ঢাকা, রবিবার, ৫ মাঘ ১৪২৬, ১৯ জানুয়ারি ২০২০
Risingbd
সর্বশেষ:

ডিবিএইচের পর্ষদ সভা বিকেলে

আশিক : রাইজিংবিডি ডট কম
     
প্রকাশ: ২০১৭-০৭-১৩ ৮:২৮:১৯ এএম     ||     আপডেট: ২০১৭-০৭-১৩ ১১:০৯:০১ এএম

অর্থনৈতিক প্রতিবেদক : পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত আর্থিক খাতের প্রতিষ্ঠান ডেল্টা ব্র্যাক হাউজিং ফিন্যান্স করপোরেশন (ডিবিএইচ) লিমিটেডের পরিচালনা পর্ষদ সভা আজ।

বৃহস্পতিবার বিকেল সাড়ে ৪টায় এ সভা অনুষ্ঠিত হবে। এতে চলতি হিসাব বছরের দ্বিতীয় (এপ্রিল-জুন) প্রান্তিকের অনিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন পর্যালোচনা করা হবে।

ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই) সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

সার্বজনীন হিসাব বছরের বাধ্যবাধকতায় এবার ৩১ ডিসেম্বর পর্যন্ত ছয় মাসে হিসাব বছর গণনা করেছে কোম্পানিটি। এ সময়ের জন্য ১৫ শতাংশ নগদ লভ্যাংশ দিয়েছে ব্যাংকবহির্ভূত আর্থিক খাতের তালিকাভুক্ত কোম্পানিটি। ২০১৬ সালের জুলাই-ডিসেম্বর সময়ে ডিবিএইচের শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয় ২ টাকা ৭১ পয়সা, আগের বছর একই সময়ে যা ছিল ২ টাকা ৩৬ পয়সা (বোনাস শেয়ার সমন্বয়ের পর)। ৩১ ডিসেম্বর কোম্পানির শেয়ারপ্রতি নিট সম্পদমূল্য (এনএভিপিএস) দাঁড়িয়েছে ২৯ টাকা ৪৭ পয়সায়।

এর আগে ৩০ জুন সমাপ্ত ২০১৬ হিসাব বছরের জন্য ৩০ শতাংশ নগদ ও ৫ শতাংশ স্টক লভ্যাংশ পেয়েছেন ডিবিএইচ শেয়ারহোল্ডাররা। সে সময়ে কোম্পানিটির ইপিএস ছিল ৬ টাকা ৭৭ পয়সা, আগের বছর যা ছিল ৫ টাকা ৯০ পয়সা।

এদিকে চলতি হিসাব বছরের প্রথম প্রান্তিকে (জানুয়ারি-মার্চ) ৩ টাকা ৩ পয়সা ইপিএস দেখিয়েছে ডিবিএইচ। আগের বছর একই সময়ে যা ছিল ২ টাকা ৬১ পয়সা। ৩১ মার্চ এর এনএভিপিএস দাঁড়ায় ৩২ টাকা ৫০ পয়সায়।

২০১৬ সালের ৩১ ডিসেম্বর পর্যন্ত ছয় মাসের নিরীক্ষিত ফলাফল ও অন্যান্য প্রাসঙ্গিক তথ্যের ভিত্তিতে ক্রেডিট রেটিং এজেন্সি অব বাংলাদেশ লিমিটেডের (সিআরএবি) প্রত্যয়ন অনুসারে দীর্ঘমেয়াদে ডিবিএইচের ঋণমান ‘ট্রিপল এ’ ও স্বল্পমেয়াদে ‘এসটি-ওয়ান’।

ডিএসইতে ডিবিএইচের শেয়ারের সর্বশেষ দর ছিল ১১৭ টাকা। গত এক বছরে এ শেয়ারের সর্বোচ্চ দর ছিল ১২৬ টাকা ৯০ পয়সা এবং সর্বনিম্ন ৯৮ টাকা ১০ পয়সা।

সর্বশেষ নিরীক্ষিত মুনাফা ও বাজারদরের ভিত্তিতে এ শেয়ারের মূল্য-আয় (পিই) অনুপাত ৪২ দশমিক ৮৮, হালনাগাদ অনিরীক্ষিত মুনাফার ভিত্তিতে যা ৯ দশমিক ৫৯।

প্রসঙ্গত, ২০০৮ সালে ডিবিএইচ পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত হয়। এ প্রতিষ্ঠানের মোট শেয়ারসংখ্যা ১১ কোটি ৬০ লাখ ৪৯ হাজার ৩৭৫টি। এর ৫১ দশমিক ৩২ শতাংশ উদ্যোক্তা-পরিচালক, ৭ দশমিক ৪৪ শতাংশ প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগকারী, ৩১ দশমিক ১৯ শতাংশ বিদেশি বিনিয়োগকারী ও ১০ দশমিক শূন্য ৫ শতাংশ সাধারণ বিনিয়োগকারীর কাছে রয়েছে।



রাইজিংবিডি/ঢাকা/১৩ জুলাই ২০১৭/আশিক/হাসান/ইভা