ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১ কার্তিক ১৪২৬, ১৭ অক্টোবর ২০১৯
Risingbd
সর্বশেষ:

অর্থ আত্মসাত : নূরে মদিনার অধ্যক্ষ কারাগারে

মামুন খান : রাইজিংবিডি ডট কম
     
প্রকাশ: ২০১৯-০৮-২৭ ৯:১৪:২৪ পিএম     ||     আপডেট: ২০১৯-০৮-২৭ ৯:১৪:২৪ পিএম

নিজস্ব প্রতিবেদক : ১১ কোটি টাকা আত্মসাতের মামলায় নূরে মদিনা ক্যাডেট একাডেমির অধ্যক্ষ মুফতি রাগিব আহসানের জামিনের আবেদন নামঞ্জুর করে তাকে কারাগারে পাঠিয়েছেন আদালত।

মঙ্গলবার ঢাকার অতিরিক্ত মুখ্য মহানগর হাকিম আমিনুল হকের আদালতে হাজির হয়ে আসামি রাগিব আহসান হাইকোর্টের নির্দেশ অনুযায়ী আত্মসমর্পণ করে জামিনের আবেদন করেন। শুনানি শেষে আদালত জামিন নাকচ করে তাকে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন।

এদিন আসামির পক্ষে জামিন শুনানি করেন ঢাকা আইনজীবী সমিতির সভাপতি অ্যাডভোটে গাজী শাহ আলম ও সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট আছাদুজ্জামান খান রচিসহ কয়েকজন আইনজীবী। জামিনের বিরোধিতা করেন বাদীপক্ষের আইনজীবী জাহানার আক্তার।

আসামি মামলার বিষয়ে অবগত হয়ে গত ৩০ জুলাই হাইকোর্টে আগাম জামিনের আবেদন করেন। হাইকোর্ট বিভাগ নিম্ন আদালতে হাজির হওয়ার শর্তে আসামিকে চার সপ্তাহের জামিন দেন।

অর্থ আত্মসাতের অভিযোগে গত ২১ মে শেখ হুমায়ুন কবিরের পক্ষে আবতাব হোসাইন বাদী হয়ে আসামির বিরুদ্ধে মামলা করেন।

জানা যায়, শেখ হুমায়ুন কবিরের সঙ্গে মুফতি রাগিব আহসানের দীর্ঘ দিনের সুসম্পর্ক ছিল। আসামি তার প্রয়োজনের কথা বলে বিভিন্ন সময় তার কাছ থেকে পরিশোধ করার শর্তে টাকা নেন। ওই টাকা নেয়ার সময় তাকে বিভিন্ন তারিখে একাধিক চেক দেন। ওই চেকগুলোর মধ্যে দুটি চেকে বাদী আসামির কাছ থেকে পাওনা হন ১১ কোটি ২০ লাখ টাকা। পাওনা টাকা দিতে আসামি কালক্ষেপণ করতে থাকেন। আসামির কথায় বিশ্বাস করে ১০ কোটি টাকার একটি চেক নগদায়নের জন্য ব্যাংকে উপস্থাপন সঠিক সময়ে করতে পারেননি। অপর চেকটি ব্যাংকে উপস্থাপন করলে তা ডিজঅনার হয়। এ বিষয়ে হুমায়ুন কবীর আইনজীবীর মাধ্যমে আসামিকে লিগ্যাল নোটিশ পাঠান। পরবর্তীতে আসামিপক্ষ মীমাংসার প্রস্তাব দেয় এবং আপোশের জন্য বসার পর ৫/৭ জন সন্ত্রাসী প্রকৃতির লোক হুমায়ুন কবিরের ওপর ক্ষিপ্ত হয়। এ সময় সন্ত্রাসীরা তাকে গালিগালাজ করেন এবং আসামি পাওনা টাকা পরিশোধ করবেন না বলে জানান। টাকা দাবি করলে পরিবারের সদস্যদের মেরে ফেলার হুমকি দেন।


রাইজিংবিডি/ঢাকা/২৭ আগস্ট ২০১৯/মামুন খান/রফিক

ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন