ঢাকা, মঙ্গলবার, ৩০ আশ্বিন ১৪২৬, ১৫ অক্টোবর ২০১৯
Risingbd
সর্বশেষ:

‘এরশাদের কর্মকাণ্ড মাইলফলক হয়ে থাকবে’

মোহাম্মদ নঈমুদ্দীন : রাইজিংবিডি ডট কম
     
প্রকাশ: ২০১৯-০৮-০১ ৯:৩৪:৪৫ পিএম     ||     আপডেট: ২০১৯-০৮-০১ ৯:৩৪:৪৫ পিএম

জ্যেষ্ঠ প্রতিবদেক: জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান গোলাম মোহাম্মদ কাদের এমপি বলেছেন, উপজেলা পদ্ধতি, সর্বস্তরে বাংলা ভাষা চালু, ইসলামকে রাষ্ট্রধর্ম করা, শুক্রবারে ছুটি ঘোষণাসহ এরশাদের কর্মকাণ্ড মাইলফলক হয়ে থাকবে।

বৃহস্পতিবার বিকেলে আইডিইবি মিলনায়তনে জাতীয় পার্টি ঢাকা মহানগর (দক্ষিণ) আয়োজিত এরশাদের স্মরণসভায় তিনি একথা বলেন।

জিএম কাদের বলেন, ‘উনি যখন উপজেলা চালু করেন তখন অনেক প্রতিবাদ হয়েছিলো। কিন্তু এতদিনে অনেকে সেটা অনুধাবন করতে পারছেন। উপজেলা পদ্ধতি ভাল ছিল।’

তিনি বলেন, ‘তার অনেক কর্মকাণ্ড মাইলফলক হয়ে থাকবে। অনেক নেতা ছিলেন কেউ কিন্তু সর্বস্তরে বাংলা চালু করতে পারেননি। ওনার আগে পর্যন্ত কাগজে কলমে ছিলো রাষ্ট্রভাষা বাংলা। উনি আইনগতভাবে বাংলাকে প্রতিষ্ঠিত করেছেন। দেশের মানুষ ওনার কর্মকাণ্ডকে সমর্থন করেছে। যা তার জানাজায় লোক সমাগমের মাধ্যমে প্রমাণিত হয়েছে।’

জাপা চেয়ারম্যান দু:খ করে বলেন, ‘সংবিধানের একটি জিনিস আমরা কখনই প্রতিপালন করিনি। সেটি হচ্ছে সর্বস্তরে জনগণের ভোটে নির্বাচিত প্রতিনিধি দ্বারা শাসনকার্য পরিচালনা। হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ উপজেলা চালু করে সেটি করেছেন।’

তিনি বলেন, ‘আপনারা অনেকে বলেছেন জীবিত এরশাদের চেয়ে মৃত এরশাদ বেশি শক্তিশালী। আমরা এই শক্তি নিয়ে এগিয়ে যাবো। তার কর্মকাণ্ড আমাদের সামনে উদাহরণ হিসেবে তুলে ধরা হবে। আমার বিশ্বাস এটা মানুষ গ্রহণ করবে।’

প্রেসিডিয়াম সদস্য ও মহানগর দক্ষিণের সভাপতি সৈয়দ আবু হোসেন বাবলা এমপির সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত স্মরণসভায় দলের মহাসচিব মসিউর রহমান রাঙ্গা এমপি, প্রেসিডিয়াম সদস্য সহিদুর রহমান টেপা, এসএম ফয়সল চিশতী, অ্যাডভোকেট রেজাউল ইসলাম ভুইয়া, ভাইস চেয়ারম্যান ইকবাল হোসেন রাজু, ঢাকা মহানগর দক্ষিণ জাপার সাধারণ সম্পাদক জহিরুল আলম, খোরশেদ আলম খুশু, সুজন দে, শেখ মাসুক রহমান, মাহবুবুল আলম খসরু, এমএ কাইয়ুম, কাউসার আহমেদ ও বিভিন্ন থানা শাখার নেতারা বক্তব্য রাখেন।

এমপি বাবলা বলেন, ‘বাস্তবতা বুঝতে হবে। আমাকে টিকিট দিয়েছে এরশাদ। কিন্তু এমপি বানিয়েছে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা, এটা রিয়েলিটি। আমরা সরকারের আচার আচরণ দেখছি, সময় কথা বলবে।’ তিনি এরশাদের আত্মার মাগফেরাত কামনা করে জিএম কাদেরের নেতৃত্বে দলকে শক্তিশালী করার আহ্বান জানান।

এসএম ফয়সল চিশতী বলেন, ‘বিরোধী উপনেতা রওশন এরশাদ ও কো চেয়ারম্যান জিএম কাদেরের যৌথ নেতৃত্বে জাপা পরিচালিত হবে। যারা দলকে বিভক্ত করতে চায় তাদের বিরুদ্ধে সবাইকে সজাগ থাকতে হবে।’

জহিরুল আলম রুবেল বলেন, ‘৯০ সালে এরশাদের ক্ষমতা হস্তান্তরের ঘটনাও একটা চক্রান্ত ছিল। কারণ, তিনি যদি একাধারে রাষ্ট্রপরিচালনায় থাকতেন তাহলে আজকে বাংলাদেশ মাহাথিরের মালয়েশিয়াকে ডিঙ্গিয়ে যেত। ৩০ বছর আগে হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ দেশ নিয়ে যা ভাবতেন তা সরকার এখন বাস্তবায়ন করছে।


রাইজিংবিডি/ঢাকা/১ আগস্ট ২০১৯/নঈমুদ্দীন/শাহনেওয়াজ

ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন