ঢাকা, শনিবার, ১ পৌষ ১৪২৫, ১৫ ডিসেম্বর ২০১৮
Risingbd
সর্বশেষ:

সেঞ্চুরি হাতছাড়া হওয়ায় হতাশ নন সাদমান

ইয়াসিন : রাইজিংবিডি ডট কম
 
     
প্রকাশ: ২০১৮-১১-৩০ ৬:৫৬:৩৫ পিএম     ||     আপডেট: ২০১৮-১২-০১ ৯:১৬:৫৬ এএম

ক্রীড়া প্রতিবেদক: মাত্র ২৪টি রান। তাহলেই হতো। ৭৬ রান করা সাদমান ইসলামের নামের পাশে জ্বলজ্বল করতো সেঞ্চুরি।

ইতিহাসের অক্ষয় কালিতে লিখা থাকতো বাংলাদেশের ৯৪তম টেস্ট ক্রিকেটারের নাম। অভিষেকে সেঞ্চুরি নেই বাংলাদেশের কোনো ক্রিকেটারের। সাদমান খুলতে পারতেন নতুন ক্লাব, রচনা করতে পারতেন নতুন ইতিহাসের। সেই সুযোগটি হয়নি। তবুও আক্ষেপ নেই। সাদামাটা সাদমানের আক্ষেপ ভিন্ন জায়গায়।

দলের পরিকল্পনা ছিল একজনের লম্বা ইনিংস খেলার। সাদমান সেই পথেই ছিলেন। শেষ করে আসতে পারেননি। ওখানেই তার আক্ষেপ। ক্যারিয়ারের প্রথম ইনিংসে তার ছিল আরও রানের ক্ষুধা। প্রথম দিনের খেলা শেষে দলের প্রতিনিধি হয়ে এসে সংবাদ সম্মেলনে এ কথা জানান বাঁহাতি ওপেনার।

বাকিটা শুনুন তার মুখ থেকেই,   

প্রশ্ন: আজই অভিষেক হলো আপনার। প্রথম ম্যাচ খেলার অভিজ্ঞতা কেমন হলো?
সাদমান ইসলাম: অবশ্যই ভালো লাগছে। সবারই স্বপ্ন থাকে জাতীয় দলে খেলার। অভিষেক টেস্ট আমার। আমি চেষ্টা করেছি আমার দলের জন্য সেরাটা দেওয়ার। হয়তো আমি পুরোটা দিতে পারিনি। যতটুকু হয়েছে....আশা করি পরবর্তীতে দলে জন্য যেন কিছু করতে পারি।
 


প্রশ্ন: মাঠে নামার আগে দল যে পরিকল্পনা করেছিল তা কি বাস্তবায়ন করতে পেরেছিলেন?
সাদমান ইসলাম: টস জেতার পর আমরা ব্যাটিংয়ের সিদ্ধান্ত নিয়েছি। আমাদের পরিকল্পনা ছিল বড় জুটি করার। হয়তো আমাদের একটা বড় জুটি হয়েছে, সাকিব ভাই আর রিয়াদ ভাইয়ের। হয়তো আগামীকাল হবে।ম্যাচ তো এখনও রয়ে গেছে বাকিটা। আগামীকাল আরও বড় জুটি হবে। আমাদের পরিকল্পনা ছিল সেটা সাকসেস হবে ইনশাআল্লাহ।

প্রশ্ন: আপনি ঘরোয়া ক্রিকেটে পারফর্ম করে এসেছে। ঘরোয়া ক্রিকেট ও আন্তর্জাতিক ক্রিকেটের মধ্যে ভিন্ন কি পেলেন?
সাদমান ইসলাম: আমি যেরকম ব্যাটিং করি সেভাবেই করেছি। আমি চিন্তা করেছি যে, বল আসবে...খেলব। আমি যেভাবে ঘরোয়া ক্রিকেটে খেলি ঠিক সেভাবে এখানে খেলেছি। আর কিছু আমি চিন্তা করিনি।

প্রশ্ন: সাকিব-সৌম্যর সাথে ব্যাটিং করেছে। কি কথা হচ্ছিল তাদের সাথে?
সাদমান ইসলাম: উনারা তো আমার থেকে অনেক অভিজ্ঞ। আমাকে সব সময় বলছিল যে, ‘‘তুমি যেভাবে ঘরোয়া ক্রিকেটে ব্যাটিং করো, তুমি যেগুলো পারো ওরকম ভাবেই খেল। এক্সট্রা কিছু করতে যেও না। তুমি সব সময় যেভাবে ন্যাচারাল শটস খেল ঠিক সেভাবেই তোমার খেলাটা খেল।’’ এতোটুকুই।

প্রশ্ন: আপনি প্রস্তুতি ম্যাচ খেলেছেন। সেই অভিজ্ঞতা কতোটুকু কাজে দিল?
সাদমান ইসলাম: প্রস্তুতি ম্যাচের অভিজ্ঞতা কাজে দিয়েছে। আমার ওদের বোলার সম্পর্কে জানা ছিল। আমি যেভাবে পরিকল্পনা করেছিলাম শেষ ম্যাচে (প্রস্তুতি ম্যাচে), ওই পরিকল্পনা এখানে কাজে লেগেছে।

প্রশ্ন: দিন শেষে বাংলাদেশের অবস্থা এখন কেমন?
সাদমান ইসলাম: বাংলাদেশের অবস্থা আজকে অনেক ভালো আছে। আমাদের আগামীকাল পুরোদিন বাকি আছে। চেষ্টা করবো আমাদের দলের যেই পরিকল্পনা সেটা বাস্তবায়ন করতে।

প্রশ্ন: সেঞ্চুরি মিস করলেন। কোনো হতাশা আছে?
সাদমান ইসলাম: এমন কোনো হতাশা নেই। একটু তো  সবারই থাকে। ডেব্যু ম্যাচে সেঞ্চুরির চাওয়া তো সবারই থাকে। ওরকম কোনো হতাশা নেই। দলের জন্য যতটুকু দেওয়ার দরকার ছিল আমি চেষ্টা করেছি সেরকম ব্যাটিং করার। হয়তো পুরোটা করতে পারিনি। যেরকম দরকার ছিল শেষ করতে পারিনি। আমার মনে হয় আরেকটু দিতে পারতাম দলকে।
 


প্রশ্ন: এখানে একেবারেই নতুন পরিবেশে আপনি। সংবাদ সম্মেলনও নতুন। কেমন লাগছে?
সাদমান ইসলাম: একটু তো নার্ভাস থাকবোই। কিন্তু না ঠিক আছে! কথা তো বলতেই হবে।

প্রশ্ন: আপনার আউটের বল নিয়ে ব্যাখ্যা করবেন?
সাদমান ইসলাম: আমি একটু লাইন মিস করেছি। যেরকম টার্ণ করার কথা ছিল ওরকম টার্ণ করেনি। হয়তো এ কারণে মিস করে ফেলেছি।

প্রশ্ন: প্রথম ইনিংসে কতো রান হলে নিরাপদ?
সাদমান ইসলাম: এরকম কোনো আমরা পরিকল্পনা রাখি না যে রান করতো হলে নিরাপদ। আমাদের ব্যাটসম্যানরা যতটুকু লম্বা করে দেওয়া যায় সেটা আমাদের পরিকল্পনা।

 

রাইজিংবিডি/ঢাকা/৩০ নভেম্বর ২০১৮/ইয়াসিন

Walton Laptop
 
     
Marcel
Walton AC