ঢাকা, শুক্রবার, ৫ আশ্বিন ১৪২৬, ২০ সেপ্টেম্বর ২০১৯
Risingbd
সর্বশেষ:

জিআরপি থানায় ধর্ষণ: দুটি তদন্ত কমিটি খুলনায়

মুহাম্মদ নূরুজ্জামান : রাইজিংবিডি ডট কম
     
প্রকাশ: ২০১৯-০৮-০৮ ১০:৫৫:৫৪ পিএম     ||     আপডেট: ২০১৯-০৮-০৮ ১০:৫৫:৫৪ পিএম
জিআরপি থানায় ধর্ষণ: দুটি তদন্ত কমিটি খুলনায়

নিজস্ব প্রতিবেদক, খুলনা : খুলনা জিআরপি থানার মধ্যে গণধর্ষণের শিকার নারীকে জিজ্ঞাসাবাদ করেছে পুলিশের তদন্ত কমিটি।

বৃহস্পতিবার জেলগেটে তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়। এ ছাড়া ভুক্তভোগী ওই নারীর পরিবারের সদস্যদের সঙ্গে কথা বলার জন্য তাদের খবর পাঠানো হয়েছে। পুলিশের দুটি তদন্ত কমিটি তদন্ত কার্যক্রম চালিয়ে যাচ্ছে।

বৃহস্পতিবার জিআরপি থানায় গিয়ে দেখা যায়, পুলিশ সদর দপ্তর থেকে গঠন করে দেয়া তদন্ত কমিটির প্রধান এসপি সেহেলা পারভীন ওসির কক্ষে বসে থানার পুলিশ সদস্যদের সঙ্গে কথা বলছেন। এ সময় সেখানে তদন্ত কমিটির অপর তিন সদস্য উপস্থিত ছিলেন।

পাশের কক্ষে (ডিউটি অফিসারের কক্ষ) গিয়ে দেখা যায়, পাকশী রেলওয়ে পুলিশের পক্ষ থেকে গঠন করা তদন্ত কমিটির প্রধান এএসপি ফিরোজ আহমেদও থানার পুলিশ সদস্যদের সঙ্গে কথা বলছেন। ওই কক্ষে তদন্ত কমিটির অপর দুই সদস্যও ছিলেন।

এসপি সেহেলা পারভীন জানান, ওই দিন রাতে থানায় যাদের ডিউটি ছিল, তাদের সবাইকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। তদন্ত চলছে, তদন্ত শেষ হলে ব্রিফিং করা হবে।

রেল পুলিশের তদন্ত কমিটির প্রধান এএসপি ফিরোজ আহমেদ জানান, ভুক্তভোগী নারীর পরিবারের সদস্যদের সঙ্গে তারা কথা বলতে চান। সে জন্য তাদের জিআরপি থানায় আসতে বলা হয়েছে। এখনো তারা আসেনি।   

গত ২ আগস্ট যশোর থেকে ট্রেনে খুলনায় আসার পথে তিন সন্তানের মা এক নারীকে (৩০) আটক করে খুলনা জিআরপি থানা পুলিশ। তার পরিবারের সদস্যদের অভিযোগ, মোবাইল চুরির অভিযোগ দিয়ে ওই নারীকে আটক করা হয়। শুক্রবার রাতে থানার হাজতে ওসিসহ পাঁচ পুলিশ সদস্য তাকে মারধর ও ধর্ষণ করে। পর দিন তাকে ৫ বোতল ফেনসিডিলসহ গ্রেপ্তার দেখিয়ে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়।

সোমবার তার ওই নারীর ডাক্তারি পরীক্ষা সম্পন্ন হয়েছে।


রাইজিংবিডি/খুলনা/৮ আগস্ট ২০১৯/মুহাম্মদ নূরুজ্জামান/বকুল

ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন