ঢাকা, শুক্রবার, ১ কার্তিক ১৪২৬, ১৮ অক্টোবর ২০১৯
Risingbd
সর্বশেষ:

প্রস্তুত জাতীয় ঈদগাহ

মোহাম্মদ নঈমুদ্দীন : রাইজিংবিডি ডট কম
     
প্রকাশ: ২০১৯-০৮-১১ ৫:২৯:২৭ পিএম     ||     আপডেট: ২০১৯-০৮-১২ ৯:১০:৩৭ এএম

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক : রাত পোহালেই পবিত্র ঈদুল আজহা। জাতীয় ঈদগাহ ময়দানে ঈদুল আজহার প্রধান জামাত সকাল সাড়ে ৮টায় হবে। পুরোপুরি প্রস্তুত জাতীয় ঈদগাহ ময়দান।

৫ হাজার নারীসহ প্রায় ১ লাখ মুসল্লি একসঙ্গে নামাজ আদায় করতে পারবেন জাতীয় ঈদগাহে। অজু করার ব্যবস্থা, টয়লেট, মেডিক্যাল টিমসহ সব ধরনের প্রস্তুতি সম্পন্ন হয়েছে। র‌্যাব ও পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। বসানো হয়েছে পুলিশের নিয়ন্ত্রণ কক্ষ। জাতীয় ঈদগাহ এলাকা নিরাপত্তার চাদরে ঢেকে ফেলা হয়েছে।

জাতীয় ঈদগাহে রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ, প্রধান বিচারপতি, মন্ত্রী, এমপি, মেয়র, কূটনীতিকসহ সব শ্রেণি-পেশার মুসল্লি ঈদের নামাজ আদায় করবেন। ইমামতি করবেন জাতীয় মসজিদ বায়তুল মোকাররমের জ্যেষ্ঠ ইমাম মুফতি মিজানুর রহমান।

জাতীয় ঈদগাহে নারী মসুল্লিদের জন্য মাঠের দক্ষিণ পাশে পর্দা দিয়ে আলাদা ব্যবস্থা করা হয়েছে। প্রায় ৫ হাজার নারী এখানে নামাজ আদায় করতে পারবেন। কূটনৈতিক মিশনের সদস্য ও তাদের স্ত্রীদের নামাজের জন্যও আলাদা ব্যবস্থা রাখা হয়েছে।

ঈদ জামাতের সর্বশেষ প্রস্তুতি দেখতে রোববার জাতীয় ঈদগাহ পরিদর্শন করেন ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের মেয়র সাঈদ খোকন।

তিনি বলেন, ‘ঈদগাহে কমবেশি ১ লাখ মুসল্লি নামাজ আদায় করবেন। যাবতীয় প্রস্তুতি সম্পন্ন হয়েছে। আবহাওয়া  দুর্যোগপূর্ণ হলে ঈদের জামাত সকাল সাড়ে ৮টায় জাতীয় মসজিদ বায়তুল মোকাররমে হবে।’

জাতীয় ঈদগাহে সরেজমিনে ঘুরে দেখা গেছে, জাতীয় ঈদগাহে প্রবেশের জন্য তিনটি গেট রাখা হয়েছে। ঈদগাহের পূর্ব পাশে দৃষ্টিনন্দন গেট তৈরি করেছে ডিএনসিসি। এ গেট দিয়ে সর্বসাধারণ প্রবেশ করে থাকেন। পশ্চিম দিকে থাকছে ভিআইপিদের গেট। পূর্বদিকে পানির পাম্পসংলগ্ন ছোট্ট একটি গেট রাখা হয়েছে নারীদের জন্য। প্রত্যেককে মেটাল ডিটেক্টর ও আর্চওয়ের মধ্যে দিয়ে ঈদগাহে প্রবেশ করতে হবে। শুধু জায়নামাজ ও ছাতা নিয়ে আসতে পারবেন মুসল্লিরা। তাও পুলিশকে দেখিয়ে ময়দানে ঢুকতে হবে।

 

ঈদগাহ মাঠের পূর্বদিকে ফুটপাতসংলগ্ন জায়গায় অজুর ব্যবস্থা করা হয়েছে। একসঙ্গে দেড়শ পুরুষ মুসল্লি ও ৫০ নারী মুসল্লি অজু করতে পারবেন। নিরাপদ পানি এবং পর্যাপ্ত টয়লেট থাকবে। ঈদগাহ ময়দানের বাইরে বোতলজাত পানির ব্যবস্থা থাকবে। ঈদগাহে মুসল্লিদের জরুরি স্বাস্থ্যসেবা দিতে একটি মেডিক্যাল টিম প্রস্তুত রাখা হয়েছে। নিরবচ্ছিন্ন বিদ্যুতের ব্যবস্থা করা হয়েছে। এজন্য জেনারেটর স্ট্যান্ডবাই থাকবে।

অন্যান্য বারের মতো এবারও ঈদ জামাত চলাকালে বজ্রপাত ঠেকাতে ঈদগাহে বজ্র প্রতিরোধক দণ্ড স্থাপন করা হয়েছে। জরুরি টেলিফোন বুথ ও পর্যাপ্ত গাড়ি পার্কিংয়ের ব্যবস্থা রাখা হয়েছে। কোন গাড়ি কোথায় পার্কিং করা হবে, এ সম্পর্কে ডিএমপির নির্দেশনা রয়েছে। সে হিসেবে সবাইককে গাড়ি রাখতে হবে।

ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের (ডিএসসিসি) এক কর্মকর্তা জানান, ঈদুল আজহার প্রধান জামাতের সব প্রস্তুতি সম্পন্ন। জাতীয় ঈদগাহ ময়দান ত্রিপল দিয়ে ঢেকে ফেলা হয়েছে। পুরো মাঠজুড়ে ৭০০ সিলিং ফ্যান ও ১০০টি স্ট্যান্ড ফ্যান লাগানো হয়েছে। ৪৬০টি লাইট এবং ৫৪টি মেটাল লাইট লাগানো হয়েছে। ৬০ থেকে ৭০টি মাইক লাগানো হয়েছে মাঠের বিভিন্ন প্রান্তে।

জাতীয় ঈদগাহে থাকছে তিন স্তরের নিরাপত্তা। ঈদগাহ সার্বক্ষণিক নজরদারির জন্য মাঠে ও মাঠের বাইরে ক্লোজ সার্কিট (সিসি) ক্যামেরা বসানো হয়েছে। র‌্যাব ও পুলিশের একাধিক নিয়ন্ত্রণ কক্ষ বসানো হয়েছে। নাশকতা ঠেকাতে ও নিরাপদে ঈদের নামাজ আদায়ে পুরো ঈদগাহের চারপাশে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা অবস্থান নিয়েছেন। তাদের সঙ্গে থাকছে গোয়েন্দা পুলিশসহ সোয়াট টিম।

জাতীয় ঈদগাহে নিরাপত্তা ব্যবস্থা দেখে সন্তোষ প্রকাশ করে শনিবার ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের (ডিএমপি) কমিশনার মো. আছাদুজ্জামান মিয়া বলেছেন, ডিএমপির পক্ষ থেকে ঈদের জামাতে সুদৃঢ়, সুসমন্বিত ও নিশ্ছিদ্র নিরাপত্তা ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে।

তিনি বলেন, প্রত্যেক মুসল্লিকে মেটাল ডিটেক্টর ও আর্চওয়ে দিয়ে ঈদগাহে প্রবেশ করতে হবে। সিসি ক্যামেরা দিয়ে জাতীয় ঈদগাহ ও তার চারপাশে রিয়েল টাইম মনিটরিং করা হবে। থাকবে ফায়ার টেন্ডার, মেডিক্যাল টিম, কমান্ড ভেহিকল ও ওয়াচ টাওয়ার। পুলিশের কাউন্টার টেরোরিজম বিভাগের ডগ স্কোয়াড দিয়ে ঈদগাহ সুইপিং করা হবে। স্ট্যান্ডবাই থাকবে সোয়াট টিম। অন্যান্য সংস্থার সাথে সমন্বয় করে আমাদের পক্ষ থেকে নেয়া হয়েছে সর্বোচ্চ নিরাপত্তা ব্যবস্থা।

জনসাধারণের প্রতি অনুরোধ জানিয়ে ডিএমপি কমিশনার বলেন, ঈদগাহের নিরাপত্তার স্বার্থে প্রবেশপথে প্রতিটি চেকপোস্টে তল্লাশিকালে পুলিশকে সহযোগিতা করুন। জায়নামাজ ছাড়া ব্যাগ, অস্ত্র, ছুরি, চাকু, কাঁচি, গোলাবারুদ ও দাহ্য পদার্থ সঙ্গে নিয়ে আসবেন না।

 

রাইজিংবিডি/ঢাকা/১১ আগস্ট ২০১৯/নঈমুদ্দীন/রফিক

ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন