ঢাকা, বুধবার, ১ কার্তিক ১৪২৬, ১৬ অক্টোবর ২০১৯
Risingbd
সর্বশেষ:

ঈদেও চিকিৎসা ব্যাহত হবে না : সিলেট সিভিল সার্জন

আব্দুল্লাহ আল নোমান : রাইজিংবিডি ডট কম
     
প্রকাশ: ২০১৯-০৮-০৬ ১০:২৯:২৯ পিএম     ||     আপডেট: ২০১৯-০৮-০৬ ১০:২৯:২৯ পিএম

নিজস্ব প্রতিবেদক, সিলেট : ঈদের ছুটিতে ডেঙ্গু আক্রান্তদের চিকিৎসা সেবা ব্যাহত হবে না বলে জানিয়েছেন সিলেটের সিভিল সার্জন ডা. হিমাংশু লাল রায়। 

মঙ্গলবার বিকেলে তিনি রাইজিংবিডিকে বলেন, চিকিৎসা সেবা যাতে ব্যাহত না হয়, সেজন্য সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালসহ সবকটি হাসপাতাল প্রস্তুত থাকবে।

একই সঙ্গে পর্যাপ্ত ডেঙ্গু কিটও মজুত রয়েছে বলে জানান তিনি।

এদিকে, সিলেটে মিলেছে এডিস মশার অস্তিত্ব। ডেঙ্গুর ভাইরাস বহনকারী এ মশার লার্ভা মিলেছে নগরের দুটি এলাকায়। তবে এ নিয়ে জনসাধারণকে আতঙ্কিত না হতে বলেছেন হিমাংশু লাল।

তিনি বলেছেন, এডিস মশার বংশবৃদ্ধি বিপদজনক হওয়াতে এর উৎপত্তিস্থল ধ্বংস করতে হবে। এজন্য প্রয়োজন সচেতনতা।

সিভিল সার্জন বলেন, সিলেট নগরীর কয়েকটি এলাকা থেকে নমুনা সংগ্রহের পর সিভিল সার্জন কার্যালয়ের কীটতত্ব বিভাগে তা পরীক্ষা করা হয়। এতে দুটি এলাকায় এডিসের লার্ভার অস্তিত্ব পাওয়া যায়। তবে নতুন করে আরো কয়েকটি এলাকার নমুনা পরীক্ষা হবে।

তিনি জানান, নগরীর ২৬নং ওয়ার্ডের কেন্দ্রীয় বাস টার্মিনাল, ঝালোপাড়া ও তদসংলগ্ন এলাকা এবং চৌহাট্টায় শহীদ সামছুদ্দিন হাসপাতালের পাশে একটি নার্সারিতে এডিস মশার লার্ভার অস্তিত্ব মিলেছে।

তিনি উল্লেখ করেন, টার্মিনাল এলাকায় অসংখ্য গাড়ি গ্যারেজ এবং টায়ার-টিউবের ব্যবসা প্রতিষ্ঠান রয়েছে, যে কারণে পরিত্যক্ত টায়ার-টিউবে জমে থাকা পানিতে এডিস মশা বংশ বিস্তার করেছে। তবে ইতোমধ্যে সিটি কর্পোরেশন থেকে ব্যবসায়ীদের তা সরিয়ে দেয়ার নির্দেশনা দেয়া হয়েছে। একই সঙ্গে অভিযানও চলমান আছে।

তিনি জনসাধারণকে ডেঙ্গু নিয়ে আতঙ্কিত না হয়ে বাসা-বাড়ি পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন রাখার মাধ্যমে এডিস মশার আবাসস্থল ধ্বংস করতে সচেতনতা বাড়ানোর তাগিদ দেন।

সিভিল সার্জন অফিস জানায়, এখন পর্যন্ত সব মিলিয়ে সিলেট জেলায় ২২০ জন রোগী চিকিৎসা নিয়েছেন। এর মধ্যে ওসমানী হাসপাতালে ১৪৫ জন এবং বিভিন্ন বেসরকারি হাসপাতালে ৭৫ জন চিকিৎসা নিয়েছেন।


রাইজিংবিডি/সিলেট/০৬ আগস্ট ২০১৯/আব্দুল্লাহ আল নোমান/বকুল

ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন