ঢাকা, বুধবার, ৯ শ্রাবণ ১৪২৬, ২৪ জুলাই ২০১৯
Risingbd
সর্বশেষ:

ঠাকুরগাঁওয়ে নিপা ভাইরাসে আক্রান্তের লক্ষণ নিয়ে হাসপাতালে ৩ জন

তানভীর হাসান তানু : রাইজিংবিডি ডট কম
     
প্রকাশ: ২০১৯-০৩-১৫ ৯:০৬:১০ এএম     ||     আপডেট: ২০১৯-০৩-১৫ ১২:০৩:১৭ পিএম
ঠাকুরগাঁওয়ে নিপা ভাইরাসে আক্রান্তের লক্ষণ নিয়ে হাসপাতালে ৩ জন
Voice Control HD Smart LED

ঠাকুরগাঁও প্রতিনিধি: নিপা ভাইরাসে পাঁচজনের মৃত্যুর একমাস পর একই ধরণের লক্ষণ নিয়ে ঠাকুরগাঁওয়ের বালিয়াডাঙ্গী উপজেলায় একই পরিবারের তিনজন অসুস্থ হয়েছেন।

বৃহস্পতিবার বড়পলাশবাড়ি ইউনিয়নের উজরমনি গ্রামের ওই তিন বাসিন্দা হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন বলে জানিয়েছেন বালিয়াডাঙ্গী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আবাসিক মেডিকেল অফিসার এবিএম মনিরুজ্জামান।

অসুস্থরা হলেন উজরমনি গ্রামের নাসিরুল ইসলামের স্ত্রী দুলালী বেগম (২৮), তার ছেলে সিয়াম (৮) ও মেয়ে নিতু (৪)। তাদের রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে।

এর আগে, গত ৯ ফেরুয়ারি থেকে পর্যায়ক্রমে বালিয়াডাঙ্গী উপজেলার ধনতলা ইউনিয়নের ভান্ডারদহ মরিচপাড়া গ্রামে আবু তাহের (৫৫), তার জামাতা হাবিবুর রহমান (৩৫), স্ত্রী হোসনে আরা (৪৫), দুই ছেলে ইউসুফ আলী (৩০) ও মেহেদী হাসানের (২৭) অজ্ঞাত রোগে আক্রান্ত হয়ে মারা যান। পরে এ রোগের জন্য নিপা ভাইরাসকে দায়ী করে রোগতত্ত্ব, রোগ নিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা ইনস্টিটিউট (আইইডিসিআর)।

বালিয়াডাঙ্গী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আবাসিক মেডিকেল অফিসার এবিএম মনিরুজ্জামান জানান, বৃহস্পতিবার বেলা ১১টার দিকে গৃহবধূ দুলালী বেগম, তার ছেলে সিয়াম ও মেয়ে নিতু হাসপাতালে আসেন।

তিনি বলেন,‘তাদের তিনজনের জ্বর, মাথাব্যাথা, শরীরে দুর্বলতার লক্ষণ পাওয়া যায়। তারা বমিও করেছেন। তাৎক্ষণিকভাবে তাদের প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে তাদের ঠাকুরগাঁও আধুনিক সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।’

মনিরুজ্জামান  জানান, সদর হাসপাতালে তাদের তিনজনের শরীর থেকে রক্ত সংগ্রহ করা হয়েছে এবং উন্নত চিকিৎসার জন্য তিনজনকেই রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে এগুলো নিপা ভাইরাসে আক্রান্তের লক্ষণ।

অসুস্থ দুলালী বেগমের স্বামী নাসিরুল ইসলাম বলেন, গত রাতে এক প্রতিবেশী তার স্ত্রীকে কিছু বড়ই দেন। ওগুলো তার স্ত্রী ও দুই সন্তান খেয়েছিল। সকাল থেকে তারা বমি করতে থাকে এবং জ্বর, মাথাব্যাথা ও শরীরে দুর্বলতা অনুভব করছিল।

ঠাকুরগাঁওয়ের সিভিল সার্জন আবু মো. খয়রুল কবির বলেন, অজ্ঞাত রোগে অসুস্থ তিনজনকে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে আলাদাভাবে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে। তারা কী কারণে অসুস্থ হয়েছে আমরা তা নির্ণয় করার চেষ্টা করছি।



রাইজিংবিডি/ঠাকুরগাঁও/১৫ মার্চ ২০১৯/তানভীর হাসান তানু/শাহেদ

Walton AC
ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন
       

Walton AC
Marcel Fridge