ঢাকা, রবিবার, ১২ চৈত্র ১৪২৩, ২৬ মার্চ ২০১৭
Risingbd
মার্চ
সর্বশেষ:

পৃথিবীতে পানির খোঁজখবরের ১৫ বছর (ভিডিও)

মনিরুল হক ফিরোজ : রাইজিংবিডি ডট কম
 
   
প্রকাশ: ২০১৭-০৩-১৬ ১২:৪৩:২০ পিএম     ||     আপডেট: ২০১৭-০৩-১৬ ১২:৪৩:২০ পিএম

বিজ্ঞান-প্রযুক্তি ডেস্ক : পৃথিবীর পানির পরিমানের ওপর নজর রাখা মার্কিন মহাকাশ গবেষণা সংস্থা নাসার ‘গ্রাভিটি রিকভারি অ্যান্ড ক্লাইমেট এক্সপেরিমেন্ট (গ্রেস)’ নামক উপগ্রহ দুইটি এ সপ্তাহে ১৫ বছর পূর্ণ করছে।

মানুষজন যখন নাসার গ্রেস মিশন নিয়ে কথা বলে তখন এটার ক্ষেত্রে ‘বৈপ্লবিক’ শব্দটি ব্যবহার করে। এটি একটি যুগান্তকারী মিশন হিসেবে পরিচিত। পৃথিবীর পানির তথ্য জানার জন্য ২০০২ সালের ১৭ মার্চ, যুক্তরাষ্ট্র এবং জার্মানি যৌথ উদ্যোগে গ্রেস মিশনে দুইটি স্যাটেলাইট (উপগ্রহ) মহাকাশে প্রেরণ করে।

স্যাটেলাইটের মাধ্যমে জানা যায়, পৃথিবীতে পানি কিভাবে প্রবাহিত হচ্ছে এবং গ্রহের চারপাশে কিভাবে সংরক্ষিত হচ্ছে। এই স্যাটেলাইট দুইটি পৃথিবীর ভূঅভ্যন্তরে পানি চলাচল ট্রাকিং করে থাকে। প্রাকৃতিক এবং মানুষ সৃষ্ট- উভয় ধরনের প্রভাবে পৃথিবীতে পানির পরিবর্তন জানায়।

পাশাপাশি বিশ্বের কোন দেশে ভূগর্ভের পানি বেশি পরিমাণে কমে যাচ্ছে – গ্রেস মিশনে মহাকাশ থেকে এ তথ্য যেমন আগাম জানা যায়, তেমনি পাওয়া যায় পৃথিবীতে কি পরিমাণ বরয় গলছে বা সমুদ্র পৃষ্ঠের উচ্চতা বৃদ্ধির তথ্যও।

নিশ্চয়ই মনে প্রশ্ন জাগছে, মহাকাশের স্যাটেলাইট থেকে পৃথিবীর ভূগর্ভস্থ পানির পরিমান নির্ণয় কীভাবে সম্ভব। বিশেষায়িত এই স্যাটেলাইটগুলো পৃথিবীর কোথাও মাধ্যাকর্ষণ শক্তির সামান্য পরিবর্তন হলেও তা ধরতে পারে। যেখানে পানির পরিমাণ কম থাকে সেখানে মাধ্যাকর্ষণ শক্তি কম অনুভূত হয় বলে স্যাটেলাইট তা নির্ণয় করতে পারে।

এই ১৫ বছরে, গ্রেস মিশন তার মূল পরিকল্পনার ৩ গুণ বেশি সময় স্থায়ী হয়েছে। গবেষকরা উপগ্রহ দুইটির মেয়াদ আরো বাড়ানোর জন্য সবরকম চেষ্টা করেছেন কিন্তু উপগ্রহ দুইটির জ্বালানি ফুরিয়ে এসেছে, সম্ভবত এই গ্রীষ্মেই সমাপ্তি টানবে গ্রেস।

তবে বিকল্প ব্যবস্থা হিসেবে যুক্তরাষ্ট্র এবং জার্মানি ২০১২ সাল থেকে একত্রে কাজ করে গ্রেস-এফও নামক আরও দুইটি স্যাটেলাইট নির্মাণ করেছে। আধুনিক প্রযুক্তির নতুন গ্রেস-এফও উপগ্রহ দুইটির একটি এ বছরের ডিসেম্বরে এবং অপরটি আগামী বছরের ফেব্রুয়ারি মহাকাশে যাত্রা শুরু করে পৃথিবীতে পানির অবস্থা নির্ণয়ে কাজ অব্যাহত রাখবে বলে জানিয়েছে নাসা।

 

 

তথ্যসূত্র : নাসা

 

 

রাইজিংবিডি/ঢাকা/১৬ মার্চ ২০১৭/ফিরোজ

Walton Laptop