ঢাকা, শনিবার, ৩ কার্তিক ১৪২৬, ১৯ অক্টোবর ২০১৯
Risingbd
সর্বশেষ:

‘ঢালাও’ পরিবর্তনের পক্ষে নন ডমিঙ্গো

ইয়াসিন : রাইজিংবিডি ডট কম
     
প্রকাশ: ২০১৯-০৯-০৩ ৭:৪২:৪১ পিএম     ||     আপডেট: ২০১৯-০৯-০৪ ৮:২৫:৪৪ এএম

চট্টগ্রাম থেকে ইয়াসিন হাসান: গ্রেগ চ্যাপেল দায়িত্ব নেওয়ার পর ভারতীয় দলের আগাগোড়া পাল্টে ফেলেছিলেন! শচীন টেন্ডুলকারকে ওপেনিং থেকে সরিয়ে দিয়েছিলেন। দলের ভেতরে বিভাজন তৈরি করেছিলেন। মিটিংয়ে খেলোয়াড়দের তুচ্ছ করে কথা বলতেন। অনুশীলনে অনেক রদবদল করেছিলেন। পরিকল্পনায় এনেছিলেন পরিবর্তন। কিন্তু কোনো কিছুই কাজে আসেনি। ফলে ভারতীয় দল ফ্রন্ট গিয়ারে চলার থেকে ব্যাক গিয়ারে চলছিল তার অধীনে।

২০০৭ বিশ্বকাপ যার সব থেকে বড় প্রমাণ। ১৯৮৩ সালের বিশ্বচ্যাম্পিয়নরা সেবার বাংলাদেশের কাছে গ্রুপ পর্বের ম্যাচ হারের পর শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ম্যাচ হারে। বারমুডার বিপক্ষে এক জয় নিয়ে গ্রুপ পর্ব থেকে বিদায় নেয় সৌরভ গাঙ্গুলীর দল। দেশে ফিরেই চাকরি হারান চ্যাপেল।

হুট করে আমূল পরিবর্তন এনে যেকোনো দলের ভালো কিছু হয় না-তা ক্রিকেট বিশ্ব একাধিবার দেখেছে। সেই শিক্ষা বাংলাদেশ দলের প্রধান কোচ রাসেল ডমিঙ্গো বেশ ভালোভাবেই গ্রহণ করেছেন। তাইতো বললেন, বাংলাদেশ দলে ‘ঢালাও’ পরিবর্তন আনতে চান না তিনি। 

দুই সপ্তাহ হলো জাতীয় দলের দায়িত্ব নিয়েছেন। এ সময়ে কেমন দেখলেন শিষ্যদের? ডমিঙ্গো জানালেন মনের কথা, ‘শেষ দুই সপ্তাহ ছেলেদের নিয়ে অবিশ্বাস্য খেটেছি। তাদের শক্তি, সামর্থ্য এবং দক্ষতা দেখে সত্যিই মুগ্ধ হয়েছি। আমাদেরকে এ ধারায় অব্যাহত থাকতে হবে এবং লক্ষ্যে স্থির ও ধৈর্য রাখতে হবে।’

আফগানিস্তানের বিপক্ষে টেস্ট সিরিজের মধ্য নিয়ে নতুন যাত্রা শুরু ডমিঙ্গোর। নতুন যাত্রায় ডমিঙ্গো আপাতত পর্যবেক্ষকের ভূমিকায়, ‘এটা আমার প্রথম টেস্ট হতে যাচ্ছে বাংলাদেশের হয়ে। ছেলেরা কিভাবে পারফর্ম করে তা প্রথমে দেখতে চাই। শেষ কয়েক টেস্টে তারা ভালো করেছে। তাই দ্রুত তাদের প্রক্রিয়ায় ‘ঢালাও’ পরিবর্তনের পক্ষপাতি নই আমি। সাকিব এবং নির্বাচকরা কিভাবে এ টেস্টের পরিকল্পনা সাজায় সেটা পরখ করব। তাদের ওপর বিশ্বাস রেখে কাজ করব এবং এতে আমি স্বাচ্ছন্দ্যবোধ করব।’

দুপুর ২টা থেকে ৫টা পর্যন্ত জহুর আহমেদ স্টেডিয়ামে ঘাম ঝরিয়েছেন ক্রিকেটাররা। আজকের ট্রেনিং সেশন ছিল অনেকটাই ম্যাচ অনুশীলনের মতো। সেন্ট্রাল উইকেটে খেলোয়াড়দের ফ্রি করে দিয়েছিলেন কোচরা। লিটন, মিথুন, সাকিব কিংবা মাহমুদউল্লাহ; যারাই সেন্ট্রাল উইকেটে ব্যাটিং করেছেন তারা প্রত্যেকে ফ্রি শট খেলেছেন। অন্যদিকে বোলিংয়ে তাসকিন দারুণ সময় কাটাচ্ছেন। রাহীও ছিলেন আপ টু মার্ক। লিটন ব্যাটিংয়ের পাশাপাশি আজ উইকেট কিপিং অনুশীলনও করেছেন।

আফগানিস্তানকে আতিথেয়তা দেওয়ার আগে শেষ প্রস্তুতিতে সন্তুষ্ট কোচ। জানালেন নিজেদের প্রক্রিয়ায় তারা ঠিক থাকলে ফল আপনা-আপনি বাংলাদেশের পক্ষে আসবে, ‘আফগানিস্তান তাদের টেস্ট সফরের শুরুতে আছে। বিনা দ্বিধায় তারা খেলবে। তাদের হারানোর কিছু নেই নতুন সফরে। আমরা অনেক এগিয়ে ওদের থেকে। তাই আমাদেরকে আমাদের সেরাটা খেলতে হবে। তারা আমাদেরকে চমকে দিতে চাইবে। কিন্তু আমাদেরকে সতর্ক থাকতে হবে।’

সাকিবের মতো বিশ্বমানের অলরাউন্ডারের সঙ্গে এর আগে কাজ করা হয়নি ডমিঙ্গোর। প্রোটিয়া কোচের বিশ্বাস বিশ্বকাপে সাকিব যেই স্ট্যান্ডার্ড তৈরি করেছে সেই স্ট্যান্ডার্ড অনুযায়ী পারফর্ম করবে আগামী দিনে।

‘সাকিব বিশ্ব ক্রিকেটের অন্যতম সেরা অলরাউন্ডার। দীর্ঘ সময় ধরেই সে সেরাদের একজন। তার থেকে সব সময় আকাশচুম্বি প্রত্যাশা থাকে। নিজেও আলাদা স্ট্যান্ডার্ড তৈরি করেছে।’


রাইজিংবিডি/চট্টগ্রাম/৩ সেপ্টেম্বর ২০১৯/ইয়াসিন/সাইফ

ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন