ঢাকা, রবিবার, ২ পৌষ ১৪২৫, ১৬ ডিসেম্বর ২০১৮
Risingbd
সর্বশেষ:

‘ফ্রিজে জায়গার অভাব নেই, ঘরও ভর্তি ওয়ালটন পণ্যে’

আজিজুর রহমান : রাইজিংবিডি ডট কম
 
     
প্রকাশ: ২০১৮-০১-০৭ ৭:১৯:৪৫ পিএম     ||     আপডেট: ২০১৮-০১-০৭ ৭:১৯:৪৫ পিএম
ওয়ালটনের লাখ টাকার ক্যাশ ভাউচারের মেসেজ দেখাচ্ছেন নেওয়াজ আহমেদ রাকিব

নিজস্ব প্রতিবেদক : প্রতিবেশীর ফ্রিজে মাছ রাখতে গিয়ে তিক্ত অভিজ্ঞতার সম্মুখীন হতে হয় তাকে। নিজের বাসায় যদিও ফ্রিজ আছে, তবে সেটি আয়তনে ছোট। তখনই সিদ্ধান্ত নেন ওয়ালটন থেকে বড় আয়তনের ফ্রিজ কেনার। কী সৌভাগ্য তার! সেই ফ্রিজ কিনে পেয়েছেন লাখ টাকার ক্যাশ ভাউচার। ফলে ফ্রিজসহ অন্যান্য ইলেকট্রনিক্স পণ্যে উপচে পড়ছে তার ঘর।

ওয়ালটনের ডিজিটাল রেজিস্ট্রেশন ক্যাম্পেইনে লাখ টাকার ভাউচার পাওয়া এই ক্রেতার নাম নেওয়াজ আহমেদ রাকিব। বাড়ি কিশোরগঞ্জের করিমগঞ্জ থানার হাইদনখালী গ্রামে। বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি)-এর সিপাহি রাকিবের পোস্টিং পঞ্চগড়ে।

আহমেদ রাকিব বলেন, ‘কয়েক দিন আগে ছুটিতে গ্রামের বাড়ি আসি। এ সময় আমার পছন্দের বিভিন্ন ধরনের প্রায় ৭ কেজি মাছ কিনি। আমাদের বাসার ফ্রিজটি ছোট থাকায় প্রতিবেশীর ফ্রিজে সেই মাছ রাখার চেষ্টা করি। কিন্তু মাছ বেশি হওয়ায় প্রতিবেশী তার ফ্রিজে রাখতে দিতে চান না। এরপরই তাৎক্ষণিকভাবে ফ্রিজ কেনার সিদ্ধান্ত নিই।’

রাকিব জানান, তার বাসার আগের ফ্রিজটিও ওয়ালটনের। তাছাড়া, ওয়ালটনের তৈরি অন্যান্য পণ্য ব্যবহার করে ভালো সার্ভিস পেয়েছেন। যে কারণে নতুন ফ্রিজ কেনার জন্য ব্র্যান্ড নিয়ে দ্বিতীয় চিন্তা করেননি।

তিনি বলেন, ‘ওয়ালটনের জিনিসগুলো ভালো। আমি ২০১১ সালে প্রথম ওয়ালটনের একটি মোবাইল ফোন কিনি। মোবাইলটি এখনো ব্যবহার করছি। এছাড়া, আমাদের বাসায় ওয়ালটনের ফ্রিজ, টিভি, রাইসকুকার থেকে শুরু আয়রন মেশিন রয়েছে। প্রত্যেকটির সেবার মান ভালো। এজন্য আরেকটি ওয়ালটন ফ্রিজ কিনলাম।’

রাকিব জানান, পরিকল্পনা অনুযায়ী গত ২৩ ডিসেম্বর তিনি করিমগঞ্জ বাজারে ওয়ালটনের শোরুম ইশা টেলিকমে যান। সেখান থেকে দেখে-শুনে ২৮ হাজার টাকা দিয়ে বড় আয়তনের একটি ফ্রিজ কেনেন। ফ্রিজ কেনার সময় শোরুমের ম্যানেজারের কাছ থেকে ডিজিটাল ক্যাম্পেইন সম্পর্কে জানতে পারেন। ম্যানেজারই তার মোবাইল নম্বর দিয়ে রেজিস্ট্রেশন করে দেন।

নেওয়াজ আহমেদ রাকিবের হাতে লাখ টাকার ক্যাশ ভাউচার ও অন্যান্য পণ্য তুলে দেওয়া হচ্ছে

রাতেই রাকিবের নাম্বারে ক্যাশ ভাউচারের মেসেজ আসে। যেটা দেখে তিনি বেশ অবাক হন। বিষয়টি ভুয়া না তো-এ শঙ্কাও জাগে তার মনে। তবে কিছুক্ষণের মধ্যে শোরুম থেকেও ফোন দিয়ে তাকে বিষয়টি জানানো হয়। তখন তার আর অবিশ্বাসের কোনো কারণ থাকে না।

ক্যাশ ভাউচারের অনুভূতি জানিয়ে তিনি বলেন, ‘এ ধরনের পুরস্কার অনেক বড় পাওয়া। ২৮ হাজার টাকার পণ্য কিনলে কোনো প্রতিষ্ঠান ১ লাখ টাকার পুরস্কার দেয় বা দিতে পারে, আগে এমন ধারণা ছিল না। আমি খুবই খুশি। এটি আমার একার জন্য খুশির বিষয় না। আমার বাবা-মা, ভাই-বোন, আত্মীয়-স্বজন, এমনকি আমার অফিসের বসও খুশি। এখন আমার বাড়িতে ফ্রিজে জায়গার অভাব নাই, ঘরও ভরে গেছে ওয়ালটন পণ্যে।’

লাখ টাকার ক্যাশ ভাউচার দিয়ে কি কিনলেন জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘আরো একটি ফ্রিজ, টেলিভিশন, ওয়াশিং মেশিন, ব্লেন্ডার, রাইসকুকার, পেসারকুকার, রুটি মেকারসহ বেশকিছু পণ্য কিনেছি।’

আপনার বাসায় তো ২টি ফ্রিজ হলো। এখন আরো একটি কিনেছেন। এটি কি করবেন জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘এটি আমার বোনকে দেব। ৪ বছর আগে তাকে একটি ফ্রিজ দিয়েছিলাম। সেটি পুরাতন হয়ে গেছে। অন্য পণ্যগুলোর কিছু নিজেদের জন্য রাখবো। কিছু ভাই-বোনদের মধ্যে বন্টন করা হবে।’

এদিকে ইশা টেলিকমের সত্ত্বাধিকারী রকিবুর রহমান শাহাজাদা বলেন, ওয়ালটনকে প্রথমেই ধন্যবাদ জানাই এমন উদ্যেগের জন্য। আমার শোরুম থেকে একজন ক্রেতা লাখ টাকার ক্যাশ ভাউচার পাওয়ার পর শোরুমে ভিড় যেন কমছে না। ভাগ্যবান ক্রেতাকে ফুলের মালা পরিয়ে ব্যান্ড পার্টি নিয়ে পুরো এলাকা ঘুরিয়েছি। এতে এলাকাতে ব্যাপক সাড়া পড়েছে। আমার শোরুমে বিক্রি আগের চেয়ে অনেক বেড়েছে। আগে এক মাসে যা বিক্রি হতো, গত এক সপ্তাহে তার চেয়ে বেশি বিক্রি হয়েছে।’

জানা গেছে, ক্রেতাদের দোরগোড়ায় অনলাইনে দ্রুত ও সর্বোত্তম বিক্রয়োত্তর সেবা দিতে ডিজিটাল রেজিস্ট্রেশন কার্যক্রম চালু করেছে ওয়ালটন। এই কার্যক্রমে ক্রেতাদের অংশগ্রহণকে উদ্বুদ্ধ করতে প্রতিদিন দেওয়া হচ্ছে নিশ্চিত ক্যাশ ভাউচার। ওয়ালটন প্লাজা ও পরিবেশক শোরুম থেকে ১০ হাজার টাকা বা তার বেশি মূল্যের পণ্য কিনে ডিজিটাল রেজিস্ট্রেশন করে সর্বনিম্ন ২০০ থেকে সর্বোচ্চ ১ লাখ টাকার ক্যাশ ভাউচার পাচ্ছেন ক্রেতারা।

ক্যাশ ভাউচার পাওয়ার এই অফারের মেয়াদ ছিল গত ৩১ ডিসেম্বর পর্যন্ত। তবে ক্রেতাদের কাছ থেকে ব্যাপক সাড়া পাওয়ায় এ অফার আরো দুই মাস বাড়িয়েছে ওয়ালটন কর্তৃপক্ষ।



রাইজিংবিডি/ঢাকা/৭ জানুয়ারি ২০১৮/অগাস্টিন সুজন/সাইফ

Walton Laptop
 
     
Marcel
Walton AC