ঢাকা, মঙ্গলবার, ২৪ চৈত্র ১৪২৬, ০৭ এপ্রিল ২০২০
Risingbd
সর্বশেষ:

নুরের উপর হামলা: বিভিন্ন সংগঠনের নেতাদের বক্তব্য

আবু বকর ইয়ামিন : রাইজিংবিডি ডট কম
     
প্রকাশ: ২০১৯-০৮-১৫ ৪:৩৩:২০ পিএম     ||     আপডেট: ২০১৯-০৮-১৫ ৭:১৭:৫৫ পিএম
ফাইল ফটো

আবু বকর ইয়ামিন: কোটা সংস্কার আন্দোলন থেকে শুরু করে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্র সংসদ (ডাকসু) নির্বাচনকে কেন্দ্র করে একাধিক হামলার ঘটনা ঘটে ডাকসু ভিপি নুরুল হক নুরের উপর।

নিজ শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে ডিম নিক্ষেপ, গণপিটুনি, ব্রাহ্মণবাড়িয়া, বগুড়াসহ একাধিক জায়গায় বিভিন্ন সামাজিক ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে অংশ নিতে গিয়ে হামলার শিকার হন ভিপি নুর।

সর্বশেষ নিজ শহর পটুয়াখালীতে হামলার শিকার হন তিনি।

নুরের উপর হামলা নিয়ে পৃথক পৃথক বক্তব্য দিচ্ছেন ছাত্রলীগ, ডাকসু ও সাধারণ ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদের নেতারা।

নুরের উপর হামলার বিষয়ে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী আব্দুল্লা হিল বাকী বলেন, ‘মূলত জনপ্রিয়তার মানদণ্ড থেকেই বারবার ছাত্রলীগ এ হামলা করছে। তারা এই আশঙ্কা করছে, ভিপি নুরের মাধ্যমে দেশে তৃতীয় কোনো শক্তির উত্থান হয়ে যায় কিনা। কারণ ক্ষমতাসীন ছাত্রসংগঠনের প্রতি মানুষ বিরক্ত হয়ে পড়েছে, সবাই বিকল্প খুঁজছে।’

তিনি বলেন, ‘বর্তমান গৃহপালিত বিরোধী দল কোনো অন্যায়ের প্রতিবাদে সোচ্চার হচ্ছে না। এতে করে ভিপি একটা গুরুত্বপূর্ণ অবস্থান থেকে অন্যায় অনিয়মের প্রতিবাদে সোচ্চার। এজন্য তারা হামলা করে তাকে দমিয়ে রাখার চেষ্টা করছে।’

ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক ও ডাকসুর জিএস গোলাম রাব্বানী বলেন, ‘নুরের উপর হামলার বিষয়ে ছাত্রলীগের কেউ জড়িত নয়। ডাকসু ভিপি থাকবে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে। তিনি ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় যেখানে গিয়েছেন, সেখানে শিবিরের লোকজনের উপস্থিতি ছিল বলে খবর আসছে। আমরা সংগঠন থেকে কোনোভাবেই কোনো বাধা বা হামলার নির্দেশনা দেইনি। আর বগুড়ার ঘটনায়ও আমাদের কেউ জড়িত ছিল না।’

ডাকসুর সাংস্কৃতিক সম্পাদক আসিফ তালুকদার বলেন, ‘নুরুল হক নুর ডাকসুর ভিপি হিসেবে বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রিক কোনো ঘটনা ঘটলে সেটার বিষয়ে আমরা কথা বলবো। কিন্তু সে নিজের ব্যক্তিগত কাজের জন্য কোথাও গিয়ে কারো মাধ্যমে মারধরের শিকার হলে সেটার বিষয়ে আমরা কী করতে পারি? তবে যে কোনো হামলার নিন্দা জানাই আমরা।’

তিনি বলেন, ‘তার উপর কোনো হামলা হলেই ছাত্রলীগ করেছে বলে সে অভিযোগ তোলে। যেটা একেবারেই ভিত্তিহীন। এ জাতীয় কোনো প্রমাণ এখন পর্যন্ত মেলেনি। তিনি ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদ নামের একটি সংগঠনের প্রচারে যান। বিভিন্ন এলাকার শিক্ষার্থীরাই তাকে হয়তো প্রতিহত করে।’

সাধারণ ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদের আহবায়ক হাসান আল মামুন বলেন, ‘স্থানীয় ছাত্রলীগ, যুবলীগ এবং আওয়ামী লীগ নুরের উপর হামলা করছে। সাধারণ মানুষের পক্ষে কথা বলা, অন্যায়ের প্রতিবাদ করার ফলেই আমরা বার বার ক্ষমতাসীনদের হামলার শিকার হচ্ছি। পুরো দেশকে জিম্মি করে রাখতেই এই হামলা চালানো হয়। যারাই সরকারের অন্যায়ের বিরুদ্ধে কথা বলে, তাদেরকে দমন করার একটি কৌশল হলো হামলা এবং মামলা। নুর এবং বাংলাদেশ সাধারণ ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদের জনপ্রিয়তাই সরকারের ভীতির মূল কারণ।’

ছাত্রলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক নাজমুল সিদ্দিকী বলেন, ‘এটা তার উত্থানের বড় চেষ্টা। এক্ষেত্রে ছাত্রলীগকে প্রতিপক্ষ হিসেবে ব্যবহার করতে পারলে তার জন্য সুবিধা হয়। কারণ, ছাত্রলীগ দেশের বৃহৎ একটি ছাত্রসংগঠন। নানা নাটকীয়তা করে সে ছাত্রলীগের উপর সেটা চাপিয়ে দেয়ার চেষ্টা করে সবসময়। ডাকসু নির্বাচনের সময় রোকেয়া হলের ভেতরে ঘুরে পড়ে যাওয়া তার বড় প্রমাণ।’

ছাত্রলীগের সহসভাপতি আল নাহিয়ান জয় বলেন, ‘তার উপর ছাত্রলীগ হামলা করবে কেনো। এটা তার ভিত্তিহীন একটা অভিযোগ। অতীতেও বিভিন্ন মাধ্যমে প্রমাণিত হয়েছে, যে ছাত্রলীগ তার উপর হামলা করেনি। নুর তার জনপ্রিয়তা বাড়ানোর জন্য এ জাতীয় অভিযোগ দাড়া করাচ্ছেন।’

সাধারণ ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদের নেতা ও ডাকসুর সমাজসেবা সম্পাদক আখতার হোসেন বলেন, ‘নুর ভাইয়ের জনপ্রিয়তায় তারা ঈর্ষান্বিত হয়ে এ জাতীয় হামলা করে যাচ্ছে। এর আগে যতগুলো হামলা করেছে এসবের ভিডিওফুটেজ থাকা সত্ত্বেও তারা কোনো ব্যবস্থা নেয়নি। তবে এটা সত্য যে, নানা প্রতিকূলতা আসবে এবং সেটা জেনেশুনেই ভিপি নুর সাধারণ ছাত্রদের অধিকার আদায়ে সংগ্রাম করে যাচ্ছেন। ভবিষ্যতেও করবেন বলে আমি আশা করি।’

এ বিষয়ে কথা বলতে ডাকসুর ভিপি নুরুল হক নুরকে ফোন দিলে তিনি অসুস্থ থাকায় তার সফরসঙ্গী রবিউল ইসলাম রুবেল ফোন ধরেন। তিনি নুরের বরাত দিয়ে বলেন, ‘নুর ভাই তার এলাকায় খুবই জনপ্রিয়। মূলত প্রতিহিংসাবশত তারা এসব হামলা করছে। তাদের আশঙ্কা নুর তার এলাকায় এমপি নির্বাচন করবেন। এজন্যই ওই এলাকার স্থানীয় সাংসদের অনুসারীরা এ হামলা করে। এ ছাড়া বিভিন্ন জায়গায় ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা তার জনপ্রিয়তা দেখে ঈর্ষান্বিত হয়ে তার উপর হামলা করে যাচ্ছে।’


রাইজিংবিডি/ঢাকা/১৬ আগস্ট ২০১৯/ইয়ামিন/হাকিম মাহি/শাহনেওয়াজ