ঢাকা     সোমবার   ১০ আগস্ট ২০২০ ||  শ্রাবণ ২৬ ১৪২৭ ||  ২০ জ্বিলহজ্জ ১৪৪১

টাঙ্গাইলের চাষিরা সরিষা চাষে লাভবান

100 || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ০২:১৬, ১৩ ডিসেম্বর ২০১৯  
টাঙ্গাইলের চাষিরা সরিষা চাষে লাভবান

দিগন্ত বিস্তৃত ফসলের মাঠ। যে দিকে চোখ যায় শুধু হলুদ ফুলের ছড়াছড়ি। সেই ফুলের ওপর মৌমাছির উড়াউড়ি। মৌমাছি ফুল থেকে মধু সংগ্রহ করছে। সেই মধু চাক থেকে সংগ্রহ করছেন মধু চাষি। মৌমাছি ফুলের মধু সংগ্রহের পাশাপাশি পরাগায়ন ঘটিয়ে সরিষার উৎপাদন বৃদ্ধি করছে। কৃষক লাভবান হচ্ছেন সরিষা চাষে।

টাঙ্গাইলের বিভিন্ন উপজেলায় ৪০ হাজার হেক্টর সরিষা ক্ষেত রয়েছে। আমন ধানের ভালো দাম না পাওয়ায় এই এলাকার কৃষকরা সরিষা ফসলে ক্ষতি পুষিয়ে নিতে চাইছেন। স্বল্প খরচ আর কম পরিশ্রমে অধিক মুনাফা হওয়ায় এই ফসলের প্রতি ঝুঁকছেন তারা।

কৃষকরা জানান, আমন ধান ঘরে তোলার পর বোরো আবাদের আগে তিন মাসের মতো সময় পান তারা। এই তিন মাস জমিতে চাষ করেন সরিষা। ৮০-৯০ দিনের মধ্যে এই ফসল সংগ্রহ করতে পারেন।

এক সময় টাঙ্গাইলের চাষিরা নিজেদের তেলের চাহিদা পূরণের জন্য সরিষা চাষ করতেন। কিন্তু ধান ও অন্যান্য ফসলের চেয়ে অধিক মুনাফা হওয়ায় ও স্বল্প সময়ে ফসল সংগ্রহ করতে পারায় বর্তমানে বাণিজ্যিকভাবে সরিষার চাষ করছেন। বাড়তি লাভ হিসেবে সরিষা ক্ষেতের পাশে বাক্স বসিয়ে সংগ্রহ করছেন মধু। এই মধুও বিক্রি করছেন চড়া দামে।

জেলা সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের তথ্যমতে, চলতি বছর টাঙ্গাইলের ৪০ হাজার হেক্টর জমিতে সরিষার আবাদ হয়েছে। আগামীতে এর পরিমাণ বৃদ্ধি পাবে।

আমন ধান কাটা শেষ হলে ফসলি জমিতে বীজ ছিটিয়ে আর হালকা চাষ দিয়ে করা যায় রবিশষ্য সরিষার আবাদ। সরিষা আবাদের পর জমির উর্বরতা বৃদ্ধি পাওয়ায় ওই জমিতে অন্য ফসল ভালো হয়ে থাকে। তাছাড়া সরিষার তেমন উৎপাদন খরচ নেই। সরিষা চাষের সময় ক্ষেতে জৈব সারের অভাব পূরণ হয়ে যায়, ফলে সারের বাড়তি খরচ থেকে রক্ষা পায় কৃষক।

টাঙ্গাইলের বিভিন্ন এলাকার কৃষকদের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, ভালো বীজ হলে এক বিঘা জমিতে ১০ থেকে ১৫ মণ সরিষা পাওয়া যায়। সরিষা সংগ্রহ শেষে ওই জমিতে কৃষকরা বোরো চাষ করে থাকেন।

কৃষকরা জানান, সরিষা চাষে প্রতি হেক্টর জমিতে খরচ হয় ২০ হাজার টাকা। আর উৎপাদিত সরিষা বিক্রি হয় এক লাখ টাকায়।

জেলার কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর খামারবাড়ির উপ-পরিচালক মো. আব্দুর রাজ্জাক রাইজিংবিডিকে বলেন, দ্বিতীয় সরিষা উৎপাদিত জেলা টাঙ্গাইল। টাঙ্গাইলে ২ লাখ ৪৩ হাজার হেক্টর আবাদি জমি রয়েছে। এর মধ্যে প্রায় ৪০ হাজার হেক্টর জমিতে সরিষার আবাদ হয়।

 

টাঙ্গাইল/শাহরিয়ার সিফাত/বকুল

রাইজিংবিডি.কম

সম্পর্কিত বিষয়:

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়