ঢাকা, শুক্রবার, ৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৬, ২২ নভেম্বর ২০১৯
Risingbd
সর্বশেষ:

আবরার হত্যা: আন্দোলন স্থগিত, বুধবার আবার শুরু

নিজস্ব প্রতিবেদক : রাইজিংবিডি ডট কম
     
প্রকাশ: ২০১৯-১০-০৮ ১০:৩৬:৩৩ পিএম     ||     আপডেট: ২০১৯-১০-০৯ ৮:৪৮:১৮ এএম

বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুয়েট) শিক্ষার্থী আবরার ফাহাদকে হত্যার বিচার দাবিতে চলমান আন্দোলন আজকের (মঙ্গলবার রাত) মতো স্থগিত করেছেন শিক্ষার্থীরা।

বুধবার সকাল থেকে আবার আন্দোলন শুরু হবে। একইভাবে  পূর্বঘোষিত ক্লাস পরীক্ষা বর্জন কর্মসূচি অব্যাহত থাকবে।

আন্দোলন স্থগিত করে বুয়েট উপাচার্যের (ভিসি) বাসভবনসহ ক্যাম্পাসের বিভিন্ন জায়গায় লাগানো সব তালা খুলে দিয়েছেন আন্দোলনকারীরা।

শিক্ষার্থীরা জানান, সকাল ১১টায় অ্যালামনাই এসোসিয়েশন এর পক্ষ থেকে সমাবেশ ও সাড়ে ১২ টায় শিক্ষক সমিত ও অ্যালামনাই এসোসিয়েশন এর পক্ষ থেকে সমবেদনা প্রকাশের কথা রয়েছে।

আবরার ফাহাদকে পিটিয়ে হত্যার ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগে আরো বুয়েটের তিন ছাত্রকে গ্রেপ্তার করেছে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের (ডিএমপি) গোয়েন্দা ও অপরাধ তথ্য বিভাগ (ডিবি)। এর মধ্যে দুজন মামলার এজাহারভুক্ত আসামি। বাকি একজনকে সন্দেহভাজন হিসেবে আটক করা হয়।

মঙ্গলবার রাতে ডিএমপির মিডিয়া সেন্টার থেকে এ তথ্য জানিয়ে বলা হয়, শামসুল আরেফিন রাফাত, মনিরুজ্জামান মনির ও আকাশ হোসেনকে মঙ্গলবার সন্ধ্যায় গ্রেপ্তার করা হয়। শামসুলকে সন্দেহভাজন হিসেবে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

প্রসঙ্গত, রোববার রাতে বুয়েটের শেরেবাংলা হলের দ্বিতীয় তলার সিঁড়ি থেকে অচেতন অবস্থায় ফাহাদকে উদ্ধার করা হয়। ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে নিলে চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

ওই রাতে হলের ২০১১ নম্বর কক্ষে আবরারকে বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের কয়েকজন পিটিয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে। ময়নাতদন্তকারী চিকিৎসক জানিয়েছেন, তার মরদেহে অসংখ্য আঘাতের চিহ্ন পাওয়া গেছে। আবরার বুয়েটের তড়িৎ ও ইলেকট্রনিক প্রকৌশল বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের (১৭তম ব্যাচ) শিক্ষার্থী ছিলেন।

এ ঘটনায় ১৯ জনকে আসামি করে সোমবার সন্ধ্যার পর চকবাজার থানায় একটি হত্যা মামলা করেন আবরারের বাবা বরকতুল্লাহ।


ঢাকা/ইয়ামিন/নূর/সাইফ

ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন