ঢাকা, মঙ্গলবার, ১০ আশ্বিন ১৪২৫, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০১৮
Risingbd
সর্বশেষ:

নতুন উড়োজাহাজের জন্য উচ্চ সুদে ঋণ নিচ্ছে বিমান

কেএমএ হাসনাত : রাইজিংবিডি ডট কম
 
     
প্রকাশ: ২০১৮-০৭-০১ ৮:৫৩:২৪ পিএম     ||     আপডেট: ২০১৮-০৭-২১ ৯:৪৮:০১ পিএম

কেএমএ হাসনাত : চলতি বছরেই বিমান বাংলাদেশের বহরে আরো দুটি ৭৮৭-৮ উড়োজাহাজ যুক্ত হচ্ছে। চতুর্থ পর্যায়ে এ দুটি বিমান বোয়িং কোম্পানির কাছ থেকে ছাড় করতে এইচএসবিসি ব্যাংক থেকে উচ্চ সূদে ২৭৫ মিলিয়ন ডলার ঋণ নিচ্ছে বাংলাদেশ বিমান। এ ঋণের সুদের হার হবে লাইবর প্লাস ২ দশমিক ১৬ শতাংশ অর্থাৎ প্রায় ৪ দশমিক ৫০ শতাংশ।

রোববার সচিবালয়ে অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিতের সভাপতিত্বে ‘অনমনীয় ঋণবিষয়ক স্থায়ী কমিটি’র বৈঠকে এ সংক্রান্ত একটি প্রস্তাব অনুমোদন দেওয়া হয়েছে। বৈঠকে বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্নর এবং কমিটির অন্য সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন বলে সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে।

বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন মন্ত্রণালয় সূত্রে জানা গেছে, বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্স লিমিটেড বিভিন্ন মেয়াদে ১০টি উড়োজাহাজ ক্রয়ের জন্য ২০০৮ সালে যুক্তরাষ্ট্রের বোয়িং কোম্পানির সঙ্গে দুটি চুক্তি স্বাক্ষর করে। ওই চুক্তি অনুযায়ী ইতোমধ্যে চারটি ৭৭৭-৩০০ ইআর এবং দুটি ৭৩৭-৮০০ উড়োজাহাজ বিমানবহরে যুক্ত হয়েছে। অবশিষ্ট চারটি ৭৮৭-৮ উড়োজাহাজ ২০১৯ সালের অক্টোবর/নভেম্বর এবং ২০২০ সালের জানুয়ারি/ফেব্রুয়ারিতে ডেলিভারি নেওয়ার পরিকল্পনা ছিল।

সূত্র জানায়, পরবর্তীতে বোয়িং কোম্পানি এবং বাংলাদেশ বিমানের মধ্যে ২০১৬ সালের ২৫ মে সাপ্লিমেন্টারি এগ্রিমেন্ট স্বাক্ষরিত হয়। সে অনুযায়ী ২০১০ সালের জানুয়ারি ও ফেব্রুয়ারিতে প্রদেয় ৭৮৭-৮ উড়োজাহাজ দুটি ২০১৮ সালের আগস্ট এবং নভেম্বরে ডেলিভারির জন্য নির্ধারিত হয়েছে। তবে বাকি দুটি ২০১৯ সালের অক্টোবর/নভেম্বরে ডেলিভারি নেওয়া হবে।

সূত্র জানায়, চুক্তি অনুযায়ী চারটি ৭৮৭-৮ উড়োজাহাজ ক্রয়ের ক্ষেত্রে প্রি-ডেলিভারি পেমেন্ট (পিডিপি) বাবদ অর্থ দেওয়ার শর্ত রয়েছে। সে অনুযায়ী বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্স চারটি ৭৮৭-৮ উড়োজাহাজের পিডিপি ১৩৬ দশমিক শূন্য ৫ মিলিয়ন ডলার ৬ মাস লাইবর প্লাস ২ দশমিক ৯০ শতাংশ সুদে অর্থায়নের জন্য সোনালী ব্যাংক (ইউকে) লিমিটেড থেকে ঋণ নেওয়ার ব্যবস্থা গ্রহণ করে। স্ট্যান্ডিং কমিটি অন নন-কনসেশনাল লোনের ২০১৬ সালের ৩০ এপ্রিলে অনুষ্ঠিত ১৪তম বৈঠকে পিডিপি অর্থায়নের জন্য ১৩৬ দশমিক শূন্য ৫ মিলিয়ন ডলারের সোনালী ব্যাংক (ইউকে) শাখার প্রস্তাবটি অনুমোদন দেওয়া হয়। সিডিউল অনুযায়ী বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্স কর্তৃক ১২৯ দশমিক ৩১ মিলিয়ন ডলার ঋণ উত্তোলন করা হয়েছে এবং তা বোয়িং কোম্পানিকে পরিশোধ করা হয়েছে।

সূত্র জানায়, চুক্তি অনুযায়ী দুটি ৭৮৭-৮ উড়োজাহাজ ক্রয়ের জন্য ডেলিভারি পেমেন্ট (ডিপি) বাবদ আনুমানিক ২৫০ মিলিয়ন ডলার উড়োজাহাজসমূহের ডেলিভারির সময়ে প্রদান করতে হবে। বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের অনুকূলে ডেলিভারি তব্য চারটি ৭৮৭-৮ উড়োজাহাজের ডেলিভারি পেমেন্ট বাবদ প্রদেয় অর্থ অর্থায়নের জন্য প্রয়োজনীয় রাষ্ট্রীয় গ্যারান্টি দেওয়ার নীতিগত সম্মতি অর্থ বিভাগ কিছু শর্ত জুড়ে গত ২০১৭ সালের ১ নভেম্বর প্রদান করে। এ চূড়ান্ত গ্যারান্টি প্রদানের ক্ষেত্রে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্স লিমিটেডে এবং বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন মন্ত্রণালয়কে গ্যারান্টি গাইড লাইন-২০১৪ সহ সংশ্লিষ্ট সব বিধি-বিধান পরিপূর্ণভাবে প্রতিপালনের উল্লেখ আছে।

সূত্র জানায়, গাইডলাইন অনুযায়ী পরবর্তীতে নেগোশিয়েশন কমিটি এইচএসবিসি ব্যাংকের সঙ্গে দরকষাকষি করে ঋণের সুদের হার ২ দশমিক ১৬ শতাংশ নির্ধারণ করে। অর্থ বিভাগ থেকে ডিপি অর্থায়ন বাবদ প্রদত্ত সভরেন গ্যারান্টির নীতিগত সম্মতির শর্ত অনুযায়ী বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্স লিমিটেডের চতুর্থ পর্যায়ে সরবরাহের জন্য নির্ধারিত দুটি ৭৮৭-৮ উড়োজাহাজ ক্রয় বাবদ ডেলিভারি মূল্য অর্থায়নের জন্য ‘অনমনীয় ঋণবিষয়ক স্থায়ী কমিটি’তে উপস্থাপন করা হলে তা অনুমোদন দেওয়া হয়।

এ প্রসঙ্গে অর্থমন্ত্রী বলেন, বিমানের বহরে নতুন ১০টি উড়োজাহাজ অন্তর্ভূক্ত করতে তত্ত্বাবধায়ক সরকারের সময় একটি চুক্তি করেছিল। সেটি একটি ভালো উদ্যোগ ছিল বলে আওয়ামী লীগ সরকার ক্ষমতায় আসার পর সেটি কার্যকরের সব ব্যবস্থা নেওয়া হয়। ইতোমধ্যে বিমানের বহরে ছয়টি উড়োজাহাজ যোগ হয়েছে। বাকি চারটির মধ্যে দুটি নির্দিষ্ট সময়ের আগেই ডেলিভারি পাওয়া যাচ্ছে। ওই দুটি উড়োজাহাজের ডেলিভারি পেমেন্টের জন্য বিমান এইচএসবিসি ব্যাংক থেকে উচ্চ সুদে ঋণ নিচ্ছে। কমিটি এ ঋণের অনুমোদন দিয়েছে।

একটি লোকসানি প্রতিষ্ঠানের জন্য অতিরিক্ত সুদে ঋণ নেওয়া প্রসঙ্গে এক প্রশ্নের জবাবে অর্থমন্ত্রী বলেন, বিশ্বের কোন দেশের কোন বিমান লাভজনক। জাতীয় পরিবহনে বিমান রাখার স্বার্থেই এ ধরনের ঋণ নিতে হয়। 

সর্বাধুনিক প্রযুক্তি সম্বলিত নতুন উড়োজাহাজ বোয়িং ৭৮৭-৮ ড্রিমলাইনার সংযোজনের মাধ্যমে বিমান বাংলাদেশ এক নতুন অধ্যায়ের সৃষ্টি করতে যাচ্ছে বলে মন্ত্রণালয় সূত্রে জানা গেছে। স্টেট অব দ্য আর্ট টেকনোলজির ড্রিমলাইনার উড়োজাহাজে যাত্রীরা সমুদ্রপৃষ্ঠ থেকে ৪৩ হাজার ফুট উচ্চতায় ভ্রমণকালে ওয়াইফাই সুবিধা পাবেন এবং বিশ্বের যেকোনো প্রান্তে প্রিয়জনের সঙ্গে ফোনে কথা বলতে পারবেন। একই সঙ্গে থাকছে বিশ্বমানের ইন-ফ্লাইট এন্টারটেইনমেন্ট সিস্টেম (আইএফই)। যেখানে যাত্রীদের জন্য থাকছে ক্লাসিক থেকে ব্লকবাস্টার মুভি, বিভিন্ন ঘরানার মিউজিক, ভিডিও গেমসসহ বিশ্বের খ্যাতনামা নয়টি টিভি চ্যানেলের রিয়েল টাইম লাইভ স্ট্রিমিং, অনলাইন কেনাকাটার সুবিধা, ক্রেডিটকার্ড/ক্যাশ পেমেন্ট অন বোর্ড ডিউটি ফ্রি শপসহ বিনোদনের ব্যাপক আয়োজন।



রাইজিংবিডি/ঢাকা/১ জুলাই ২০১৮/হাসনাত/রফিক

Walton Laptop
 
     
Walton