ঢাকা, সোমবার, ৩ পৌষ ১৪২৫, ১৭ ডিসেম্বর ২০১৮
Risingbd
সর্বশেষ:

রাতে মাঠে নামছে সুইডেন-ইংল্যান্ড ও রাশিয়া-ক্রোয়েশিয়া

আমিনুল ইসলাম : রাইজিংবিডি ডট কম
 
     
প্রকাশ: ২০১৮-০৭-০৭ ১১:২৬:৩৫ এএম     ||     আপডেট: ২০১৮-০৭-০৭ ৭:০৭:৩৬ পিএম

ক্রীড়া ডেস্ক : বিশ্বকাপের তৃতীয় ও চতুর্থ কোয়ার্টার ফাইনাল আজ। বাংলাদেশ সময় রাত ৮টায় তৃতীয় কোয়ার্টার ফাইনালে মুখোমুখি হবে সুইডেন ও ইংল্যান্ড। আর রাত ১২টায় চতুর্থ কোয়ার্টার ফাইনালে লড়বে স্বাগতিক রাশিয়া ও ক্রোয়েশিয়া। দুটি ম্যাচই সরাসরি সম্প্রচার করবে নাগরিক টিভি, মাছরাঙা টিভি ও সনি টেন-২।

সুইডেন অবশ্য ইংল্যান্ডের চেনা প্রতিপক্ষ। সেই ১৯২৩ সাল থেকে দল দুটির মধ্যে ফুটবলীয় লড়াই চলে আসছে। এ পর্যন্ত ২৪ বার মুখোমুখি হয়েছে তারা। তার মধ্যে ইংল্যান্ড জিতেছে ৮টিতে। সুইডেন ৭টিতে। আর ৯টি ম্যাচ হয়েছে ড্র। বিশ্বকাপে এর আগে দুইবার মুখোমুখি হয়েছে দল দুটি। তবে এবারই প্রথম কোয়ার্টার ফাইনালে দেখা হল তাদের। ২০০২ বিশ্বকাপে গ্রুপপর্বে দেখা হয়েছিল সুইডেন ও ইংল্যান্ডের সেবার ১-০ গোলে পিছিয়ে পড়েও ড্র করেছিল সুইডিশরা। এরপর ২০০৬ বিশ্বকাপেও গ্রুপপর্বে দেখা হয়েছিল দল দুটির। সেবারও পিছিয়ে পড়ে ২-২ গোলে ড্র করেছিল সুইডেন। এবার অবশ্য ড্র করার সুযোগ নেই। জিততেই হবে একটি দলকে। আর হার মানতেই হবে একটিকে। এখন দেখার বিষয় দিনশেষে বিজয়ী দলের তালিকায় নাম লেখায় কারা।

ইংল্যান্ড সবশেষ ১৯৯০ বিশ্বকাপের সেমিফাইনালে খেলেছিল। এরপর আশায় আশায় কেটে গেল ২৮ বছর। সেমিফাইনালে আর ওঠা হয়নি। এবার তারা দারুণ ছন্দে আছে। ছন্দে আছে দলের তরুণ খেলোয়াড়রাও। বিশেষ করে হ্যারি কেন। ৪ ম্যাচেই ইংলিশ এই স্ট্রাইকার করে ফেলেছেন ৬ গোল। গোল্ডেন বুট জয়ের দৌড়ে তিনি এগিয়ে অন্য যেকারো চেয়ে।

অন্যদিকে সুইডেন সেমিফাইনাল খেলার অপেক্ষায় আছে ২৪ বছরের। সবশেষ তারা ১৯৯৪ বিশ্বকাপে ঘরের মাঠে সেমিফাইনাল খেলেছিল। সেবার অবশ্য তৃতীয় হয়েছিল তারা। এরপর আর সেমিফাইনালের টিকিট পায়নি দ্য ব্লু-ইয়োলোরা। এবার জার্মানি ও মেক্সিকোর মতো দলের গ্রুপ থেকে চ্যাম্পিয়ন হয়ে শেষ ষোলোতে এসেছে তারা। শেষ ষোলোতে সুইজারল্যান্ডকে হারিয়ে জায়গা করে নিয়েছে কোয়ার্টার ফাইনালে। আজ ইংল্যান্ডকে হারাতে পারলেই ২৪ বছর পর সেমিফাইনালে জায়গা করে নিতে পারবে সুইডিশরা।
 


অন্যদিকে রীতিমতো উড়ছে রাশিয়া ও ক্রোয়েশিয়া। রাশিয়া অপ্রত্যাশিত ভালো খেলছে এবারের বিশ্বকাপে। গ্রুপপর্ব, শেষ ষোলো পেরিয়ে প্রথমবারের মতো কোয়ার্টার ফাইনালে জায়গা করে নিয়েছে তারা। স্পেনের মতো দলকে শেষ ষোলো থেকে বিদায় করে দিয়ে তারা রীতিমতো উজ্জীবিত। অন্যদিকে ক্রোয়েশিয়া আর্জেন্টিনার মতো দলকে ৩-০ গোলে হারিয়ে গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হয়ে শেষ ষোলোতে আসে। সেখানে ডেনমার্কের বিপক্ষে টাইব্রেকারে জিতে কোয়ার্টার ফাইনালে এসেছে। এই দুটি প্রতিপক্ষ খুব বেশি মুখোমুখি হয়নি। ২০০৮ ইউরোর বাছাইপর্বে দেখা হয়েছিল তাদের। সেবার ম্যাচটি গোলশূন্য ড্র হয়েছিল। অন্যদিকে ২০১৫ সালে তারা একটি প্রীতি ম্যাচ খেলেছিল। রাশিয়া প্রথমার্ধে এগিয়ে গেলেও শেষ পর্যন্ত ৩-১ ব্যবধানে ম্যাচ হেরেছে।

আজ ক্রোয়েশিয়ার বিপক্ষে জয় পেলে ষষ্ঠ কোনো আয়োজক দেশ হিসেবে সেমিফাইনালে নাম লেখাবে রাশিয়া। এর আগে ইতালি (১৯৯০), ফ্রান্স (১৯৯৮), দক্ষিণ কোরিয়া (২০০২), জার্মানি (২০০৬) ও ব্রাজিল (২০১৪) আয়োজক হিসেবে সেমিফাইনাল খেলেছিল। জিতলে তাদের কাতারে প্রবেশ করবে স্বাগতিক রাশিয়া। আর হেরে গেলে মেক্সিকোর ভাগ্যবরণ করবে। ১৯৮৬ বিশ্বকাপের আয়োজক মেক্সিকো পশ্চিম জার্মানির কাছে টাইব্রেকারে হেরে কোয়ার্টার ফাইনাল থেকেই বিদায় নিয়েছিল।

স্বাগতিকদের কাছে হারার রেকর্ড আছে ক্রোয়েশিয়ার। ১৯৯৮ বিশ্বকাপে তারা সেমিফাইনালে স্বাগতিক ফ্রান্সের কাছে ২-১ ব্যবধানে হেরেছিল। আর ২০১৪ বিশ্বকাপে তারা গ্রুপপর্বে ব্রাজিলের কাছে হার মেনেছিল ৩-১ ব্যবধানে। আজ তাদের ভাগ্য ঘুরবে কী?




রাইজিংবিডি/ঢাকা/৭ জুলাই ২০১৮/আমিনুল

Walton Laptop
 
     
Marcel
Walton AC