ঢাকা, সোমবার, ৯ আশ্বিন ১৪২৫, ২৪ সেপ্টেম্বর ২০১৮
Risingbd
সর্বশেষ:

পূর্বের অভিজ্ঞতায় আত্মবিশ্বাসী জিম্বাবুয়ের অধিনায়ক

ইয়াসিন : রাইজিংবিডি ডট কম
 
     
প্রকাশ: ২০১৮-০১-১৩ ৫:০০:১২ পিএম     ||     আপডেট: ২০১৮-০১-১৩ ১০:৫০:৪০ পিএম
জিম্বাবুয়ের অধিনায়ক গ্রায়েম ক্রেমার (ফাইল ফটো)

ক্রীড়া প্রতিবেদক : ১৯৯৯ সাল থেকে শুরু করে ২০১৫ সাল পর্যন্ত জিম্বাবুয়ে ক্রিকেট দল বাংলাদেশে সবথেকে বেশি ওয়ানডে ম্যাচ খেলেছে।

বাংলাদশের বিপক্ষে ৩৬ ম্যাচে তাদের জয় ১১টিতে। হেরেছে ২৫টিতে। ভারত ও পাকিস্তানের পর সবথেকে বেশি জয় তাদেরই। যদিও অনান্য দলের থেকে ম্যাচও বেশি খেলেছে তারা।

বাংলাদেশের কন্ডিশনের সম্পর্কে অন্যান্য দলের ক্রিকেটারদের থেকে জিম্বাবুয়ের ক্রিকেটারদের বেশি জানা। এছাড়া ঢাকা প্রিমিয়ার লিগ, বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগে তাদের একাধিক খেলোয়াড়ের অংশগ্রহণ তাদেরকে আরও অভিজ্ঞ করে তুলেছে।

সেই অভিজ্ঞতা থেকেই এবারের ত্রিদেশীয় সিরিজে দারুণ কিছু করতে আত্মবিশ্বাসী জিম্বাবুয়ে ক্রিকেট দল। পরশু বাংলাদেশ, শ্রীলঙ্কা ও জিম্বাবুয়ের মধ্যকার ত্রিদেশীয় সিরিজ শুরু হচ্ছে। জিম্বাবুয়ে ক্রিকেট দল গতরাতে ঢাকায় এসে পৌঁছেছে। যদিও তাদের আসার কথা ছিল ১০ জানুয়ারি। আজ বিকেএসপিতে একটি প্রস্তুতি ম্যাচও খেলার কথা ছিল। কিন্তু বাংলাদেশে যথা সময়ে আসতে না পারায় প্রস্তুতি ম্যাচও খেলা হয়নি।

আজ বেলা ৩টায় মিরপুরের একাডেমিতে অনুশীলনে নামার আগে জিম্বাবুয়ের অধিনায়ক গ্রায়েম ক্রেমার মুখোমুখি হন গণমাধ্যমের। ত্রিদেশীয় সিরিজ নিয়ে বিভিন্ন প্রশ্নের উত্তর দেন জিম্বাবুয়ের অধিনায়ক। রাইজিংবিডির পাঠকদের জন্য তা দেওয়া হল :

প্রশ্ন : দেরিতে আসায় প্রস্তুতি ম্যাচ খেলার সুযোগ হারালেন…
গ্রায়েম ক্রেমার :
আমার মনে হয় বিষয়টি এমনভাবে চিন্তা না করলেও চলবে। আমরা ঢাকায় অনেক খেলেছি। কন্ডিশন আগের মতোই, বড় কোনো পার্থক্য থাকবে না। মূল মঞ্চে মাঠে নামার আগে আমরা আজ এবং আগামীকাল অনুশীলনের সুযোগ পাচ্ছি। কৃত্রিম আলোয় ফিল্ডিংও করব। আমাদের যারা তরুণ ক্রিকেটার আছে তাদের জন্য এটা নতুন অভিজ্ঞতা। প্রস্তুতি ম্যাচ কোনো ইস্যু হতে পারে না।

প্রশ্ন : বিপিএলে কিছুদিন আগেই আপনি খেলে গেলেন…
গ্রায়েম ক্রেমার :
বিপিএলে বাংলাদেশ এবং শ্রীলঙ্কার বেশ কিছু খেলোয়াড় সম্পর্কে জেনেছি। এটা আমাদেরকে অনেক সাহায্য করবে। আমার, রাজার (সিকান্দার রাজা) ও ম্যালকমের (ম্যালকম ওয়ালার) অভিজ্ঞতা ত্রিদেশীয় সিরিজে অনেক কাজে দিবে।

প্রশ্ন : ত্রিদেশীয় সিরিজে কাকে কঠিন প্রতিপক্ষ মনে হচ্ছে?
গ্রায়েম ক্রেমার :
এই মুহূর্তে এটা বলা কঠিন। ওয়ানডে ক্রিকেটে প্রত্যেকের নিজেদের পরিকল্পনা থাকে। প্রত্যেক দলেই ভালোমানের স্পিনার রয়েছে। পার্থক্য গড়ে দিতে পারে ফিল্ডিং। ফিল্ডিংয়ে সেরা দলের সম্ভাবনা থাকবে। নিজেদের দিনে যেকোনো দল জিততে পারে। খুব ভালো ত্রিদেশীয় সিরিজ হবে।

প্রশ্ন : বাংলাদেশে জিম্বাবুয়ের ওয়ানডে রেকর্ড…
গ্রায়েম ক্রেমার :
এখানে রেকর্ড ভালো হলেও অনেক সময় বাংলাদেশে সফর করা বেশ কঠিন। ঘরের মাঠে বাংলাদেশ দুর্দান্ত। আমি মনে করি আমাদের দলটি অভিজ্ঞ এবং তারুণ্যের মিশেলে গড়া একটি দল। অনেকেই এখানে দীর্ঘদিন খেলেছে। আমরা বাংলাদেশের সামর্থ্য সম্পর্কে অবগত। শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে সিরিজ থেকে আমাদেরকে আত্মবিশ্বাস নিতে হবে।

প্রশ্ন : ব্রেন্ডন টেলর ও কাইল জারভিসকে দলে পাওয়া কতটুকু স্বস্তির?
গ্রায়েম ক্রেমার :
তাদের দলে পাওয়া অসাধারণ। ব্রেন্ডন টেলর যখন চলে গেল দল তখন মিডল অর্ডারে বড় অস্ত্র হারায়। তাকে ফিরে পাওয়া সত্যিই বড় কিছু। আমাদের বোলিং অ্যাটাকের নেতৃত্বে থাকবে জারভিস। তার এখন যে অভিজ্ঞতা সেটা কখনোই আমাদের ছিল না।

প্রশ্ন : আর হ্যামিলটন মাসাকাদজা। এখানে তার খেলার অভিজ্ঞতা তো অনেক?
গ্রায়েম ক্রেমার :
আমরা তার দিকে তাকিয়ে থাকব। আশা করছি আমাদেকে উড়ন্ত সূচনা এনে দিবে। তার এখানে রেকর্ড বেশ ভালো। রান করার চাপ থাকবে তার উপর। আশা করছি ভালো কিছু উপহার দিতে পারবে ও।



রাইজিংবিডি/ঢাকা/১৩ জানুয়ারি ২০১৮/ইয়াসিন/আমিনুল

Walton Laptop
 
     
Walton