ঢাকা, বুধবার, ৫ ফাল্গুন ১৪২৬, ১৯ ফেব্রুয়ারি ২০২০
Risingbd
সর্বশেষ:

স্বাভাবিক জীবনের হাতছানিতে ১৩ কিশোর

রেজাউল করিম : রাইজিংবিডি ডট কম
     
প্রকাশ: ২০১৯-১২-০১ ১১:৪৪:১৭ পিএম     ||     আপডেট: ২০১৯-১২-০২ ১২:৩০:৫৬ পিএম

ওদের সবার বয়স ৮ থেকে ১২ বছরের মধ্যেই। তারা অভিভাবকহীন, পরিবারহীন। নেশাগ্রস্থ, স্বাভাবিক জীবনের সঙ্গাটা ওদের জানা নেই।

তারা চট্টগ্রাম নগরীর দুই নম্বর গেইট, শপিং কমপ্লেক্স, মুরাদপুরসহ আশেপাশের এলাকায় গাম সেবন করে নেশা করতো, ভারসাম্যহীন অবস্থায় নগরীতে ঘুরাফেরার পাশাপাশি পথচারীদের নানাভাবে বিরক্তি করতো।

সদ্য চালু হওয়া চট্টগ্রাম নগর পুলিশ কমিশনারের সামাজিক উদ্যোগ ‘হ্যালো কমিশনার’ পেইজে এই বিষয়ে অভিযোগ করেন কয়েকজন নগরবাসী। বিষয়টি সঙ্গে সঙ্গেই পুলিশ কমিশনারের নজরে আসে। পুলিশ কমিশনার মাহবুবুর রহমানের তাৎক্ষণিক নির্দেশে নগরীর পাঁচলাইশ থানা পুলিশ অভিযান চালিয়ে এমন ১৩ কিশোরকে আটক করে সংশোধনাগারে পাঠান। উদ্দেশ‌্য তাদেরকে স্বাভাবিক জীবনে ফেরানো।

চট্টগ্রাম মহানগর পুলিশের উপ-কমিশনার (পিআর এন্ড আইসিটি) আবু বকর সিদ্দিক রাইজিংবিডিকে জানান, হ্যালো কমিশনার পেইজের মাধ্যমে পুলিশ কমিশনারের নজরে আসার সঙ্গেই গত ২৯ নভেম্বর নগরীতে পথচারী ও সাধারণ মানুষকে বিরক্তি সৃষ্টিকারী নেশায় আসক্ত ১৩ কিশোরকে আটক করে পাঁচলাইশ থানা পুলিশ। পাঁচলাইশ থানা হেফাজতে এনে তাদের জিজ্ঞাসাবাদ শেষে তাদের নিরাপদ হেফাজত এবং সংশোধনের লক্ষ্যে শেখ রাসেল শিশু প্রশিক্ষণ ও পুনর্বাসন কেন্দ্রে পাঠানোর জন্য আদালতে আবেদন করে পুলিশ।  

পরবর্তীতে চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট মো. খায়রুল আমিনের আদালত শুনানি শেষে এই শিশু-কিশোরদের সংশোধন ও পুনর্বাসন এবং নিরাপদ হেফাজতের নিমিত্তে চট্টগ্রামের হাটহাজারী থানার ফরহাদাবাদে অবস্থিত শেখ রাসেল শিশু প্রশিক্ষণ ও পুনর্বাসন কেন্দ্রে ওই শিশুদের হস্তান্তর করার আদেশ দেন।

উল্লেখ্য, চট্টগ্রাম নগর পুলিশ কমিশনার মাহবুবুর রহমানের বিশেষ উদ্যোগে নগরবাসীকে আরো বেশি সেবা দেয়ার লক্ষ্যে ‘হ্যালো কমিশনার’ পেইজ চালু করেন। এই মাধ্যমে পুলিশ কমিশনার নগরবাসীর কাছ থেকে তাদের অভিযোগ সরাসরি গ্রহণ করেন এবং প্রতিকারের প্রয়োজনীয় নির্দেশনা দেন সংশ্লিষ্ট থানাসমূহকে। পুলিশ কমিশনারের এই উদ্যোগ ইতিমধ্যে চট্টগ্রাম মহানগরীতে ব্যাপক প্রশংসা কুড়িয়েছে।

 

চট্টগ্রাম/রেজাউল/নাসিম/বুলাকী