ঢাকা, সোমবার, ১১ আষাঢ় ১৪২৫, ২৫ জুন ২০১৮
Risingbd
সর্বশেষ:

ওয়ালটন ফ্রিজার কিনে ফ্রি ফ্রিজ পেয়ে উচ্ছ্বসিত শরিয়তপুরের ছাত্তার

এম. মাহফুজুর রহমান : রাইজিংবিডি ডট কম
 
   
প্রকাশ: ২০১৮-০৪-২৮ ৩:০৭:৫৭ পিএম     ||     আপডেট: ২০১৮-০৪-২৮ ৩:৪৪:৩৪ পিএম
আবদুল ছাত্তার পালোয়ানকে ফুলের মালা পড়িয়ে তার হাতে ফ্রি পাওয়া ফ্রিজটি তুলে দেয় হচ্ছে

নিজস্ব প্রতিবেদক : আমি মাংসের ব্যবসা করি। শরিয়তপুরের নড়িয়া বাজারে আমার দোকান। মাংস সংরক্ষণের জন্য ওয়ালটনের একটা ফ্রিজার কিনেছি আর এতে আরেকটা ফ্রিজ ফ্রি পেয়েছি। বাজারের সবাই খুবই আনন্দিত। আমার পরিবারও মহাখুশি। ধুমধাম করে সবাই মিলে ফ্রিজটি ঘরে তুলেছি। আমার নিজেরও খুব ভালো লাগছে। আমি চাই সবাই যেন ওয়ালটনের পণ্য ব্যবহার করে।’ এভাবেই রাইজিংবিডির কাছে প্রতিক্রিয়া জানাচ্ছিলেন শরিয়তপুরের আবদুল ছাত্তার পালোয়ান।

গত ২৬ এপ্রিল শরিয়তপুরের নড়িয়া বাজারের সিয়াম ইলেকট্রনিক্স থেকে ২৯,৭৩০ টাকায় ফ্রিজারটি কেনেন ছাত্তার। এরপর ডিজিটাল রেজিস্ট্রেশন করে ১৭ হাজার ৯৯০ টাকা দামের আট সিএফটি আয়তনের একটি ফ্রিজ ফ্রি পান তিনি। ছাত্তারের ছয় সদস্যের পরিবারে এখন আনন্দের বন্যা। ফ্রি পাওয়া ফ্রিজটি নিজেরা ব্যবহার করবেন। এই খুশিতে নড়িয়া বাজারে ব্যবসায়ী ও ক্রেতাদেরকে মিষ্টি খাইয়েছেন ছাত্তার।

‘আমি আগে কখনো ওয়ালটনের পণ্য কিনিনি। এবারই প্রথম ওয়ালটনের ফ্রিজার কিনলাম। পরিচিত সবাই বলছিলেন ওয়ালটনের টিভি-ফ্রি ও অন্যান্য জিনিস ভালো সার্ভিস দেয়। আবার দামেও কম। ওয়ালটন থেকে প্রথম ফ্রিজার কিনেই আরেকটি ফ্রিজ ফ্রি পেয়ে আমার দারুণ লাগছে। আমি সিদ্ধান্ত নিয়েছি খুব শিগগিরই ওয়ালটন থেকে একটা টিভি কিনবো,’ বলছিলেন আবদুল ছাত্তার পালোয়ান।

তিনি জানান, তার ফ্রি ফ্রিজ পাওয়ার সংবাদে এলাকায় এক ধরণের চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে। অনেকেই ওয়ালটন পণ্য কিনতে শোরুমে যাচ্ছেন। আবার যারা পরে কিনবেন, তারাও ওয়ালটন থেকেই কিনবেন বলে ঠিক করে রেখেছেন।

রাইজিংবিডিকে তিনি বলেন, ‘ওয়ালটনকে অনেক ধন্যবাদ। আমি আশা করি ওয়ালটন পণ্য মানুষ আরো বেশি বেশি কিনবে। কারণ, ওয়ালটন বিশেষ সুবিধা দেয়।’

সিয়াম ইলেকট্রনিক্সে কর্মরত বিক্রয়কর্মীরা জানান, এই শোরুম থেকে এর আগেও আরেকজন ক্রেতা ২০ হাজার ৯৯০ টাকা দিয়ে একটি এলইডি টিভি কিনে আট সিএফটির একটি ফ্রিজ ফ্রি পেয়েছেন।

শোরুমটির ব্যবস্থাপক সুমন দাস বলেন, ‘ওয়ালটন ক্যাম্পেইন শুরুর পর থেকেই এখানে মানুষের মাঝে সাড়া পড়েছে। যখন এক এলাকায় একজন কিছু একটা ফ্রি পায়, তখন সে সংবাদটি দ্রুত অন্যদের মাঝে ছড়িয়ে পড়ে। আমাদের এখান থেকে দুজন ক্রেতা দুটি ফ্রিজ ফ্রি পাওয়ায় এলাকার মানুষদের মাঝে বিষয়টি বেশ প্রচার পেয়েছে। যার ফলে গত মাসের তুলনায় অনেক গুণ বিক্রি বেড়ে গেছে।’

এদিকে, ওয়ালটনের বরিশাল জোনের এরিয়া ম্যানেজার মো. আসাদুজ্জামান জানান, ডিজিটাল ক্যাম্পেইনে ক্রেতাদের কাছ থেকে তারা অভূতপূর্ব সাড়া পাচ্ছেন। ক্যাম্পেইন শুরুর পর তার এরিয়ায় টিভি-ফ্রিজসহ সব ধরণের পণ্য বিক্রি অনেক গুণ বেড়েছে।

উল্লেখ্য, বিক্রয়োত্তর সেবা কার্যক্রম অনলাইনের আওতায় আনতে গত ১ এপ্রিল থেকে দেশব্যাপী আবারো ডিজিটাল ক্যাম্পেইন শুরু করেছে ওয়ালটন। ক্যাম্পেইনের আওতায় ক্রেতারা ওয়ালটনের ফ্রিজ, টিভি কিংবা এসি কিনে তা রেজিস্ট্রেশন করলেই পেতে পারেন আমেরিকা কিংবা রাশিয়া ভ্রমণের সুযোগ বা ওয়ালটনের আরেকটি ফ্রিজ, টিভি কিংবা এসি সম্পূর্ণ ফ্রি। তবে এসব সুযোগ না পেলেও ক্রেতার জন্য রয়েছে সর্বোচ্চ ২ হাজার টাকা পর্যন্ত নিশ্চিত নগদ ছাড়।

ডিজিটাল ক্যাম্পেইনের আওতায় গ্রীষ্মকালের জন্য ওয়ালটন ফ্রিজ ও এসিতে এবং বিশ্বকাপ ফুটবল উপলক্ষে ওয়ালটন টিভিতে এসব সুবিধা থাকবে আগামী তিন মাস অর্থাৎ ৩০ জুন, ২০১৮ পর্যন্ত।

 

 

 

 

রাইজিংবিডি/ঢাকা/২৮ এপ্রিল ২০১৮/অগাস্টিন সুজন/শাহনেওয়াজ

Walton Laptop
 
   
Walton AC