ঢাকা, বুধবার, ৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৫, ২১ নভেম্বর ২০১৮
Risingbd
সর্বশেষ:

মানব মস্তিষ্কের আদলে তৈরি সবচেয়ে বড় সুপার কম্পিউটার

আহমেদ শরীফ : রাইজিংবিডি ডট কম
 
     
প্রকাশ: ২০১৮-১১-০৫ ৫:৫৮:২৯ পিএম     ||     আপডেট: ২০১৮-১১-০৫ ৭:১২:৫৩ পিএম

আহমেদ শরীফ : বিশ্বের সবচেয়ে বড় সুপার কম্পিউটার, যা মানব মস্তিষ্কের মতো কাজ করার লক্ষ্যে তৈরি করা হয়েছে, সেটি তার কাজ শুরু করেছে প্রথমবারের মতো।

মানব মস্তিষ্ক কিভাবে কাজ করে ও পারকিনসন’স রোগ সহ মস্তিষ্কের বেশ কিছু রোগ নিয়ে গবেষণায় বিজ্ঞানীদের সহায়তা করবে এই সুপার কম্পিউটার। বিশ্বের সবচেয়ে বড় এই সুপার কম্পিউটার প্রতি সেকেন্ডে ২০০ মিলিয়ন কাজ করতে সক্ষম। মানব মস্তিষ্কের মতো কাজ করার লক্ষ্যে এই সুপার কম্পিউটারটি তৈরিতে ব্যয় হয়েছে ১৯.৫ মিলিয়ন ডলার। এই সুপার কম্পিউটারে সংযুক্ত হয়েছে ১০ লাখ প্রসেসর কোর। সুপার কম্পিউটারটির নাম ‘স্পিন নেকার’।

বিশ্বের অন্য যেকোনো মেশিনের তুলনায় এই সুপার কম্পিউটারটি সবচেয়ে বেশি নিউরন বা মস্তিষ্ক কোষের মডেল তৈরি করতে পারে। মস্তিষ্কে পারকিনসন’স রোগ সহ অন্য সব রোগ কেমন প্রভাব ফেলে, তা জানতে গবেষকদের সহায়তা করবে এই সুপার কম্পিউটার। ম্যানচেস্টার ইউনিভার্সিটির গবেষকরা ১০ বছরের বেশি সময় নিয়ে ‘স্পিন নেকার’ নামের এই সুপার কম্পিউটার তৈরি করেন। এর প্রতিটি চিপে ১০০ মিলিয়ন পার্টস আছে, যা মানব মস্তিষ্কের মতো কাজ করার চেষ্টা করছে।

এই সুপার কম্পিউটার তৈরির প্রজেক্ট সায়েন্টিস্ট প্রফেসর স্টিভ ফারবার বলেছেন, গতানুগতিক কম্পিউটারের চেয়ে এই সুপার কম্পিউটার পুরোপুরি আলাদা। কম্পিউটার নয়, বরং অনেকটাই মানব মস্তিষ্কের মতো কাজ করবে এই সুপার কম্পিউটার।

‘স্পিন নেকার’ নামের এই সুপার কম্পিউটার এক পয়েন্ট থেকে আরেক পয়েন্টে তথ্য আদান প্রদান করবে না। বরং মস্তিষ্কের মতো একই সময়ে হাজার হাজার ভিন্ন গন্তব্যে কোটি কোটি তথ্য পৌঁছে দেবে।


তথ্যসূত্র: ডেইলি মেইল

পড়ুন : * সবচেয়ে দ্রুতগতির সুপার কম্পিউটার
*  সবচেয়ে শক্তিশালী ৮ সুপার কম্পিউটার




রাইজিংবিডি/ঢাকা/৫ নভেম্বর ২০১৮/ফিরোজ

Walton Laptop
 
     
Marcel
Walton AC