, ফুসফুস ক্যানসারে আক্রান্ত রোগীদের অধিকাংশেরই প্রারম্ভিক পর্যায়ে উপসর্গ দেখা যায় না- কিন্তু এই সময়ে চিকিৎসা খুব কার্যকর হতে পারে। এ কারণে যারা এ রোগের উচ্চ ঝুঁকিতে আছে তাদের বয়স ৫৫ হলেই প্রতিবছর বুকের সিটি স্ক্যান করানো উচিত। তারা বলেন যে, ফুসফুস ক্যানসার নির্ণয়ের জন্য বুকের এক্স-রে কার্যকর নয়। ডা. স্ক্রোডার বলেন, ‘টিউমারের সাইজ ম্যাটার করে। যদি আমরা টিউমার ছোট থাকা অবস্থায় শনাক্ত ও চিকিৎসা করতে পারি তাহলে সার্ভাইভাল রেট উল্লেখযোগ্যভাবে বৃদ্ধি পাবে।’

ফুসফুস ক্যানসারের ৮ ব্যতিক্রমী লক্ষণ

* কাশিতে পরিবর্তন

আমরা ইতোমধ্যে জানি, যে কাশি চলে যায় না তা ফুসফুস ক্যানসারের অন্যতম লক্ষণ। কিন্তু কাশিতে কোনো ধরনের পরিবর্তনও ফুসফুস ক্যানসারের ইঙ্গিত দিতে পারে। যদি আপনার কাশির সঙ্গে রক্ত আসে অথবা মরিচা বর্ণের শ্লেষ্মা বের হয়, তাহলে অবিলম্বে চিকিৎসকের শরণাপন্ন হোন। অন্য একটি সতর্কীকরণ লক্ষণ হচ্ছে: বুকের এক পাশে ব্যথা (যাকে ইউনিলেটার‍্যাল চেস্ট পেইন বলে) যা হার্ট অ্যাটাকের সঙ্গে সম্পর্কযুক্ত বুকব্যথার বিপরীত, বলেন ডা. ওয়েইজার।

* অপ্রত্যাশিত ওজন হ্রাস
ডা. স্ক্রোডার বলেন, ‘কোনো প্রচেষ্টা ব্যতীত তিন মাসের মধ্যে দশ বা তার বেশি ওজন কমে যাওয়া অনেক ধরনের ক্যানসারের ইঙ্গিত দিতে পারে, যেমন- ফুসফুস ক্যানসার।’ ক্ষুধা হ্রাস পাওয়া ওজন হ্রাসে ভূমিকা রাখে অথবা টিউমার শরীরের বিপাককে ব্যাহত করে।’

* কর্কশ কন্ঠস্বর
অনেক কারণে আপনার গলা বা কণ্ঠস্বর কর্কশ হতে পারে, যেমন- ইনফেকশন অথবা কোনো খেলা চলাকালীন অত্যধিক চিল্লাচিল্লি করা কিংবা ফুসফুস ক্যানসার। ডা. স্ক্রোডার বলেন, ‘যদি আপনার কর্কশ কণ্ঠস্বর এক সপ্তাহ বা দুই সপ্তাহ পরও চলে না যায়, তাহলে এটি কোনো কান, নাক ও গলা বিশেষজ্ঞের দ্বারা মূল্যায়ন হওয়া উচিত।’

* শ্বাসকষ্ট
অতিরিক্ত ভারী কোনোকিছু অথবা শরীরের অত্যধিক ওজন নিয়ে সিঁড়ি আরোহনের পর ভারী শ্বাসকার্য স্বাভাবিক হতে পারে। কিন্তু যদি স্বাভাবিক কাজকর্ম অথবা শ্বাসকষ্টের কারণ হতে পারে না এমন হালকা কাজ কাজ করার পরও আপনার শ্বাসকষ্ট হয়, তাহলে চিকিৎসক দেখানোই বুদ্ধিমানের কাজ হবে- কারণ এটি ফুসফুস ক্যানসারের লক্ষণ হতে পারে। ডা. ওয়েইজার বলেন, ‘ফুসফুসে বিকশিত কিছু ক্যানসার পাঁজর খাঁচার ভেতর ছড়িয়ে পড়ে। টিউমার প্রচুর তরল নির্গত করে যা চারপাশে ধাক্কা খায় এবং কোনো রোগীর শ্বাসকার্যের ক্ষমতাকে বিঘ্নিত করে।’

* অত্যধিক তৃষ্ণা ও ঘনঘন মূত্রত্যাগ
ডা. ওয়েইজার বলেন, ‘বিরল ক্ষেত্রে ফুসফুস ক্যানসারের টিউমার এমন পদার্থ সৃষ্টি করে যা রক্তে ক্যালসিয়ামের মাত্রা বাড়ায় এবং এটি আপনাকে অত্যধিক তৃষ্ণা অনুভব করাবে এবং আপনি ঘনঘন মূত্রত্যাগ করবেন।’ যদি আপনি তৃষ্ণা অনুভবের কারণে সচরাচরের তুলনায় বেশি পানি পান করেন, তাহলে চিকিৎসকের শরণাপন্ন হোন- কারণ এটি ফুসফুস ক্যানসারের অন্যতম লক্ষণ হতে পারে।

* গাল ও ঘাড়ে ফোলা
ডা. ওয়েইজার বলেন, ‘ফুসফুসের টিউমার হরমোন নিঃসরণ করে যা বিরলক্ষেত্রে রোগীদের এমন আকৃতির করে যে মনে হবে তারা যেন স্টেরয়েড গ্রহণ করেছেন।’ লক্ষণের মধ্যে ওজন বৃদ্ধি, পিঠের শীর্ষে চর্বি জমা এবং মুখমণ্ডলের ফোলা (যাকে মুন ফেস বলে) অন্তর্ভুক্ত। ডা. ওয়েইজার বলেন, ‘যদি আপনি এসব টিউমার অপসারণ করতে সক্ষম হন, তাহলে এসব উপসর্গ চলে যাবে।’

* কথা বলতে সমস্যা
যখন টিউমার ফুসফুস থেকে মস্তিষ্কে ছড়িয়ে পড়বে, রোগীদের খিঁচুনি ও কথা বলতে সমস্যা হবে। ডা. ওয়েইজার বলেন, ‘এই পথে কিছু রোগীর ফুসফুস ক্যানসার নির্ণীত হয়। তাদের ক্ষেত্রে নিউরোলজিক উপসর্গ প্রকাশ না পাওয়া পর্যন্ত এই ক্যানসার শনাক্ত করা যায় না।’

* ডিজিটাল ক্লাবিং
ফুসফুস ক্যানসারের একটি লক্ষণ হতে পারে ডিজিটাল ক্লাবিং যেখানে রোগীর ফিঙ্গারটিপ বেড়ে যায় এবং যেখান থেকে নখের উত্থান হয়েছে সেখানে অ্যাঙ্গেলের পরিবর্তন হয়। ডা. ওয়েইজার বলেন, ‘কিছু রোগীর নখ বেঁকে যায়। কিন্তু এটি বিরল।’

তথ্যসূত্র : রিডার্স ডাইজেস্ট

পড়ুন : * ফুসফুস ক্যানসার সম্পর্কে ১১ তথ্য

* ফুসফুস ক্যানসারের যে ৭ উপসর্গ অবহেলা করবেন না

* যে ৬ লক্ষণে বোঝা যাবে ফুসফুসের সমস্যা

* ধূমপানের ক্ষতি যেভাবে কমিয়ে আনা সম্ভব



রাইজিংবিডি/ঢাকা/৪ নভেম্বর ২০১৮/ফিরোজ

Walton Laptop
 
     
Marcel
Walton AC