ঢাকা, শনিবার, ২ কার্তিক ১৪২৬, ১৯ অক্টোবর ২০১৯
Risingbd
সর্বশেষ:

ফাঁকা হয়েছে ঢাকা

মোহাম্মদ নঈমুদ্দীন : রাইজিংবিডি ডট কম
     
প্রকাশ: ২০১৯-০৮-১১ ৮:০১:৩৬ পিএম     ||     আপডেট: ২০১৯-০৮-১২ ১০:০২:৩১ এএম

জ্যেষ্ঠ প্রতিবদক :  ‘আহা কি শান্তি। যানজট নেই, ভোগান্তি নেই, কমে গেছে হাইড্রোলিক হর্নের কর্ণযন্ত্রণাও। পল্টন মোড় থেকে মাত্র ২০ মিনিটে ধানমন্ডি, তাও আবার গণপরিবহনে! প্রতিদিন এমন যদি হতো, তাহলে তো আর কথাই ছিল না।’

স্বস্তি নিয়ে কথাগুলো বলছিলেন পুরান ঢাকার বাসিন্দা মোহাম্মদ আব্দুল করিম। রোববার দুপুরে বায়তুল মোকাররমে ব্যক্তিগত কাজ শেষে ধানমন্ডির উদ্দেশে পল্টন মোড় থেকে নিউ ভিশন পরিবহনে ওঠেন তিনি। আগে যেখানে যানজটে ঘণ্টার পর ঘণ্টা লেগে যেত ধানমন্ডি পৌঁছাতে সেখানে মাত্র ২০মিনিটে তিনি গন্তব্যে পৌঁছে যান।

ঈদ উপলক্ষে এরই মাঝে ঢাকা ছেড়েছেন অগণিত মানুষ। সময়ের সাথে সাথে ফাঁকা হয়ে পড়ছে রাজধানী। বড় বড় মার্কেট বাদে অধিকাংশ দোকানপাটও বন্ধ হয়েছে। রাজধানীর মতিঝিল, পল্টন মোড়, ফার্মগেট, ধানমন্ডি, মিরপুর, খিলক্ষেত, কাকরাইল, মগবাজার, মোহাম্মদপুর, জিগাতলা, পুরান ঢাকাসহ অন্যান্য এলাকার বেশিরভাগ সড়কই দৃশ্যত এখন ফাঁকা। আগে যেখানে প্রাইভেট কার, সিএনজি অটোরিকশা, রিকশা আর বাসের গাদাগাদিতে ঘণ্টার পর ঘণ্টা যানজট লেগে থাকত, এখন সেখানে উল্টো চিত্র।

বাহনহীন খাঁ খাঁ রাস্তায় মাঝে মধ্যে হুঁস করে গতি বাড়িয়ে ছুটছে প্রাইভেট কার। যানজট নেই, তাই ট্রাফিক পুলিশের বাঁশি আর লাঠি শিথিল হয়ে এসেছে। ভিআইপি সড়কেও মাঝেমধ্যেই এখন গলা ছেড়ে গান গাইতে গাইতে আয়েসেই যেতে পারছেন রিকশাচালক। কমে গেছে গণপরিবহনের পাড়াপাড়িও। তবে গাবতলী, সায়েদাবাদ, গুলিস্তান, মহাখালীসহ কিছু দূরপাল্লার বাস স্টেশনে এখনও কিছুটা যানজট রয়েছে।

রাত পোহালেই ঈদ। আর এবারের ঈদে লম্বা ছুটির স্বস্তি পেয়েছে চাকরিজীবীরা। মূলত সাপ্তাহিক বন্ধকে গোনার মধ্যে আনলে এবারের ঈদের ছুটি ৯ দিনের মতো। মাঝে কেবল এক দিন (১৪ আগস্ট, বুধবার) ঐচ্ছ্বিক ছুটি অথবা কোনো টালবাহানা করে কাটিয়ে দিতে পারলেই হলো। শুক্র ও শনিবার ছিল সাপ্তাহিক ছুটি। রোববার থেকে ঈদের ছুটি মঙ্গলবার পর্যন্ত। বুধবার বাদে বৃহস্পতিবার আবার জাতীয় শোক দিবসের বন্ধ। ফের শুক্র ও শনি সাপ্তাহিক ছুটি। প্রিয়জনদের বেশি সময় দেয়া যাবে বলেই এবার ঢাকা ছাড়া মানুষের সংখ্যা বেশি বলে মন্তব্য করেছেন অনেকেই।

এরই মাঝে ঢাকায় বসবাস করা মানুষের চাপ অনেক কমে গেছে। আজ রাতে, এমনকি আগামীকাল সকালেও ঈদের নামাজ শেষে অনেক মানুষ ঢাকা ছেড়ে যাবেন। বাস কাউন্টারগুলোর লোকদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, অনেকেই ঈদের দিন সকালের টিকিট কেটে রেখেছেন।


রাইজিংবিডি/ঢাকা/১১ আগস্ট ২০১৯/নঈমুদ্দীন/নবীন হোসেন

ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন