ঢাকা, শুক্রবার, ৫ আশ্বিন ১৪২৬, ২০ সেপ্টেম্বর ২০১৯
Risingbd
সর্বশেষ:

কুলাউড়ায় ট্রেন দুর্ঘটনা, নিহত ৪

আব্দুল্লাহ আল নোমান : রাইজিংবিডি ডট কম
     
প্রকাশ: ২০১৯-০৬-২৪ ৮:৪৬:৫০ এএম     ||     আপডেট: ২০১৯-০৬-২৪ ৮:০৪:৪৭ পিএম
কুলাউড়ায় ট্রেন দুর্ঘটনা, নিহত ৪

নিজস্ব প্রতিবেদক, সিলেট : মৌলভীবাজারে কুলাউড়ায় ঢাকাগামী আন্তঃনগর উপবন এক্সপ্রেস দুর্ঘটনায় পড়লে অন্তত চারজন নিহত এবং দেড় শতাধিক আহত হয়েছে।

রোববার রাত পৌনে ১২টার দিকে মৌলভীবাজারের কুলাউড়ার বরমচাল স্টেশনের পাশে বনশাইল নামক স্থানে বড়ছড়া সেতু ভেঙে ট্রেনের একটি বগি খাদে পড়ে। এ ছাড়া দুটি বগি পাশের জমিতে এবং তিনটি বগি লাইনচ্যুত হলে এ হতাহতের ঘটনা ঘটে।

আহতদের উদ্ধার করে বিভিন্ন হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। এর মধ্যে গুরুতর আহত নয়জনকে সিলেট ওসমানী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নেয়া হয়েছে।

দুর্ঘটনার পর সিলেটের সঙ্গে সারা দেশের রেল যোগাযোগ বন্ধ হয়ে পড়েছে। রাতেই লাইনে থাকা অপর বগিগুলো নিয়ে কুলাউড়া জংশনে পৌঁছেছে ইঞ্জিন। লাইনচ্যুত বগি সরিয়ে রাস্তা চালু করার কাজ ভোর থেকে শুরু করেছেন সংশ্লিষ্টরা।

এদিকে দুর্ঘটনার পরপর দমকল বাহিনীর ১৩টি ইউনিট উদ্ধার কাজে নেমে পড়ে। এ ছাড়া রেলওয়ে পুলিশ, থানা পুলিশ এবং স্থানীয় জনসাধারণও উদ্ধার কাজে অংশ নেন। উদ্ধার কাজে বিজিবির একটি টিমও অংশ নিয়েছে।

রাতেই ফায়ার সার্ভিস সদস্যরা খালে পড়ে যাওয়া এবং সড়কের পাশের জমিতে পড়ে থাকা সবকটি বগি থেকে যাত্রীদের উদ্ধার করে হাসপাতালে পাঠায়। এ সময় তিন নারীসহ চারজনের মরদেহ উদ্ধার করা হয় বলে জানিয়েছেন ফায়ার সার্ভিস অ্যান্ড সিভিল ডিফেন্সের সিলেট বিভাগের উপ-পরিচালক মোহাম্মদ আলী।

তিনি জানান, রাতে দুর্ঘটনার পর থেকে ফায়ার সার্ভিসের ১৩টি ইউনিট ঘটনাস্থলে উদ্ধার কাজ শুরু করে। এ সময় সেখানে তাদের পাঁচটি অ্যাম্বুলেন্সও ছিলো।

মৌলভীবাজারের পুলিশ সুপার মো. শাহজালাল চার লাশ উদ্ধারের খবর নিশ্চিত করেন। তিনি বলেন, ‘আমরা উপজেলা হাসপাতালে চারজনের মরদেহ দেখতে পেয়েছি, তাই আপাতত ধরে নেয়া যায় চারজনই মারা গেছেন।’

দুর্ঘটনার পর রাতেই মৌলভীবাজারের জেলা প্রশাসক তোফায়েল ইসলামসহ প্রশাসনের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা সেখানে ছুটে আসেন। তারা ঘটনাস্থল এবং উপজেলা হাসপাতালও পরিদর্শন করেছেন।

এদিকে দুর্ঘটনার খবর পেয়ে রাতেই প্রস্তুত রাখা হয় সিলেট ওসমানী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের জরুরি বিভাগ।

হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অপর ১৬ জন ক্যাজুয়ালিটি বিভাগে চিকিৎসকদের তত্ত্বাবধানে রয়েছেন; যাদের মধ্যে নয়জন সিলেট জেলার, চারজন সুনামগঞ্জের, দুইজন মৌলভীবাজারের এবং একজন ঢাকার বাসিন্দা রয়েছেন বলে হাসপাতালে ভর্তি রেজিস্ট্রার থেকে জানা গেছে।

আহত অবস্থায় আসা রোগীদের বিনামূল্যে চিকিৎসা সেবা প্রদান করা হচ্ছে বলে জানিয়েছেন হাসপাতালে চিকিৎসক ডা. আসাদুজ্জামান জুয়েল।

ট্রেনের যাত্রী দক্ষিণ সুরমার তেলিরাই এলাকার বাসিন্দা শাহীন আহমদ জানান, হঠাৎ করে ট্রেনের পেছনের বগিগুলো উল্টে যায়; এ সময় ঝাঁকুনি দিয়ে ট্রেন থেমেও যায়।

 

 

রাইজিংবিডি/সিলেট/২৪ জুন ২০১৯/আব্দুল্লাহ আল নোমান/ইভা/এনএ

ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন