ঢাকা, শুক্রবার, ৩০ অগ্রহায়ণ ১৪২৫, ১৪ ডিসেম্বর ২০১৮
Risingbd
সর্বশেষ:

ডি গিয়া যেন চীনের মহাপ্রাচীর!

আবু হোসেন পরাগ : রাইজিংবিডি ডট কম
 
     
প্রকাশ: ২০১৮-০২-২২ ১০:৩৯:২৪ এএম     ||     আপডেট: ২০১৮-০২-২২ ৩:২৬:২৫ পিএম
এভাবেই সেভিয়ার খেলোয়াড়দের বারবার হতাশ করেছেন ডেভিড গি গিয়া

ক্রীড়া ডেস্ক : ইউরোপিয়ান প্রতিযোগিতায় সবশেষ ঘরের মাঠে সেভিয়া গোলশূন্য থেকেছিল ২০০৫ সালে, উয়েফা কাপে এফএসভি মেইনজের বিপক্ষে। গত এক যুগে অনুভূতিটা ভুলেই গিয়েছিল তারা। ভুলে যাওয়া সেই অনুভূতিটা সেভিয়ার সমর্থকদের কাল আবার মনে করিয়ে দিলেন ডেভিড ডি গিয়া।

চাম্পিয়নস লিগের শেষ ষোলোর প্রথম লেগে বুধবার রাতে সেভিয়ার মাঠে গোলশূন্য ড্র করেছে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড। পুরো ম্যাচে আট-আটটি সেভ করেছেন ইউনাইটেডের গোলরক্ষক ডি গিয়া। যেটি ২০১১ সালের পর চ্যাম্পিয়নস লিগের ম্যাচে ইউনাইটেডের কোনো গোলরক্ষকের সর্বোচ্চ। সাত বছর আগে বার্সেলোনার বিপক্ষে সমানসংখ্যক সেভ করেছিলেন এডউইন ভ্যান ডার সার।



চার বছর পর কাল চ্যাম্পিয়নস লিগের নকআউট পর্বের ম্যাচ খেলতে নেমেছিল ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড। তবে ম্যাচের বেশিরভাগ সময় বল দখলে ছিল সেভিয়ার। আধিপত্যও ছিল তাদেররই। কিন্তু কাঙ্ক্ষিত গোলটা তাদের পাওয়া হয়নি। কীভাবে পাবে? ইউনাইটেডের গোলপোস্টের সামনে যে ‘চীনের মহাপ্রাচীর’ হয়ে দাঁড়িয়েছিলেন ডি গিয়া!

প্রথমার্ধের একেবারে শেষ মিনিটে স্প্যানিশ এই গোলরক্ষকের দুটি সেভ তো চোখে লেগে থাকার মতো। বক্সের ভেতরে এক সতীর্থের ওভারহেড কিকে হেড করেছিলেন স্টিভেন এন’জঞ্জি। তার সেই হেড লাফিয়ে উঠে এক হাতে ক্রসবারের ওপর দিয়ে পঠিয়ে দেন ডি গিয়া।



কয়েক সেকেন্ডের ব্যবধানে তার আরেকটি সেভকে তো বলতে হয় অতিমানবীয়। ডান দিক থেকে আসা ক্রসে লাফ দিয়ে হেড করেছিলেন ডি গিয়ার ঠিক সামনেই দাঁড়ানো লুইস মুরিয়েল। চোখের পলকে এটিও এক হাতে ক্রসবারের ওপর দিয়ে বাইরে পাঠিয়ে ইউনাইটেডের ত্রাতা ডি গিয়া।

হেড থেকে বল ডি গিয়ার হাতে লাগার মাঝের দূরত্ব ছিল মাত্র ৫ গজ, সময়ের ব্যবধান ০.১৮ সেকেন্ড, আর গতি ঘণ্টায় ৫৬.৮ কিলোমিটার!



দ্বিতীয়ার্ধেও দারুণ কিছু সেভ করে সেভিয়াকে গোলবঞ্চিত রাখেন ডি গিয়া। ইউনাইটেডের হয়ে সবচেয়ে সেরা সুযোগটা পেয়েছিলেন রোমেলু লুকাকু। কিন্তু প্রথমার্ধে তার ভলিটা চলে যায় পোস্টের বাইরে দিয়ে। শেষ দিকে বদলি হিসেবে নামা মার্কাস রাশফোর্ডও একটি সুযোগ পেয়েছিলেন। তিনিও শট মারেন পোস্টের বাইরে দিয়ে। শেষ পর্যন্ত গোলশূন্য ড্র নিয়েই মাঠ ছাড়তে হয় দুই দলকে।

স্পেনে খেলা শেষ সাত চ্যাম্পিয়নস লিগ ম্যাচে গোলশূন্য থাকল ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড। ইউরোপের সবচেয়ে মর্যাদাপূর্ণ এই প্রতিযোগিতায় সব মিলিয়ে ২২ ম্যাচ গোলশূন্য ড্র করল তারা। যেটি এসি মিলানের সঙ্গে যৌথ রেকর্ড। আগামী ১৩ মার্চ ওল্ড ট্র্যাফোর্ডে হবে ফিরতি লেগ।

শেষ ষোলোর প্রথম লেগের অন্য ম্যাচে ইতালিয়ান ক্লাব রোমার বিপক্ষে পিছিয়ে পড়েও ২-১ গোলে জিতেছে শাখতার দোনেৎস্ক। ১৩ মার্চ রোমার মাঠে হবে ফিরতি লেগ। 



রাইজিংবিডি/ঢাকা/২২ ফেব্রুয়ারি ২০১৮/পরাগ

Walton Laptop
 
     
Marcel
Walton AC