ঢাকা, মঙ্গলবার, ১৪ মাঘ ১৪২৬, ২৮ জানুয়ারি ২০২০
Risingbd
সর্বশেষ:

ফাইনালের আগে আত্মবিশ্বাস বাড়ানোর ম্যাচ

আবু হোসেন পরাগ : রাইজিংবিডি ডট কম
     
প্রকাশ: ২০১৯-০৯-২১ ৯:১৯:১৭ এএম     ||     আপডেট: ২০১৯-০৯-২১ ৩:০৫:৪৮ পিএম

সবশেষ ম্যাচে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে এসেছে দারুণ এক জয়। তাতে আফগানিস্তানকে সঙ্গে নিয়ে বাংলাদেশ উঠে গেছে ত্রিদেশীয় টি-টোয়েন্টি সিরিজের ফাইনালে। আজ আফগানিস্তানের বিপক্ষে প্রাথমিক পর্বের শেষ ম্যাচটি তাই শুধুই নিয়মরক্ষার। তবুও ম্যাচটিকে বিশেষ গুরুত্ব দিচ্ছে বাংলাদেশ। লক্ষ্য জয়ের ধারাবাহিকতা বজায় রাখা আর আফগানদের বিপক্ষে পরাজয়ের বৃত্ত ভাঙা। পাশাপাশি ফাইনালের আগে আত্মবিশ্বাস বাড়িয়ে নেওয়া।

টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটে দুই দলের প্রথম দেখায় আফগানিস্তানকে স্রেফ উড়িয়ে দিয়েছিল বাংলাদেশ। মিরপুরে ২০১৪ টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের ম্যাচে আফগানিস্তানকে ৭২ রানে গুটিয়ে দিয়ে বাংলাদেশ সেটি ১২ ওভারেই পেরিয়ে গিয়েছিল ৯ উইকেট হাতে রেখে। সেই আফগানিস্তানই সাম্প্রতিক সময়ে হয়ে গেছে বাংলাদেশের প্রবল প্রতিপক্ষ।

ওই ম্যাচের পর এই ফরম্যাটে আফগানদের বিপক্ষে আর জিততে পারেনি বাংলাদেশ। গত বছর ভারতের দেরাদুনে তিন ম্যাচের সিরিজে বাংলাদেশ হয়েছিল হোয়াইটওয়াশ। এরপর ত্রিদেশীয় সিরিজে মিরপুরে ২৫ রানে হার। আজ হারলে পরিসংখ্যানটা গিয়ে ঠেকবে টানা পাঁচে। তার মধ্যে আবার ত্রিদেশীয় সিরিজ শুরুর আগে চট্টগ্রামে একমাত্র টেস্টেও আফগানদের কাছে অসহায় আত্মসমর্পণ করেছিল বাংলাদেশ।

 

 

চট্টগ্রামের জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামেই আজ আবার রশিদ খান, মোহাম্মদ নবীদের মুখোমুখি হচ্ছেন সাকিব আল হাসান, মুশফিকুর রহিমরা। মিরপুরে হারের পর অধিনায়ক সাকিব অকপটে স্বীকার করেছিলেন, টি-টোয়েন্টিতে তাদের চেয়ে অনেকটাই এগিয়ে আফগানরা। দুই দলের ক্রিকেটারদের দক্ষতা ও মানসিকতায় বিস্তর ব্যবধান। সাকিবদের সেই ব্যবধান ঘোচানোর আরেকটি সুযোগ আজ।

জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে ৩ উইকেট নিয়ে জয়ে বড় অবদান রাখা শফিউল ইসলাম অবশ্য আফগানদের হারানোর ব্যাপারে আত্মবিশ্বাসী, ‘আমরা যদি আমাদের ভুলগুলো শুধরাতে পারি, যে যার কাজটা ঠিকমতো করতে পারি, শতভাগ দিতে পারি; তাহলে ওদের হারানো সম্ভব।’

ম্যাচটা তারা কেন জিততে চান, সেটাও ম্যাচের আগের দিন সংবাদ সম্মেলনে ব্যাখ্যা করেছেন এই পেসার, ‘কালকের ম্যাচটা আমাদের সবার জন্য গুরুত্বপূর্ণ। আমরা ভালো খেললে এ থেকে সবার আত্মবিশ্বাস বাড়বে। জয়ের অভ্যাসটা আমাদের ফাইনাল খেলার জন্য সহায়তা করবে।’

 

 

অন্যদিকে কাল জিম্বাবুয়ের কাছে হেরে আফগানিস্তানের রেকর্ড টানা ১২ ম্যাচের জয়যাত্রা থেমে গেছে। এই ফরম্যাটে জিম্বাবুয়ের সঙ্গে নয়বারের দেখায় আফগানিস্তান পেয়েছে প্রথম হারের তিক্ত স্বাদ। তাতে রশিদ-নবীদের আত্মবিশ্বাসও কিছুটা নড়ে গেছে নিশ্চিতভাবে। বাংলাদেশের জন্য সুযোগটা কাজে লাগানোর মোক্ষম সময় এটাই।

জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে চার ওভারে ১৮ রানে ২ উইকেট নিয়ে অভিষেক রাঙিয়েছিলেন আমিনুল ইসলাম বিপ্লব। সেই ম্যাচেই বাম হাতে চোট পাওয়ায় আজ তরুণ এই লেগ স্পিনারের খেলা নিয়ে রয়েছে শঙ্কা। যদিও হাতে তিন সেলাই আর ব্যান্ডেজ নিয়েই ম্যাচের আগের দিন নেটে দীর্ঘক্ষণ বোলিং করেছেন আমিনুল। তবে ফাইনালের আগে তাকে নিয়ে টিম ম্যানেজমেন্ট ঝুঁকি নেবে বলে মনে হয় না। সেক্ষেত্রে আজ একাদশে একটি পরিবর্তন আসতে পারে।


ঢাকা/পরাগ