ঢাকা, সোমবার, ২৩ চৈত্র ১৪২৬, ০৬ এপ্রিল ২০২০
Risingbd
সর্বশেষ:

অ্যাপল এআইয়ের ভুলে কলেজ ছাত্র গ্রেপ্তার!

মোখলেছুর রহমান : রাইজিংবিডি ডট কম
     
প্রকাশ: ২০১৯-০৪-২৫ ৬:২৩:২৪ পিএম     ||     আপডেট: ২০১৯-০৪-২৬ ১১:৪৬:১৯ এএম
প্রতীকী ছবি

মোখলেছুর রহমান : অ্যাপলের বিরুদ্ধে ১ বিলিয়ন পাউন্ডের ক্ষতিপূরণের মামলা দায়ের করেছেন উসমান বাহ নামের আমেরিকান এক কলেজ ছাত্র। তার অভিযোগ, অ্যাপল এআইয়ের (কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা প্রযুক্তির) ভুলের কারণে গ্রেপ্তার হতে হয়েছে তাকে।

১৮ বছর বয়সি উসমানের বিরুদ্ধে যুক্তরাষ্ট্রের চারটি প্রদেশের অ্যাপল স্টোর থেকে চুরি করার অভিযোগে অভিযুক্ত করা হয় এবং গত শনিবার নিউইয়র্কের তার নিজ বাড়ি থেকে গ্রেপ্তার করা হয়।

তিনি দাবি করেন, অ্যাপলের ফেস রিকোগনেশন (চেহারা শনাক্ত) প্রযুক্তির ভুলেই চুরির ভিডিও ফুটেজে তার নাম যুক্ত হয়েছে। যদিও অ্যাপল বিবিসিকে জানিয়েছে, কোম্পানিটি তাদের স্টোরে ফেস রিকোগনেশন প্রযুক্তি ব্যবহার করে না।

উসমান দাবি করেন, গোয়েন্দারা অপরাধ সংঘটনের সময়কার যে সিসিটিভি ফুটেজ পর্যালোচনা করেছেন তাতে যদিও চোরকে দেখতে অনেকটা তার মতোই লাগে কিন্তু তিনি সে সময় সেই স্থানে উপস্থিত ছিলেন-ই না।

মূলত তিনি অনেক আগে তার ড্রাইভিং লাইসেন্সটি হারিয়ে ফেলেছিলেন এবং তিনি বিশ্বাস করেন যে, চোর চুরি করার সময় তার সেই ড্রাইভিং লাইসেন্সটি ব্যবহার করেছে যার ফলে অ্যাপল এআই ভুলক্রমে তাকেই চোর হিসেবে শনাক্ত করেছে।

নিউইয়র্ক পুলিশ বিভাগের একজন গোয়েন্দা কর্মকর্তা উসমানকে জানায় যে, চোর সম্ভবত চুরির সময় তার ড্রাইভিং লাইসেন্স ব্যবহার করেছিলেন। আর সে কারণেই তার বিরুদ্ধে নিউ ইয়র্ক, ডেলাওয়্যার, নিউ জার্সি এবং ম্যাসাচুসেটস- এই চারটি প্রদেশের অ্যাপল স্টোরে চুরির অভিযোগ আনা হয়েছে।

অ্যাপলের ফেস রিকোগনেশন প্রযুক্তিকে নিয়ে এ ধরনের সমালোচনার ঘটনা এটিই প্রথম নয়। ২০১৭ সালে আইফোন টেন-এ এই ফিচারটি প্রথমবার ব্যবহৃত হয় আর তখনই এই ফিচার ব্যবহার করার কারণে ব্যবহারকারীদের বায়োমেট্রিক তথ্য হ্যাক হয়ে যেতে পারে মর্মে তুমুল আলোড়ন সৃষ্টি হয়। তবে অ্যাপলের বিরুদ্ধে এ ধরনের প্রথম মামলার ঘটনা এটিই প্রথম।

তথ্যসূত্র : বিবিসি



রাইজিংবিডি/ঢাকা/২৫ এপ্রিল ২০১৯/ফিরোজ