ঢাকা, মঙ্গলবার, ২৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৬, ১০ ডিসেম্বর ২০১৯
Risingbd
সর্বশেষ:

চাহালকে এত ভয়?

রাজকোট থেকে ক্রীড়া প্রতিবেদক : রাইজিংবিডি ডট কম
     
প্রকাশ: ২০১৯-১১-০৮ ৭:৫৪:০৬ পিএম     ||     আপডেট: ২০১৯-১১-০৮ ১০:২৭:৫৭ পিএম
ছবি : মিলটন আহমেদ

লেগ স্পিন বোলার এখনও বাংলাদেশ শিবিরে মূর্তিমান আতঙ্ক! প্রতিপক্ষ শিবিরে একজন লেগ স্পিনার থাকা মানেই বাংলাদেশের ব্যাটসম্যানদের পা কাঁপাকাপি! রশিদ খান থাকুক নইলে যুজবেন্দ্র চাহাল, ২২ গজে ব্যাটসম্যানদের জন্য লেগ স্পিন সিলেবাসের বাইরে থেকে আসা এক প্রশ্ন। যে প্রশ্নের উত্তর জানা নেই দলের কারো।

আমিনুল ইসলাম বিপ্লব নিজেদের বোলিং আক্রমণে আসায় কিছুটা বৈচিত্র্য পেয়েছে বাংলাদেশ। কিন্তু প্রতিপক্ষ দলে যখন একজন লেগ স্পিনার থাকে তখন ইউ-টার্ন হয়ে যায় সবকিছু। লেগ স্পিনারদের বিপক্ষে ব্যাটসম্যানদের জুজু এখনও কাটেনি। ভারতের লেগ স্পিনার চাহালকেই দেখুন। আহামরি কোনো কিছু করার চেষ্টা করেন না, কিন্তু বাংলাদেশের বিপক্ষে টি-টোয়েন্টিতেই সবথেকে সফল।

বাংলাদেশের বিপক্ষে এ লেগ স্পিনার ৫টি টি-টোয়েন্টি খেলেছেন। ৫টিতেই সফল। ৫ ম্যাচে ২০ ওভারে ১১০ রান দিয়ে নিয়েছেন ৮ উইকেট। প্রতি ম্যাচেই পেয়েছেন উইকেট। সবশেষ ম্যাচে রাজকোটে মুশফিকুর রহিম ও সৌম্য সরকারের উইকেট নিয়েছিলেন গুরুত্বপূর্ণ সময়ে। ইনিংসের মধ্যভাগে দলের অন্যতম সেরা দুই ব্যাটসম্যানকে ফিরিয়ে ব্যাটিং অর্ডার গুঁড়িয়ে দেন চাহাল।

বাংলাদেশের বিপক্ষে চাহালের বোলিং স্পেলগুলো এরকম, ৪-০-১৯-১, ৪-০-২১-১, ৪-০-১৮-৩, ৪-০-২৪-১ ও সবশেষ ৪-০-২৮-২। আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টিতে ৪৯ উইকেট পাওয়া চাহালের বোলিং গড় বাংলাদেশের বিপক্ষে সবথেকে ভালো। ইকোনমি রেটেও রয়েছেন শীর্ষের দিকে।

এমন একজন বোলারের বিপক্ষে মুশফিক তার সবথেকে পছন্দ ও স্কোরিং শটে আউট হয়েছেন। সৌম্য বল না দেখে আগে বেরিয়ে স্ট্যাম্পড হয়েছেন। মোদ্দাকথা কোনো পরিকল্পনা ছাড়াই ভারতের অন্যতম সেরা এ স্ট্রাইক বোলারের বিপক্ষে ব্যাটিং করে যান ব্যাটসম্যানরা। বিষয়টা অবশ্য মানতে চাইলেন না বাংলাদেশের অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ।

‘নট রিয়্যালি। চাহালকে ডমিনেট করে খেলতে চাইনি। মুশফিক তার স্ট্রং শট স্কুপে আউট হয়েছে। আমি তাকে দোষ দিচ্ছি না। আমি কাউকেই দোষ দিচ্ছি না। এটা খেলার ছন্দ ছিল।’

‘আমরা এটা জানি যে চাহাল ওদের স্ট্রাইক বোলার । মধ্য ওভারগুলোতে উইকেটের প্রয়োজন হলেই ওরা চাহালকে ব্যবহার করে। আমরা ওইভাবে চিন্তা করছিলাম না যে কে ওদের স্ট্রাইক বোলার বা মেইন বোলার। আমরা চিন্তা করছিলাম ওর বিপক্ষে কতটুকু কম ঝুঁকি নিয়ে বা গ্যাপ খুঁজে রান করতে পারি। আমরা নেতিবাচক মাইন্ডসেটে ওর বিপক্ষে ব্যাটিং করিনি।’ – বলেছেন মাহমুদউল্লাহ।

ব্যাটসম্যানদের পক্ষে মাহমুদউল্লাহ ব্যাট করলেও মুশফিক ও সৌম্যর আউটের পর চাহালকে খেলাই যাচ্ছিল না।  আফিফ, মোসাদ্দেক, আমিনুল খেলতেই পারছিলেন না চাহালকে।  রানের গতি কমে যাওয়ায় রাজকোটের ব্যাটিং স্বর্গে বাংলাদেশের জয়ের সম্ভাবনার সূর্য বহু আগেই অস্তমিত হয়েছিল।  লেগ স্পিন জুজু যেন পরাজয়ের অন্যতম কারণ।


নাগপুর/ইয়াসিন/আমিনুল

ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন