ঢাকা, মঙ্গলবার, ২ আশ্বিন ১৪২৬, ১৭ সেপ্টেম্বর ২০১৯
Risingbd
সর্বশেষ:

বিশ্বের প্রথম ইলেকট্রিক স্পিডবোট

আহমেদ শরীফ : রাইজিংবিডি ডট কম
     
প্রকাশ: ২০১৮-১২-০৭ ৫:২২:২২ পিএম     ||     আপডেট: ২০১৯-০১-০১ ৫:৩৭:৫৫ পিএম
বিশ্বের প্রথম ইলেকট্রিক স্পিডবোট
Walton E-plaza

আহমেদ শরীফ : বিশ্বের প্রথম ইলেকট্রিক স্পিডবোট তৈরি করলো সুইডেনের একটি কোম্পানি। এটি পুরোপুরি শব্দহীনভাবে চলতে পারে। আর এর গতি অন্য সব স্পিডবোটের মতোই। লিথিয়াম আয়ন ব্যাটারি পরিচালিত এই স্পিডবোটগুলো স্বয়ংক্রিয়ভাবেই চালু ও বন্ধ হতে পারে। নৌ পথে এ ধরনের স্পিডবোট নতুন অধ্যায় শুরু করতে যাচ্ছে বলেই দাবি করেছে নির্মাতা কোম্পানি।

সুইডিশ ইঞ্জিনিয়াররা তৈরি করেছেন বিশ্বের প্রথম ইলেকট্রিক শক্তিসম্পন্ন স্পিডবোট। এর নাম দেয়া হয়েছে ‘ক্যান্ডেলা সেভেন’। আগামী বছরেই এই স্পিডবোট বাজারে কিনতে পাওয়া যাবে বলে জানিয়েছে এর নির্মাতা কোম্পানি ক্যান্ডেলা। স্পিডবোটটির উপরের অংশ খোলা যায়। এর দৈর্ঘ্য ২৫ ফুট। এতে ৫ জন যাত্রী বসতে পারবে। নির্মাতা কোম্পানি বলছে, এটি  মূলত ৩০ নট বা ঘন্টায় ৩৪ মাইল বেগে ছুটতে পারবে, যা প্রচলিত স্পিডবোটের মতোই গতি সম্পন্ন। সর্বোচ্চ ৫৮ মাইল বেগে ছুটতে পারবে এটি। নির্মাতা কোম্পানি বিশ্বের প্রথম এই ইলেকট্রিক স্পিডবোটের প্রি-অর্ডার নেয়া শুরু করেছে।

বিশ্বের প্রথম এই ‘ই বোট’ সম্পূর্ণ নি:শব্দে ছুটে চলে বলেই দাবি করছেন নির্মাতারা। স্পিডবোটটি কার্বন ফাইবার দিয়ে তৈরি করা হয়েছে। আর হাউড্রোফয়েল দিয়ে তৈরি করায় এর কাঠামো পানির উপরে ভেসে থাকতে পারে। স্পিডবোটের সামনের ও পেছনের অংশ গুটিয়ে ফেলা যাবে। আর অগভীর পানিতে চলতে পারার বিশেষত্ব আছে এটির।

ক্যান্ডেলা স্পিডবোট এবি নামের কোম্পানিটি ২০১৪ সালে গড়ে তুলেছেন এর সিইও গুস্তাভ হাসেলসকগ। তিনি জানিয়েছেন ‘ক্যান্ডেলা সেভেন’ নামের ইলেকট্রিকে চলা বিশেষ এই স্পিডবোট তৈরির কাজ খুব ভালো ভাবেই এগুচ্ছে। তিনি আরো জানিয়েছেন, এই বিশেষ স্পিডবোটে প্রচলিত স্পিডবোটের চেয়ে ৭৫ শতাংশ জ্বালানী খরচ কমবে। এরই মাঝে ১৫০টি স্পিডবোট তৈরির অর্ডার পেয়েছে নির্মাতা কোম্পানি। সেগুলোর মাঝে প্রথম ১০টি কাস্টমারদের কাছে হস্তান্তর করা হবে আগামী বছরের শুরুতেই।

বিশেষ এই স্পিডবোটের দাম ধরা হয়েছে ১ লাখ ৯২ হাজার পাউন্ড। কোম্পানিটি জানিয়েছে, তারা আরো কম দামের ইলেকট্রিক স্পিডবোট তৈরির কাজ চালিয়ে যাচ্ছেন।



তথ্যসূত্র: ডেইলি মেইল




রাইজিংবিডি/ঢাকা/৭ ডিসেম্বর ২০১৮/ফিরোজ

ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন
       
Marcel Fridge