ঢাকা, শনিবার, ১৪ চৈত্র ১৪২৬, ২৮ মার্চ ২০২০
Risingbd
সর্বশেষ:

‘দেশে কাপড় তৈরি হলেও তুলা চাষ হয় না’

আসাদ আল মাহমুদ : রাইজিংবিডি ডট কম
     
প্রকাশ: ২০১৯-০৯-০৫ ৬:০৩:৪১ পিএম     ||     আপডেট: ২০১৯-০৯-০৫ ৬:০৩:৪১ পিএম

নিজস্ব প্রতিবেদক : ‘পোশাকশিল্পের মূল কাঁচামাল কাপড়। কাপড় আগে আমরা আমদানি করতাম। বর্তমানে কাপড় পুরোটাই দেশে উৎপাদন হচ্ছে। কিন্তু দুঃখজনক হলো- দেশে কাপড় তৈরির কাঁচামাল তুলা চাষ করি না। তাই তুলা আমদানি করতে হয়।’

বৃহস্পতিবার সচিবালয়ে কৃষি মন্ত্রণালয়ে প্রধানমন্ত্রীর বেসরকারি খাত ও বিনিয়োগবিষয়ক উপদেষ্টা সালমান এফ রহমানের নেতৃত্বে বাংলাদেশ টেক্সটাইল মিলস অ্যাসোসিয়েশনের (বিটিএম) প্রতিনিধিদলের সঙ্গে বৈঠক শেষে কৃষিমন্ত্রী ড. আব্দুর রাজ্জাক এসব কথা বলেন ।

কৃষিমন্ত্রী বলেন, তুলা আমদানির অনুমোদন আমরা (কৃষি মন্ত্রণালয়) দেই। তবে তুলা আমদনির পর এর সঙ্গে কোনো রোগ-জীবাণু আছে কি না সেটার জন্য পোর্টে ফিউমিগেশন করতে হয়। এজন্য একটা ফি দেয়া লাগে। আমদানিকারকদের সেই চার্জ দিতে হয়। এর আগে এসব ক্ষেত্রে যে পরিমাণ চার্জ ছিল সেটা সম্প্রতি ক্ষেত্র বিশেষে ১০ গুণ বাড়ানো হয়েছে। এ চার্য ৫ টাকা থেকে ৫০ টাকা করা হয়েছে।

তুলা আমদানিতে ফিউমিগেশন চার্জ কমানোর আশ্বাস দিয়ে তিনি বলেন, দেশের স্বার্থে অর্থ মন্ত্রণালয়সহ অন্যদের সঙ্গে আলাপ-আলোচনা করে এসব ফি কমানোর বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেয়া হবে।

কৃষিমন্ত্রী বলেন, সোনালি আঁশ পাট রপ্তানি করে অনেক বৈদেশিক মুদ্রা আয় করতাম। এখন সেটা দিন দিন কমে যাচ্ছে। বর্তমানে রপ্তানি আয়ের প্রায় ৮০ শতাংশ অর্জন হয় তৈরি পোশাক থেকে।


রাইজিংবিডি/ঢাকা/৫ সেপ্টেম্বর ২০১৯/আসাদ/রফিক