ঢাকা, শুক্রবার, ১৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭, ২৯ মে ২০২০
Risingbd
সর্বশেষ:

গোপনে দ্বিতীয় বিয়ে করতে গিয়ে...

রেজাউল করিম : রাইজিংবিডি ডট কম
     
প্রকাশ: ২০১৯-০৯-০৫ ৯:১৮:২২ এএম     ||     আপডেট: ২০১৯-০৯-০৫ ১০:৩০:৫২ এএম

নিজস্ব প্রতিবেদক, চট্টগ্রাম : মহা ধুমধামে বিয়ের আনুষ্ঠানিকতা সম্পন্ন। খাওয়া-দাওয়ার পর্বও শেষ। নতুন বউকে নিজ বাড়িতে নিয়ে যাবেন বর।

ঠিক সে সময় ঘটল বিপত্তি। বেরসিক পুলিশ হাতকড়া পরিয়ে দিল বরের হাতে। আটক হন বর মো. আলতাফ হোসেন (৩০)। অভিযোগ গোপনে দ্বিতীয় বিয়ে করেছেন।

চট্টগ্রামের সীতাকুণ্ড উপজেলার ভাটিয়ারী ইউনিয়নে ইমামনগর গ্রামে বুধবার রাতে এ ঘটনা ঘটে। প্রথম স্ত্রীর অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে সীতাকুণ্ড থানা পুলিশ আলতাফকে আটক করে নিয়ে যায়।

এ ঘটনা এলাকায় বেশ চাঞ্চল্যের সৃষ্টি করেছে। সীতাকুণ্ড থানার এস আই হুমায়ুন কবীর ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন। আলতাফ সন্দীপ উপজেলার মগধরা ইউনিয়নের হেলিচ্ছা বাজারের নিজাম উদ্দিনের পুত্র।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্র জানায়, আলতাফ হোসেনের সাথে পারিবারিকভাবে বিয়ে ঠিক হয় একই উপজেলার মৃত মো. হাসেমের কন্যা তানিয়া আক্তারের। কয়েকদিন আগে তাদের আকদ সম্পন্ন হয়।

বুধবার রাতে সজ্জিত কনের বাড়ি। বরযাত্রী সাথে করে এসেছেন বরও। সব আনুষ্ঠানিকতা শেষে কনেকে নিয়ে বাড়ি রওনা দেওয়ার মুহূর্তে হাজির পুলিশ। সাথে বর আলতাফের প্রথম স্ত্রী দাবিদার সোনিয়া (২৬)। বরকে আটক করে নিয়ে যাওয়া হয় থানায়।

সোনিয়া জানান, ২০১৬ সালে প্রেমের সম্পর্কের ধারাবাহিকতায় আলতাফের সঙ্গে তার বিয়ে হয়। এরপর চট্টগ্রামের একটি ভাড়া বাসায় তাকে রেখে আলতাফ বিদেশে চলে যান। বিদেশ যাওয়ার পর প্রায় বছর খানেক যোগাযোগ ছিল। এরপর আলতাফ আর কোনো খবর নিতো না।

সোনিয়া জানান, একদিন আলতাফের আবার বিয়ে করার খবর শুনতে পেয়ে থানায় কাগজপত্র জমা দিয়ে অভিযোগ করেন। তার কাছে আলতাফের সঙ্গে বিয়ের প্রয়োজনীয় কাগজপত্র রয়েছে বলে উল্লেখ করেন সোনিয়া।

এদিকে আলতাফ প্রথম বিয়ের কথা অস্বীকার করেন এবং সোনিয়াকে তিনি চেনেন না বলে পুলিশকে জানিয়েছেন।

এ বিষয়ে সীতাকুণ্ড মডেল থানার এসআই হুমায়ুন কবীর রাইজিংবিডিকে জানান, প্রথম স্ত্রীর কাছে গোপন রেখে দ্বিতীয় বিয়ে করার অভিযোগের ভিত্তিতে আলতাফকে আটক করা হয়েছে। এ ব্যাপারে দুজনকেই থানায় জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে।


রাইজিংবিডি/চট্টগ্রাম/৫ সেপ্টেম্বর ২০১৯/রেজাউল/বুলাকী/এনএ

     
 

আরো খবর জানতে ক্লিক করুন : চট্টগ্রাম, চট্টগ্রাম বিভাগ