ঢাকা     বৃহস্পতিবার   ১৩ আগস্ট ২০২০ ||  শ্রাবণ ২৯ ১৪২৭ ||  ২২ জ্বিলহজ্জ ১৪৪১

পাঠাওচালক হত্যা: আটক একজনের স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি

37 || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১৩:৩৬, ২ সেপ্টেম্বর ২০১৯  
পাঠাওচালক হত্যা: আটক একজনের স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি

নিজস্ব প্রতিবেদক: অ্যাপসভিত্তিক পরিবহন সেবা পাঠাওয়ের মোটরসাইকেলচালক মিলন হত্যা মামলায় গ্রেপ্তার নুর উদ্দিন ওরফে সুমন আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছে।

সোমবার মামলার তদন্ত কর্মকর্তা মতিঝিল জোনাল টিমের পুলিশ পরিদর্শক মোহাম্মদ নুরুল ইসলাম সুমন আসামিকে আদালতে হাজির করেন। আসামি স্বেচ্ছায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিতে সম্মত হওয়ায় তা রেকর্ড করার আবেদন করেন তদন্ত কর্মকর্তা।

আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে ঢাকা মহানগর হাকিম বাকী বিল্লাহ তার জবানবন্দি রেকর্ড করেন। এরপর তাকে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

এর আগে রোববার রাতে নোয়াখালীর কোম্পানীগঞ্জ থেকে অপুকে গ্রেপ্তার করা হয়।

দুই সন্তানের জনক মিলন পরিবারের সঙ্গে মিরপুরের গুদারাঘাট এলাকায় থাকতেন। ঋণের বোঝা কমাতে ‘পাঠাও’ চালাতেন তিনি।

পুলিশ জানিয়েছে, গত ২৬ আগস্ট রাত আনুমানিক ৩টার দিকে পাঠাও চালক মিলন এক যাত্রীকে মালিবাগ চৌধুরীপাড়ায় নামিয়ে দেন। যাত্রী নামানো শেষে মালিবাগ-মৌচাক ফ্লাইওভারে উঠতে আবুল হোটেলের ঢালে নুর উদ্দিন ভিকটিম মিলনকে সিগন্যাল দিয়ে থামিয়ে গুলিস্তান যাবে বলে ৫০ টাকায় ভাড়া ঠিক করেন। ফ্লাইওভারের সবচেয়ে উপরের সড়কে পৌঁছালে মোটরসাইকেল থামাতে বলেন নুর উদ্দিন। মোটরসাইকেল থামানোর পর নুর উদ্দিন মিলনকে বলেন, তিনি মোটরসাইকেল চালাবেন। এতে মিলন রাজি না হয়ে বলেন, আপনাকে আমি কেন মোটরসাইকেল চালাতে দেব? এভাবে কথাকাটাকাটির একপর্যায়ে তাদের মধ্যে ধস্তাধস্তি হয়। সুযোগ বুঝে নুর উদ্দিন অ্যান্টিকাটার দিয়ে মিলনের গলায় উপর্যুপরি আঘাত করে ফ্লাইওভারে রেখে মোটরসাইকেল ও মোবাইল নিয়ে চলে যান।

মিলন খুন হওয়ার ঘটনায় তার স্ত্রী শিল্পী বেগম ২৬ আগষ্ট শাহজাহানপুর থানায় হত্যা মামলা দায়ের করেন।


রাইজিংবিডি/ঢাকা/২ সেপ্টেম্বর ২০১৯/মামুন খান/সাজেদ

রাইজিংবিডি.কম

সম্পর্কিত বিষয়:

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়