ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ৭ আষাঢ় ১৪২৬, ২০ জুন ২০১৯
Risingbd
সর্বশেষ:

‘সরকারের সব সেবার মূল কেন্দ্রবিন্দু হবে স্মার্টফোন’

মনিরুল হক ফিরোজ : রাইজিংবিডি ডট কম
     
প্রকাশ: ২০১৯-০১-১০ ৭:২৭:০৮ পিএম     ||     আপডেট: ২০১৯-০১-১০ ৭:২৭:০৮ পিএম
Walton AC 10% Discount

বিজ্ঞান-প্রযুক্তি ডেস্ক : সেদিন আর বেশি দূরে নয় যেদিন সরকারের সব সেবার কেন্দ্রবিন্দু হবে স্মার্টফোন। স্মার্টফোন নতুন জীবনযাত্রায় নিয়ে যাবে সবাইকে। সব কাজ হবেই স্মার্টফোনে বলেছেন ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তিমন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার।

আজ ১০ জানুয়ারি বিকেলে ‘টেকশহরডটকম স্মার্টফোন ও ট্যাব এক্সপো ২০১৯’ উদ্বোধন করেন তিনি। মেলা উদ্বোধনকালে তিনি আরো বলেন, ‘চলার পথে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ ডিভাইস স্মার্টফোন। এই স্মার্টফোন আমরা শুধু আমদানী আর রপ্তানিতেই বিশ্বাসী নয়, উৎপাদনেও বিশ্বাসী। বাংলাদেশ প্রতিদিন পরিবর্তন হচ্ছে আর তাতেই আমাদের এগিয়ে চলা। এছাড়া সরকার মোবাইল কেন্দ্রিক সবদিকেই ফোকাস দিচ্ছে। স্মার্টফোনের মাধ্যমে কাজগুলো আরো সহজভাবে করা যায় সে ব্যাপারেও ভাবা হচ্ছে।’

ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তিমন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার আরো বলেন, ‘আগামী কয়েকবছরের মধ্যে সরকারের বেশ কিছু পদক্ষেপ আছে। আর যেগুলো প্রধান ধাপই আইসিটি। ডাকঘর নিয়েও আমাদের চিন্তা আছে। সেগুলো ডিজিটাল করার। সেক্ষেত্রে যারা কাজ করবে তাদের প্রশিক্ষণ দেয়া হবে এবং তাদের দিয়েই পরিচালনা করা হবে। এসব কিছুতেই ব্যবহার হবে স্মার্টফোন। প্রযুক্তির ব্যবহার যত বাড়বে স্মার্টফোনের ব্যবহারও তত বাড়বে।’

বিশেষ অতিথি তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক বলেন, ‘এক সময় স্মার্টফোনের কথা চিন্তাই করা যেত না, তখন ফিচার ফোন ছিল কিন্তু সময়ের পরিবর্তনে স্মার্টফোনের চাহিদা বেড়েছে। বর্তমানে বছরে সাড়ে ৩ কোটি স্মার্টফোন আমদানি করা হচ্ছে দেশে। এছাড়া স্মার্টফোন নির্ভর জীবনযাপন করছি আমরা। কেননা ঘুম থেকে উঠার জন্যও অ্যালার্ম ব্যবহার করছি স্মার্টফোনের। আবার কোনো কিছু নোট নেবার জন্যও স্মার্টফোন ব্যবহার করছি। দেশে ৯ কোটির বেশি ইন্টারনেট ব্যবহারকারী এই সংখ্যা বৃদ্ধির সঙ্গে সঙ্গে বাড়ছে স্মার্টফোন ব্যবহারকারীও।’

 



আনুষ্ঠানিক উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে আরো বক্তব্য রাখেন হুয়াওয়ে কনজ্যুমার বিজনেস গ্রুপ বাংলাদেশের মার্কেটিং ডিরেক্টর ঈগল সং, স্যামসাং মোবাইল বাংলাদেশের জেনারেল ম্যানেজার বমিন কিম, ট্রানশান বাংলাদেশ লিমিটেডের সিইও রেজওয়ানুল হক, ভিভো বাংলাদেশের কান্ট্রি প্রজেক্ট ম্যানেজার মিস্টার অ্যাঙ্গাস, আমরা কোম্পানিজ এবং উই মোবাইলের চেয়ারম্যান সৈয়দ ফারুক আহমেদ, স্মার্ট টেকনোলজিস বিডি লিমিটেডের ডিরেক্টর সাকিব আরাফাত এবং এক্সপো মেকারের কৌশলগত পরিকল্পনাকারী মুহম্মদ খান।

এর আগে আজ সকাল ১০টা থেকে শুরু হয় ‘টেকশহরডটকম স্মার্টফোন ও ট্যাব এক্সপো ২০১৯’। দেশের ব্যবহারকারীদের আধুনিক স্মার্টফোন ও ট্যাবলেট কম্পিউটার পরখ করে দেখার ও কেনার সুযোগ করে দিতে রাজধানীর বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে তিন দিনব্যাপী মেলা চলবে শনিবার পর্যন্ত। প্রতিদিন রাত ৮টায় শেষ হবে মেলা।

স্মার্টফোন ও ট্যাবলেট কম্পিউটার নিয়ে দেশে এক্সপো মেকারের আয়োজনে এটি একাদশ প্রদর্শনী। এবারের মেলায় বিশ্বখ্যাত সব ব্র্যান্ডের স্মার্টফোন ও ট্যাবলেট পাওয়া যাচ্ছে। অংশ নিয়েছে হুয়াওয়ে, স্যামসাং, টেকনো, ভিভো, উই, গোল্ডেনফিল্ড, মটোরোলা, নকিয়া, আইফোন, ইউসিসি, আইটেল, ইনফিনিক্স, ইউমিডিজি, ডিটেল, এডিএ, ম্যাক্সিমাস এবং  ই-কমার্স প্রতিষ্ঠান প্রিয়শপ ডটকমসহ বিভিন্ন ব্র্যান্ড ও প্রতিষ্ঠান। ব্র্যান্ডগুলো মেলায় বিভিন্ন মডেলের স্মার্টফোন ও স্মার্ট ডিভাইস প্রদর্শন ও বিক্রি করছে। পাওয়া যাচ্ছে মোবাইল অ্যাকসেসরিজও। এ ছাড়া মেলায় বেশ কিছু মডেলের স্মার্টফোন উন্মোচনও করা হবে।

মেলায় প্রবেশ ফি ২০ টাকা। তবে প্রতিবন্ধী এবং শিক্ষার্থীরা আইডি কার্ড দেখিয়ে বিনামূল্যে প্রবেশ করতে পারবেন।



রাইজিংবিডি/ঢাকা/১০ জানুয়ারি ২০১৯/ফিরোজ

Walton AC
     
Walton AC
Marcel Fridge