ঢাকা, সোমবার, ২৯ আশ্বিন ১৪২৬, ১৪ অক্টোবর ২০১৯
Risingbd
সর্বশেষ:

টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপ নিয়ে মুমিনুলের উচ্ছ্বাস

ইয়াসিন : রাইজিংবিডি ডট কম
     
প্রকাশ: ২০১৯-০৮-২২ ৫:২১:২৫ পিএম     ||     আপডেট: ২০১৯-০৮-২২ ৮:৪১:৫৯ পিএম

ক্রীড়া প্রতিবেদক: ভারতের বিপক্ষে ম্যাচ দিয়ে টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপ বা টেস্ট বিশ্বকাপে পা রাখবে বাংলাদেশ।  এর আগে অবশ্য নিজেদের ঝালিয়ে নিতে একটি প্রস্তুতির সুযোগ পাচ্ছে বাংলাদেশ।

সেপ্টেম্বরে আফগানিস্তানের বিপক্ষে দ্বিপাক্ষিক সিরিজের একমাত্র টেস্টটি খেলবে বাংলাদেশ।  বাংলাদেশের সাদা পোশাকের ক্রিকেট মানেই মুমিনুল হকের উপস্থিতি।  ‘টেস্ট স্পেশালিস্ট’ খেতাব পাওয়া মুমিনুল হক কী ভাবছেন টেস্ট ক্রিকেটের নতুন সংযোজন নিয়ে।

মিরপুরে কন্ডিশনিং ক্যাম্প চলার ফাঁকে গণমাধ্যমে কথা বলেন জাতীয় দলের এ ক্রিকেটার।  তার কথা শুনেছে রাইজিংবিডি,

সামনে অনেক টেস্ট।  নিজেকে কিভাবে তৈরি রাখছেন?

মুমিনুল হক: এই জায়গায় মানসিকভাবে অনেক শক্ত হতে হয়। শারীরিকভাবেও সামর্থ্যবান হতে হয়। আশা করি আমার অমন কোনও সমস্যা হবে না। এটায় আমি অভ্যস্ত হয়ে গিয়েছি। কয়েকদিন আগে ভারতে আমি তিন-চারটা চারদিনের ম্যাচ খেলেছি। খেলার মধ্যে থাকলে বিষয়টা সহজ হয়। অতো কঠিন হয় না। জিনিসটা কঠিনভাবে নিলে কঠিন, সহজভাবে নিলে সহজ।

টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপ নিয়ে কী ভাবছেন?

মুমিনুল হক: টেস্ট ক্রিকেটার হিসেবে আমার মনে হচ্ছে টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপ হওয়াতে আমাদের দেশের জন্য ভালো হয়েছে। আমাদের বাংলাদেশ ক্রিকেটের জন্য ভালো হয়েছে। ব্যক্তিগতভাবে আমি খুব খুশি। কেননা টেস্ট ক্রিকেট আমাদের দেশে ওভাবে ফোকাস হয় না। ওইদিক দিয়ে চিন্তা করলে আমাদের দেশের জন্য খুবই ভালো হয়েছে।

টেস্ট বেশি খেলা হলে আপনার পারফর্ম করার সুযোগও বাড়বে?

মুমিনুল হক: ম্যাচ না খেললে একরকম। কিন্তু ম্যাচ খেললে পারফর্ম করার সুযোগ বাড়বে আপনার। ফলাফল ভালো করার সুযোগ থাকে, দলকে ভালো একটি অবস্থানে নিয়ে যাওয়ার সুযোগ থাকে, র‍্যাঙ্কিংয়ে উপরের দিকে যাওয়ারও সুযোগ থাকে। এদিক দিয়ে চিন্তা করলে আমার মনে হয় এটা খুব ভালো একটি সুযোগ।

টেস্ট ক্রিকেটে ভালো করতে ঘরোয়া লিগে স্ট্রাকচারে পরিবর্তন দরকার কিনা?

মুমিনুল হক: ওইরকম না। পুরো জিনিসটা হচ্ছে মানসিক ব্যাপার। আপনি যেখানেই যান, আপনি যদি মানসিকভাবে ঠিক থাকেন তাহলে আপনি এসব দিক দিয়ে এগিয়ে যাবেন। তাহলে পারফর্ম করা সহজ হয়।

টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপে যাওয়ার আগে শেষ ম্যাচ আফগানিস্তানের বিপক্ষে। প্রস্তুতির দারুণ সুযোগ পাচ্ছেন?

মুমিনুল হক:  টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের আগে এই ম্যাচ খেলা একটা ভালো প্রস্তুতি। আমাদের সবার জন্যই ভালো সুযোগ। মনে হয় ভালো একটি খেলা হবে। ভারতের বিপক্ষে ম্যাচের আগে ওদের স্পিন আক্রমণ আমাদের সামনে আসবে। এটা ভালো প্রস্তুতি হবে। আমরা জানি যে উপমহাদেশে ওদের স্পিন আক্রমণ অনেক ভয়ঙ্কর।

নতুন কোচের সঙ্গে কথা হয়েছে?

মুমিনুল হক:  মাঠের টেকনিক্যাল কোনও বিষয়ে কথা হয়নি।  হাই হ্যালো হয়েছে।

কোচ থেকে কি প্রত্যাশা করছেন?

মুমিনুল হক: এখনও ওভাবে চিন্তা-ভাবনা করিনি। সবার একজন ব্যক্তিগত কোচ থাকে। আমি ওনার কাছ থেকে সবকিছু নিবো, এমনটা না বিষয়টা। উনি যে পরামর্শ দেবে, যেটা আমার জন্য দরকার সেটা নিবো। আমার যদি ভালো লাগে তাহলে ওভাবে নিবো। সবকিছু মিলে হয়তো ভালোই হবে।

কোচের কি প্রত্যাশা আপনাদের কাছ থেকে?

মুমিনুল হক: প্রশ্নটি অনেক কঠিন। কোচ কি চাচ্ছে ওটা চিন্তা না করে নিজের কাজ ঠিকভাবে করলেই হয়। যেমন আপনি যদি ফিটনেসের দিক দিয়ে বা ব্যাটিং বোলিংয়ে ভালো করেন তাহলে দুনিয়ার যত ভালো কোচ হোক বা যত খারাপ কোচ হোক- আপনাকে এমনিতেই নিবে।

এই মুহূর্তে অন্য কোনো ফরম্যাটে আপনার বিশেষ নজর আছে?

মুমিনুল হক: আমি আপাতত ওভাবে চিন্তা করছি না। টেস্ট ক্রিকেটের জন্য সবসময় বসে থাকলে হয় না। যেসব জায়গায় উন্নতি দরকার সেখানে উন্নতি করতে আপনাকে অনুশীলন সবসময়ই চালিয়ে যেতে হবে। এ কারণেই আমি বাড়তি অনুশীলন করি। আমার কাছে মনে হয় টেস্ট ক্রিকেটে যদি আমি খুব ভালো গড় নিয়ে যাই বা বিপিএলে ভালো অবস্থান নিয়ে যাই, যদি ভালো করতে পারি তাহলে ভালো একটা সুযোগ আছে।

প্রসঙ্গত টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের অংশ হিসেবে আগামী ২ বছরে বাংলাদেশ খেলবে মোট ১৪টি টেস্ট। এর মধ্যে শ্রীলঙ্কা ও ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে খেলবে সর্বোচ্চ ৩টি করে টেস্ট। এছাড়া ভারত, অস্ট্রেলিয়া, পাকিস্তান ও নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে খেলবে ২টি করে টেস্ট।


রাইজিংবিডি/ঢাকা/২২ আগস্ট ২০১৯/ইয়াসিন

ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন