ঢাকা, সোমবার, ৫ কার্তিক ১৪২৬, ২১ অক্টোবর ২০১৯
Risingbd
সর্বশেষ:

আফগানিস্তানের রোমাঞ্চ বনাম বাংলাদেশের অভিজ্ঞতা

ইয়াসিন : রাইজিংবিডি ডট কম
     
প্রকাশ: ২০১৯-০৯-০৭ ৯:১৬:১৩ পিএম     ||     আপডেট: ২০১৯-০৯-০৮ ৯:১৬:০৪ এএম

চট্টগ্রাম থেকে ক্রীড়া প্রতিবেদক : ক্রিকেট খেলটাই এমন-ই, যেদিন যার দিন সেদিন জয় হবে তার। প্রতিপক্ষ কতোটা শক্তিশালী কিংবা প্রতিপক্ষ কতোটা দুর্বল, ভালো দিনে সেই মাপজোক করার সময়ও থাকে না।

এজন্যই তো বাংলাদেশ দুর্বল হয়ে হারিয়ে দেয় ইংল্যান্ড, অস্ট্রেলিয়াকে। চোখ রাঙানি দেয় পাকিস্তানকে। সাদা বলের ক্রিকেটে বাংলাদেশ এখন ক্রিকেট বিশ্বের অন্যতম পরাশক্তি। লাল বলের ক্রিকেটে নিজেদের মেলে ধরতে শুরু করেছে মাত্র। উন্নতির সূচকটা ঊর্ধ্বমুখী।

ঠিক সেই সময়ে বাংলাদেশের সামনে আফগানিস্তানের রোমাঞ্চ। নিজেদের তৃতীয় টেস্ট খেলতে নেমে আফগানিস্তান বাংলাদেশকে শেখাচ্ছে টেস্ট কিভাবে খেলতে হয়। মিরাজ তো বলেই দিয়েছেন,‘ওরা কিন্তু  মাত্র টেস্ট ক্রিকেট শুরু করেছে। ওদের মধ্যে রোমাঞ্চটা আরও বেশি কাজ করবে। এ টেস্ট জিতে ওরা বিশ্বকে দেখিয়ে দিতে চাইবে।’

মাঠের ক্রিকেটে শেষ তিনদিন আফগানিস্তান কতোটা সিরিয়াস ছিল তা বোঝা গেছে মাঠের পারফরম্যান্সে। এক মুহূর্তের জন্য প্রতিপক্ষকে কোনো সুযোগ দেয়নি। বাংলাদেশ ব্যাটিং-বোলিংয়ে যে সাফল্য পেয়েছে সেটা আদায় করে নিয়েছে।

আফগানিস্তানের এমন পারফরম্যান্সের বিপরীতে নিজেদের ১৯ বছরের টেস্ট অভিজ্ঞতাকে কিভাবে দেখছেন মিরাজ। আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে তিন বছর কাটনো মিরাজ বেশিকিছু নিয়ে ঘাঁটাঘাটি করতে চাইলেন না। স্রেফ খারাপ সময় যাচ্ছে বাংলাদেশের, এমনটাই মত তার,‘ক্রিকেটে খারাপ সময়, ভালো সময় যায়। আমরা কিন্তু অস্ট্রেলিয়া, ইংল্যান্ডের সঙ্গে জিতেছি। এই কয়েকটা দিন আমাদের খারাপ সময় গেছে, তাই আমরা পিছিয়ে গেছি। এমন না যে আমরা টেস্ট ক্রিকেটে জিতিইনি।’

চট্টগ্রাম টেস্টের নাটাই এখন আফগানিস্তানের হাতে। স্কোরবোর্ডে তাদের লিড ৩৭৪ রানের। বাংলাদেশের সামনে অসম্ভবকে সম্ভব করার চ্যালেঞ্জ। পারবে কি বাংলাদেশ? দলের প্রতিনিধি হয়ে সংবাদ সম্মেলনে এসে মিরাজ বলেন,‘আমরা চেষ্টা করব। আমাদের হাতে দুই দিন সময় আছে। প্রথম কাজ হল দ্রুত ওদের বাকি দুটি উইকেট নেওয়া। এরপর দ্বিতীয় ইনিংসে ব্যাটসম্যানদের দায়িত্বটা ঠিকভাবে বুঝে সেটা পালন করা।’

‘ক্রিকেট খেলায় সবই হতে পারে। জেতা ম্যাচও হেরে যেতে পারে কিংবা হেরে যাওয়া ম্যাচ সহজেই জিততে পারে। এমন অনেক ঘটনাই আছে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে।’- প্রায় হাত থেকে ফসকে যাওয়া ম্যাচে এমন মিরাকেল কিছুর প্রত্যাশা করছেন মিরাজ।

প্রথম ইনিংসের লিডসহ প্রায় পৌনে চারশ রান তুলেছে আফগানিস্তান। হাতে আছে আরও দুই উইকেট। এমন লক্ষ্য তাড়া করে জয়ের চিন্তা করা আকাশচুম্বি চাওয়া। তবুও চেষ্টা করে যেতে চান মিরাজ,‘আমাদের জন্য এই রান তাড়া করাটা সত্যিই কঠিন। তারপরও আমাদের চেষ্টা করতে তো বাধা নেই। আমাদের সুযোগ নিতে হবে। দুইদিন সময় আছে, চেষ্টাটা আমরা করতে চাই। তারপর হেরে যাই কিংবা জিতে যাই সেটা পরের ব্যাপার। আমাদের হাতে যেটা আছে সেটা হচ্ছে শেষ পর্যন্ত চেষ্টা করা।’


রাইজিংবিডি/চট্টগ্রাম/৭ সেপ্টেম্বর ২০১৯/ইয়াসিন/আমিনুল

ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন