ঢাকা, রবিবার, ৪ কার্তিক ১৪২৬, ২০ অক্টোবর ২০১৯
Risingbd
সর্বশেষ:

পুরাসুন্দা এখন ভুট্টা পল্লী

মামুন চৌধুরী : রাইজিংবিডি ডট কম
     
প্রকাশ: ২০১৭-০৪-২৯ ১:৫৮:৫৪ পিএম     ||     আপডেট: ২০১৭-০৪-২৯ ২:১৬:০৪ পিএম
নিজ জমিতে চাষকৃত ভুট্টা দেখাচ্ছেন পারুল

হবিগঞ্জ প্রতিনিধি : হবিগঞ্জ সদর উপজেলার নুরপুর ইউনিয়নের পুরাসুন্দা এলাকার পাশে রঘুনন্দন পাহাড়। এর এক পাশে গড়ে উঠছে শিল্প কারখানা। অপর পাশে বাঁশঘেরা স্থান। এ স্থানের উঁচু ভূমিতে চাষ হচ্ছে বাঁশ। নিচু জমিতে চাষ হচ্ছে বিভিন্ন ফসল।

কোন সময়ই এখানে ভুট্টা চাষ হয়নি। আর এ ফসলটি চাষে এখানকার কৃষকদের আগ্রহ ছিল না। তারা ধানই চাষ করেন ব্যাপকভাবে। বিষয়টি নজরে আসে হবিগঞ্জ সদর উপজেলা ওলিপুর কৃষি ব্লকের উপ-সহকারী কৃষি কর্মকর্তা অলক কুমার চন্দ অপু’র। তিনি ভুট্টা চাষে এগিয়ে আসার জন্য কৃষকদের উৎসাহ প্রদান করেন।

কৃষি বিভাগ থেকে কৃষকদের বলা হলো, ভুট্টা চাষে বীজ ও সার প্রদান করা হবে। প্রাথমিকভাবে পুরাসুন্দা এলাকার ১২ জন কৃষককে এসব বীজ ও সার প্রদান করা হয়। এসব সার ও বীজ পেয়ে এ মৌসুমে নিজেদের জমি আবাদ করে কৃষকরা ভুট্টার চাষ করেছেন। তাতে ফল বিফলে যায়নি। এখানের ৬ একর জমিতে ভুট্টার বাম্পার ফলন হয়েছে।

এ ব্যাপারে পুরাসুন্দার বাসিন্দা কৃষক ফারুক মিয়ার স্ত্রী পারুল বললেন, ‘আমরা প্রথম ভুট্টা চাষ করেই সফলতা পেয়েছি।’

পারুল জানান, ভুট্টা চাষে তেমন কোন ঝুঁকি নেই।  কৃষি কর্মকর্তা অলক কুমারের পরামর্শে তারা ভুট্টা চাষ করেছেন।এজন্য তিনি কৃষি কর্মকর্তার প্রতি কৃতজ্ঞতা জানান।পারুল নিজ জমিতে চাষকৃত ভুট্টা দেখান। আর কদিন পরই জমি থেকে ভুট্টা সংগ্রহ শুরু করবেন বলেও জানান।

আলাপ হয় কৃষক জিলু মিয়া, আব্দুর নুর, হেমেন্দ্র দেবনাথ, কুদরত আলী, ফরহাদ মিয়া, আব্দুল মালেক, সবুজ মিয়া মাষ্টার, ইসমাঈল মিয়া, রাসেল মিয়ার সাথে। তারাও জানালেন, এই প্রথম ভুট্টা চাষ করেই তারা ভাল ফলন পেয়েছেন ।

ওলিপুর এলাকায় অবস্থিত হবিগঞ্জ ইন্ডাস্ট্রিয়াল পার্কের জেনারেল ম্যানেজার হাসান মোঃ মঞ্জুরুল হক বলেন, ‘আমাদের পণ্য উৎপাদনে ভুট্টার প্রয়োজন রয়েছে। আমরা চাই এখানের চাষিরা ব্যাপকভাবে ভুট্টার চাষ করুক।’

 

খেতে ভুট্টাচাষিদের সঙ্গে উপ-সহকারী কৃষি কর্মকর্তা অলক কুমার চন্দ অপু


ওলিপুর কৃষি ব্লকের উপ-সহকারী কৃষি কর্মকর্তা অলক কুমার চন্দ অপু বলেন, ‘এখানে সড়ক যোগাযোগ ও গ্যাসের সহজ লভ্যতায় একের পর এক শিল্প প্রতিষ্ঠান গড়ে উঠছে। তাই লোকজন এখন শিল্পমুখী। তারপরও কৃষকদের উৎসাহ প্রদান করছি। কৃষকরা নানা ধরণের ফসল চাষ করছেন। কিন্তু ভুট্টা চাষ হয়নি। তাই ভুট্টা চাষে আগ্রহ সৃষ্টি করার জন্য কৃষকদের নানাভাবে পরামর্শ দিয়েছিলাম। এতে কাজ হয়েছে। কৃষকরা ভুট্টার বাম্পার ফলন পেয়েছেন।’

তিনি জানান, এই প্রথম এখানে ভুট্টা চাষ হয়েছে বলেই, পুরাসুন্দাকে ভুট্টা পল্লী ঘোষণা করেছেন উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা কায়কোবাদ খান।

তিনি বলেন, ‘এ মৌসুমে অলিপুর ব্লকে প্রচুর জমি পতিত পড়ে থাকে। এসব পতিত জমিকে আবাদের আওতায় এনে ভুট্টা চাষকে আরও এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করছি।’

হবিগঞ্জ কৃষি সম্প্রসারণ অধিদফতরের উপ-পরিচালক মোঃ ফজলুর রহমান বলেন, ‘কৃষকদের উৎসাহিত করতে পুরাসুন্দাকে ভুট্টা পল্লী ঘোষণা করা হয়েছে। এ মৌসুমে জেলায় ৩৮ হেক্টর জমির মধ্যে ভুট্টার আবাদ হয়েছে।’

 

 

রাইজংবিডি/হবিগঞ্জ/২৯ এপ্রিল ২০১৭/মামুন চৌধুরী/টিপু

ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন