ঢাকা, শনিবার, ৬ আশ্বিন ১৪২৬, ২১ সেপ্টেম্বর ২০১৯
Risingbd
সর্বশেষ:

পেঁয়াজের ঝাঁজ বাড়ছে

হাসিবুল ইসলাম : রাইজিংবিডি ডট কম
     
প্রকাশ: ২০১৯-০৭-১২ ১১:০৮:৫০ এএম     ||     আপডেট: ২০১৯-০৭-১৩ ৫:০১:৫১ পিএম
পেঁয়াজের ঝাঁজ বাড়ছে

নিজস্ব প্রতিবেদক : ঈদুল আজহার এখনো বাকী প্রায় এক মাস। এর আগেই চড়তে শুরু করেছে পেঁয়াজ-রসুনের বাজার। গত কয়েক দিনের ব্যবধানে ফের বেড়েছে এ দুটি পণ্যের দাম।

শুক্রবার বাজার ঘুরে দেখা গেছে, চলতি সপ্তাহে পেয়াজের কেজি ৫ টাকা বেড়ে বিক্রি হচ্ছে ৪৫ টাকা, রসুন ২০ টাকা বেড়ে বিক্রি হচ্ছে ১৬০ টাকা। দাম বাড়ার পেছনে সেই পুরোনো অজুহাত দেখাচ্ছেন ব্যবসায়ীরা-সরবরাহ কম। পেঁয়াজ-রসুনের পাশাপাশি বাজারে বেড়েছে সবজিরও দাম।

জিগাতলা কাচাবাজারের বিক্রেতা মোহাম্মদ রনি বলেন, 'ভাই গতকাল যে টমেটো বিক্রি করেছি ৬০ টাকা সেই টমেটো আজ বিক্রি করতে হচ্ছে ৭০ থেকে ৭৫ টাকা কেজি। মাত্র একদিনের ব্যবধানে প্রায় অধিকাংশ সবজির দাম ১০ থেকে ১৫ টাকা বেড়েছে।’

তিনি বলেন, সকালে যখন কারওয়ান বাজারে গিয়ে পাইকারি বাজারে দাম জিজ্ঞাসা করলাম তখনই শুনি দাম বেশি। পাইকারি বাজারে দাম বেশি হলে আমাদেরকেতো বেশি দামে বিক্রি করতেই হবে।’

দাম বৃদ্ধির কারণ হিসেবে তিনি বলেন, ‘পাইকারি ব্যবসায়ীরা বলছেন সরবারাহ কম তাই নাকি দাম বেশি।’

শুক্রবার রাজধানীর ঝিগাতলা, নিউমার্কেট, রায়েরবাজারসহ বিভিন্ন বাজার ঘুরে দেখা গেছে, সপ্তাহের ব্যবধানে অধিকাংশ সবজির দাম কেজি প্রতি ১০ থেকে ১৫ টাকা বেড়েছে। প্রতি কেজি পটল ৩০ টাকা, ঢেঁড়শ ৩০ টাকা, বেগুন প্রকারভেদে ৪০ থেকে ৫০  টাকা, কচুর লতি ৫০ টাকা, কচুর ছড়া ৪০ টাকা, চিচিঙা ৩০ টাকা, পেঁপে ৩০ টাকা,  করলা ৫০ টাকা, কাকরোল ৫০ টাকা, কাঁচা মরিচ৪০ টাকা বেড়ে ১০০ টাকা, শসার বিক্রি হচ্ছে ৬০ থেকে ৭০ টাকা, টমেটো ৭০ টাকা, বরবটি ৪০ টাকা। মিষ্টি কুমড়া পিচ ২০ টাকা, লাউ ৪০ টাকা, ফুলকপি ৩০ টাকা পিচ, বাধাকপি ৪০ টাকা পিচ, জালি কুমড়া ৩০ টাকা পিচ।

প্রতিকেজি ব্রয়লার মুরগি বিক্রি হচ্ছে ১৬০ টাকা দরে, যা আগে ছিল ১৪০ টাকা কেজি। আর লেয়ার মুরগি বিক্রি হচ্ছে ২৪০ থেকে ২৬০ টাকায়।  অপরিবর্তিত রয়েছে গরু ও খাসির মাংসের দাম।

তবে চড়া রয়েছে মাছের দাম। তেলাপিয়া বিক্রি হচ্ছে ২০০ টাকা কেজি, পাঙাশ ৫০ টাকা বেড়ে বিক্রি হচ্ছে কেজি ২০০ টাকা।  রুই মাছ ২৮০ থেকে ৪০০, পাবদা ৫০০ টাকা, টেংরা ৭০০ টাকা, শিং ৫০০ থেকে ৬০০ টাকা।

চালের দাম কিছুটা কমেছে। বাজারে প্রতি কেজি নাজির ২ টাকা কমে ৬০ টাকা, মিনিকেট ৫ টাকা কমে ৫০ টাকা।  স্বর্ণা ৩৫ টাকা, বিআর ২৮ নম্বর ৪০ টাকা দরে বিক্রি হতে দেখা গেছে।

 

রাইজিংবিডি/ঢাকা/১২ জুলাই ২০১৯/হাসিবুল/শাহেদ

ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন