ঢাকা, সোমবার, ৫ কার্তিক ১৪২৬, ২১ অক্টোবর ২০১৯
Risingbd
সর্বশেষ:

আফগানিস্তানকে হারিয়ে আশা বাঁচিয়ে রাখল বাংলাদেশ

আবু হোসেন পরাগ : রাইজিংবিডি ডট কম
     
প্রকাশ: ২০১৯-০৬-২৪ ৩:০১:১৭ পিএম     ||     আপডেট: ২০১৯-০৬-২৫ ৮:২১:৫১ এএম

আবু হোসেন পরাগ : আফগানিস্তানকে ৬২ রানে হারিয়ে বিশ্বকাপের সেমিফাইনালে খেলার আশা বাঁচিয়ে রাখল বাংলাদেশ।

সংক্ষিপ্ত স্কোর

বাংলাদেশ: ৫০ ওভারে ২৬২/৭

আফগানিস্তান: ৪৭ ওভারে ২০০/১০।

দুর্দান্ত সাকিবে বাংলাদেশের জয়

মুজিব উর রহমানকে বোল্ড করে আফগানিস্তানের ইনিংস গুটিয়ে দিয়েছেন মোহাম্মদ সাইফউদ্দিন। তাতে নিশ্চিত হয়েছে বাংলাদেশের দারুণ জয়।

আরো একবার বাংলাদেশের জয়ের নায়ক সাকিব আল হাসান। ব্যাট হাতে ৫১ রানের পর হাত ঘুরিয়ে ২৯ রানে ৫ উইকেট নিয়েছেন ওয়ানডের বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার। আড়াইশ ছাড়ানো পুঁজি এনে দিতে ৮৩ রানের দারুণ ইনিংস খেলা মুশফিকুর রহিমের অবদানও কম নয়।

সাত ম্যাচে তৃতীয় জয়ে শ্রীলঙ্কাকে টপকে পয়েন্ট টেবিলের পাঁচ নম্বরে উঠেছে বাংলাদেশ। বাংলাদেশের পয়েন্ট এখন ৭। তিনটি হারের পাশাপাশি শ্রীলঙ্কার সঙ্গে বৃষ্টিতে পয়েন্ট ভাগাভাগি করেছিল মাশরাফি বিন মুর্তজার দল। বাংলাদেশের শেষ দুই ম্যাচ ভারত ও পাকিস্তানের বিপক্ষে।

মুস্তাফিজের আরেকটি

মুস্তাফিজুর রহমানের বলে উইকেটের পেছনে ক্যাচ দিয়ে ফিরেছেন দৌলত জাদরান (০)। ইনিংসে এটি মুস্তাফিজের দ্বিতীয় উইকেট।

তখন ৪৫ ওভার ৪ বলে আফগানিস্তানের সংগ্রহ ৯ উইকেটে ১৯৫ রান। সামিউল্লাহ শেনওয়ারি ৪৪ ও মুজিব উর রহমান শূন্য রানে অপরাজিত আছেন।

রশিদকে ফিরিয়ে মুস্তাফিজের প্রথম

মুস্তাফিজুর রহমানের শর্ট বল পুল করতে গিয়ে মিডউইকেটে মাশরাফি বিন মুর্তজার হাতে ক্যাচ দেন রশিদ খান (২)। ইনিংসে এটি মুস্তাফিজের প্রথম উইকেট।

তখন ৪৩ ওভার ৩ বলে আফগানিস্তানের সংগ্রহ ৮ উইকেটে ১৯১ রান। সামিউল্লাহ শেনওয়ারি ৪০ ও দৌলত জাদরান শূন্য রানে অপরাজিত আছেন।

সাকিবের পাঁচ উইকেট

সাকিব আল হাসানের আর্ম বল বেরিয়ে এসে খেলতে গিয়ে মিস করেন নজিবুল্লাহ জাদরান। স্টাম্পিং করতে ভুল করেননি মুশফিকুর রহিম।

ইনিংসে এটি সাকিবের পঞ্চম উইকেট। প্রথম বাংলাদেশি ক্রিকেটার হিসেবে বিশ্বকাপে পাঁচ উইকেট নিলেন সাকিব। বিশ্বকাপের এক আসরে সেঞ্চুরি ও পাঁচ উইকেট নেওয়া মাত্র তৃতীয় ক্রিকেটার তিনি। তার আগে এই কীর্তি গড়েছিলেন কপিল দেব (১৯৮৩) ও যুবরাজ সিং (২০১১)। যুবরাজের পর দ্বিতীয় ক্রিকেটার হিসেবে একই ম্যাচে ফিফটি ও পাঁচ উইকেট নেওয়ার কৃতিত্বও দেখালেন বাংলাদেশের অলরাউন্ডার।

নজিবুল্লাহ ২৩ রান করে ফেরার সময় ৪২ ওভার ৪ বলে আফগানিস্তানের সংগ্রহ ৭ উইকেটে ১৮৮ রান। সামিউল্লাহ শেনওয়ারি ৩৯ ও রশিদ খান শূন্য রানে অপরাজিত আছেন।

রান আউট ইকরাম

মেহেদী হাসান মিরাজের বল ব্যাটে খেলতে পারেননি সামিউল্লাহ শেনওয়ারি। আবেদন হয়েছিল এলবিডব্লিউয়ের। তাতে সাড়া দেননি আম্পায়ার।

ওদিকে নন স্ট্রাইক থেকে দৌড় শুরু করেছিলেন ইকরাম আলী খিল। শর্ট মিডউইকেট থেকে বল ধরে সরাসরি থ্রোতে স্টাম্প ভাঙেন লিটন দাস, ইকরাম আর ফিরতে পারেননি (১১)।

তখন ৩৫ ওভার ১ বলে আফগানিস্তানের সংগ্রহ ৬ উইকেটে ১৩২ রান। শেনওয়ারি ৮ ও নজিবুল্লাহ জাদরান শূন্য রানে অপরাজিত আছেন।

সাকিবের চতুর্থ শিকার আসগর

সাকিব আল হাসানের আরেকটি উইকেট। বাঁহাতি স্পিনারকে স্লগ সুইপ করতে গিয়ে বাউন্ডারিতে বদলি ফিল্ডার সাব্বির রহমানকে ক্যাচ দিয়েছেন আসগর আসগান (৩৮ বলে ২০)।

তখন ৩২ ওভার ২ বলে আফগানিস্তানের সংগ্রহ ৫ উইকেটে ১১৭ রান। সামিউল্লাহ শেনওয়ারি ৫ ও ইমরান আলী খিল শূন্য রানে অপরাজিত আছেন।

নিজের প্রথম ৭ ওভারে একটি মেডনসহ মাত্র ১০ রানে ৪ উইকেট নিয়েছেন সাকিব!



সাকিবের জোড়া উইকেট

এক ওভারে তিন বলের মধ্যে দুই উইকেট নিয়েছেন সাকিব আল হাসান। ২৯তম ওভারে বাঁহাতি স্পিনারের প্রথম বলে শর্ট এক্সট্রা কাভারে লিটন দাসের দারুণ এক নিচু ক্যাচে ফেরেন গুলবাদিন নাইব (৭৫ বলে ৩ চারে ৪৭)। তৃতীয় বলে দারুণ ডেলিভারিতে বোল্ড মোহাম্মদ নবী মারেন ডাক।

২৮ ওভার ৩ বলে আফগানিস্তানের সংগ্রহ তখন ৪ উইকেটে ১০৪ রান। আসগর আফগান ১৩ ও সামিউল্লাহ শেনওয়ারি শূন্য রানে অপরাজিত আছেন।

প্রথম চার উইকেটের তিনটিই নিয়েছেন সাকিব। তার বোলিং ফিগার ৫-১-৬-৩!

মোসাদ্দেকের শিকার হাশমতউল্লাহ

উইকেটে নেমে শুরু থেকেই রানের জন্য সংগ্রাম করছিলেন হাশমতউল্লাহ শাহিদি। তাকে ফিরিয়ে বাংলাদেশকে দ্বিতীয় উইকেট এনে দিয়েছেন মোসাদ্দেক হোসেন।

অফ স্পিনারের ফ্লাইট দেওয়া বল বেরিয়ে এসে খেলতে গিয়ে মিস করেন ব্যাটসম্যান। স্টাম্পিং করতে ভুল করেননি মুশফিকুর রহিম।

৩১ বলে হাশমতউল্লাহ করেন ১১ রান। তখন ২০ ওভার ৫ বলে আফগানিস্তানের সংগ্রহ ২ উইকেটে ৭৯ রান। গুলবাদিন নাইব ৫৯ বলে ৩৫ ও আসগর আফগান শূন্য রানে অপরাজিত আছেন।

এসেই জুটি ভাঙলেন সাকিব

প্রথম ১০ ওভারে আফগানিস্তানের উদ্বোধনী জুটি ভাঙতে পারেননি তিন পেসার। একাদশ ওভারে প্রথমবারের মতো আক্রমণে এসেই ৪৯ রানের জুটি ভেঙেছেন স্পিনার সাকিব আল হাসান।

বাঁহাতি স্পিনারের অফ স্টাম্পের বল পুল করে উড়াতে গিয়ে আকাশে তোলেন রহমত শাহ। মিড অনে সহজ ক্যাচ নেন তামিম ইকবাল।

রহমত ৩৫ বলে ৩ চারে ২৪ রান করে ফেরার সময় ১০ ওভার ৫ বলে আফগানিস্তানের সংগ্রহ ১ উইকেটে ৪৯ রান। গুলবাদিন নাইব ১৬ ও হাশমতউল্লাহ শাহিদি শূন্য রানে অপরাজিত আছেন।



পাওয়ার-প্লেতে উইকেটশূন্য বাংলাদেশ

প্রথম পাওয়ার-প্লের ১০ ওভারে আফগানিস্তানের উদ্বোধনী জুটি ভাঙতে পারেনি বাংলাদেশ। ১০ ওভার শেষে আফগানিস্তানের সংগ্রহ বিনা উইকেটে ৪৮ রান। রহমত শাহ ৩১ বলে ২৪ ও গুলবাদিন নাইব ২৯ বলে ১৫ রানে অপরাজিত আছেন।

নতুন বলে বোলিং শুরু করা মাশরাফি বিন মুর্তজা ৫ ওভারে ২৭ ও মুস্তাফিজুর রহমান ৩ ওভারে দিয়েছেন ১০ রান। ২ ওভারে ৫ রান দিয়েছেন আরেক পেসার মোহাম্মদ সাইফউদ্দিন।

নতুন বলে মাশরাফির সঙ্গী মুস্তাফিজ

নতুন বলে দুই প্রান্ত থেকে বোলিং শুরু করেছেন মাশরাফি বিন মুর্তজা ও মুস্তাফিজুর রহমান। মাশরাফি প্রথম ওভারে খরচ করেন ৪ রান। মুস্তাফিজের ওভারে লেগ বাই থেকে আসে ৪ রান।

২ ওভার শেষে আফগানিস্তানের সংগ্রহ বিনা উইকেটে ৮ রান। ওপেনিংয়ে উঠে আসা রহমত শাহ ৪ বলে ২ ও গুলবাদিন নাইব ৮ বলে শূন্য রানে অপরাজিত আছেন।

মুশফিক-সাকিবের ফিফটিতে বাংলাদেশের ২৬২

ইনিংসের শেষ বলে বোল্ড হয়েছেন মোসাদ্দেক হোসেন। ৫০ ওভারে বাংলাদেশ তুলেছে ৭ উইকেটে ২৬২ রান। এই উইকেটে এই রান বেশ ভালো পুঁজিই।

বাংলাদেশকে আড়াইশ ছাড়ানো পুঁজি এনে দিতে বড় ভূমিকা রেখেছেন মুশফিকুর রহিম। ৮৭ বলে ৮৩ রানের দুর্দান্ত ইনিংস খেলেন আগের ম্যাচের সেঞ্চুরিয়ান। এ ছাড়া সাকিব আল হাসান ৫১, তামিম ৩৬, মোসাদ্দেক ৩৫ ও মাহমুদউল্লাহ করেন ২৭ রান।

১০ ওভারে ৩৯ রানে ৩ উইকেট নিয়ে আফগানিস্তানের সেরা বোলার মুজিব উর রহমান। গুলবাদিন নাইব ৫৬ রানে ২টি, মোহাম্মদ নবী ৪৪ রানে একটি, দৌলত জাদরান ৬৪ রানে নেন একটি উইকেট। রশিদ খান ৫২ রান দিয়ে উইকেটশূন্য ছিলেন।



সেঞ্চুরি হলো না মুশফিকের

টানা দ্বিতীয় সেঞ্চুরি হলো না মুশফিকুর রহিমের। দৌলত জাদরানের বলে ফিরলেন সেঞ্চুরি থেকে ১৭ রান দূরে থাকতে।

ডানহাতি পেসারকে ছক্কায় উড়াতে চেয়েছিলেন ডানহাতি ব্যাটসম্যান। তবে টাইমিং হয়নি ঠিকমতো। এক্সট্রা কাভারে ক্যাচ নেন মোহাম্মদ নবী।

৮৭ বলে ৪ চার ও এক ছক্কায় ৮৩ রানের দুর্দান্ত ইনিংসটি সাজান মুশফিক। তার বিদায়ের সময় ৪৮ ওভার ৩ বলে বাংলাদেশের সংগ্রহ ৬ উইকেটে ২৫১ রান। মোসাদ্দেক হোসেন ২৬ ও মোহাম্মদ সাইফউদ্দিন শূন্য রানে অপরাজিত আছেন।

রান তোলার তাড়ায় ফিরলেন মাহমুদউল্লাহ

রান তোলার তাড়ায় আউট হয়েছেন মাহমুদউল্লাহ। তার বিদায়ে ভেঙেছে ৫৬ রানের চতুর্থ উইকেট জুটি।

গুলবাদিন নাইবের স্লোয়ার ডাউন দ্য উইকেটে এসে উড়াতে চেয়েছিলেন ডানহাতি ব্যাটসম্যান। টাইমিং হয়নি ঠিকমতো, ক্যাচ উঠে যায় মিড উইকেটে।

৩৮ বলে ২ চারে মাহমুদউল্লাহ করেন ২৭ রান। তার বিদায়ের সময় ৪৩ ওভারে বাংলাদেশের সংগ্রহ ৫ উইকেটে ২০৭ রান। মুশফিকুর রহিম ৭১ বলে ৬৬ ও মোসাদ্দেক হোসেন শূন্য রানে অপরাজিত আছেন।

বাংলাদেশের দুইশ

৪০ ওভার ৫ বলে দলীয় দুইশ রান স্পর্শ করেছে বাংলাদেশ। ৪১ ওভার শেষে বাংলাদেশের সংগ্রহ ৪ উইকেটে ২০০ রান। মুশফিকুর রহিম ৬৮ বলে ৬৪ ও মাহমুদউল্লাহ ২৯ বলে ২২ রানে অপরাজিত আছেন। দুজন ৪৯ রানের জুটিতে অবিচ্ছিন্ন আছেন।

ছক্কায় ফিফটি মুশফিকের

দৌলত জাদরানকে লং অনের ওপর দিয়ে ছক্কা হাঁকালেন মুশফিকুর রহিম। এই ছক্কায় পূর্ণ হলো তার ফিফটি, ৫৪ বলে। ৭৩ বল পর এটি বাংলাদেশের প্রথম বাউন্ডারি, আর ইনিংসের প্রথম ছক্কা।

৩৭ ওভার শেষে বাংলাদেশের সংগ্রহ ৪ উইকেটে ১৭২ রান। মুশফিক ৫৯ বলে ৫২ ও মাহমুদউল্লাহ ১৪ বলে ৭ রানে অপরাজিত আছেন।

 

টিকলেন না সৌম্য

ওপেনিং থেকে আজ পাঁচ নম্বরে নেমে টিকলেন না সৌম্য সরকার। মুজিব উর রহমানের পরপর দুই ওভারে দুই উইকেট হারিয়ে বিপদে আছে বাংলাদেশ।

অফ স্পিনারকে ফ্লিক করতে গিয়ে বলের লাইন মিস করেন সৌম্য। বল আঘাত হানে তার প্যাডে। এলবিডব্লিউয়ের আবেদনে আঙুল দেন দেন আম্পায়ার। রিভিউ নিয়েও রক্ষা হয়নি বাঁহাতি ব্যাটসম্যানের।

১০ বলে সৌম্য করেন ৩ রান। তার বিদায়ের সময় ৩২ ওভারে বাংলাদেশের সংগ্রহ ৪ উইকেটে ১৫১ রান। মুশফিকুর রহিম ৪৩ বলে ৩৮ ও মাহমুদউল্লাহ শূন্য রানে অপরাজিত আছেন।

ফিফটির পরই ফিরলেন সাকিব

ফিফটির পর ইনিংস আর বড় করতে পারলেন না সাকিব আল হাসান। আক্রমণে ফিরে সাকিবকে ফিরিয়ে ৬১ রানের তৃতীয় উইকেট জুটি ভেঙেছেন মুজিব উর রহমান।

অফ স্পিনারের রাউন্ড দ্য উইকেটে করা লেংথ বলের লাইন মিস করে এলবিডব্লিউ হন সাকিব। এবার আর রিভিউ নেননি বাঁহাতি ব্যাটসম্যান।

৬৯ বলে একটি চারে সাকিব করেন ৫১ রান। তার বিদায়ের সময় ২৯ ওভার ২ বলে বাংলাদেশের সংগ্রহ ৩ উইকেটে ১৪৩ রান। মুশফিকুর রহিম ৩২ ও সৌম্য সরকার শূন্য রানে অপরাজিত আছেন।

সাকিবের আরেকটি ফিফটি

বিশ্বকাপে আরেকটি ফিফটি করলেন সাকিব আল হাসান। বাঁহাতি ব্যাটসম্যান ৬৬ বলে পঞ্চাশ স্পর্শ করতে মারেন একটি চার।

এবারের বিশ্বকাপের সর্বোচ্চ রান সংগ্রাহক সাকিবের ষষ্ঠ ম্যাচে এটি পঞ্চম পঞ্চাশ ছোঁয়া ইনিংস। এর মধ্যে আছে টানা দুটি সেঞ্চুরি।

২৮ ওভার শেষে বাংলাদেশের সংগ্রহ ২ উইকেটে ১৩৯ রান। সাকিব ৬৬ বলে ৫০ ও মুশফিকুর রহিম ৩২ বলে ৩০ রানে অপরাজিত আছেন।



সাকিব-মুশফিক জুটির পঞ্চাশ

বিশ্বকাপে আরেকটি পঞ্চাশ ছোঁয়া জুটি গড়লেন সাকিব আল হাসান ও মুশফিকুর রহিম। এবার তাদের তৃতীয় উইকেট জুটির পঞ্চাশ ছুঁয়েছে ৪৮ বলে।

২৫ ওভার শেষে বাংলাদেশের সংগ্রহ ২ উইকেটে ১৩২ রান। সাকিব ৫৭ বলে ৪৮ ও মুশফিক ২৩ বলে ২৫ রানে অপরাজিত আছেন।

বিশ্বকাপে সাকিবের এক হাজার

প্রথম বাংলাদেশি ক্রিকেটার হিসেবে বিশ্বকাপে এক হাজার রান করলেন সাকিব আল হাসান। মাইলফলক ছুঁতে আজ সাকিবের দরকার ছিল ৩৫ রান। দৌলত জাদরানের বলে সিঙ্গেল নিয়ে সাকিব ছুঁয়ে ফেলেন মাইলফলক।

২১ ওভার শেষে বাংলাদেশের সংগ্রহ ২ উইকেটে ১০৩ রান। সাকিব ৪৫ বলে ৩৫ ও মুশফিকুর রহিম ১১ বলে ৯ রানে অপরাজিত আছেন।

রিভিউ নিয়ে বেঁচে গেলেন সাকিব

আগের ওভারের শেষ বলে ফিরেছিলেন তামিম ইকবাল। পরের ওভারের প্রথম বলে আউট হতে পারতেন সাকিব আল হাসানও। তবে রিভিউ নিয়ে বেঁচে গেছেন বাঁহাতি ব্যাটসম্যান।

রশিদ খানের মিডল স্টাম্পে পিচ করা বলটা স্কিড করে আঘাত হানে সাকিবের প্যাডে। মাঠের আম্পায়ার দেন এলবিডব্লিউ। সাকিব চান রিভিউ। বল ট্র্যাকিংয়ে দেখা যায়, পিচিং ও ইমপ্যাক্ট ঠিক থাকলেও বল স্টাম্প মিস করে যেত। পাল্টে যায় মাঠের আম্পায়ারের সিদ্ধান্ত।তখন ২৬ রানে ব্যাট করছিলেন সাকিব।

ভুল শটে ফিরলেন তামিম

আগের বলেই মোহাম্মদ নবীকে চার মেরেছিলেন তামিম ইকবাল। বাঁহাতি ব্যাটসম্যান ভুল শটে আউট হলেন অফ স্পিনারের পরের বলেই।

রাউন্ড দ্য উইকেটে করা নবীর বলটা খেলার দরকার ছিল ফ্রন্টফুটে। তামিম খেলেন ব্যাকফুটে, উড়ে যায় মিডল স্টাম্পের বেলস।

৫৩ বলে ৪ চারে ৩৬ রান করেন তামিম। ভাঙে ৫৯ রানের দ্বিতীয় উইকেট জুটি। তার বিদায়ের সময় ১৭ ওভারে বাংলাদেশের সংগ্রহ ২ উইকেটে ৮২ রান। সাকিব আল হাসান ২৬ ও মুশফিকুর রহিম শূন্য রানে অপরাজিত আছেন।



ওয়ার্নারকে ছাড়িয়ে আবার শীর্ষে সাকিব

এবারের বিশ্বকাপে সর্বোচ্চ রান সংগ্রাহকের তালিকায় আবারো শীর্ষে উঠে গেলেন সাকিব আল হাসান। ডেভিড ওয়ার্নারকে (৪৪৭) পেছনে ফেলতে আজ সাকিবের দরকার ছিল ২৩ রান। গুলবাদিন নাইবের বলে সিঙ্গেল নিয়ে সাকিব ছাড়িয়ে যান অস্ট্রেলিয়ান ব্যাটসম্যানকে। আজ ৩৫ রান করতে পারলে বিশ্বকাপে এক হাজার রান পূর্ণ হবে সাকিবের।

সাকিব-তামিম জুটির পঞ্চাশ

গুলবাদিন নাইবের শর্ট বলটা পুল করে মিড উইকেট দিয়ে চার মারলেন তামিম ইকবাল। এই চারে পূর্ণ হলো দ্বিতীয় উইকেট জুটির পঞ্চাশ, ৫৮ বলে।

১৪ ওভার শেষে বাংলাদেশের সংগ্রহ ১ উইকেটে ৭৩ রান। তামিম ৪০ বলে ৩০ ও সাকিব আল হাসান ২৭ বলে ২৩ রানে অপরাজিত আছেন।

পাওয়ার প্লেতে বাংলাদেশের ৪৪/১

প্রথম পাওয়ার প্লেতে আফগানিস্তানের স্পিনারদের বিপক্ষে খুব একটা সুবিধা করতে পারেননি বাংলাদেশের ব্যাটসম্যানরা। লিটন দাস ভালো শুরুর ইঙ্গিত দিলেও বেশিক্ষণ টেকেননি। ১০ ওভার শেষে ১ উইকেট হারিয়ে বাংলাদেশের সংগ্রহ ৪৪ রান। তামিম ইকবাল ২৯ বলে ১৫ ও সাকিব আল হাসান ১৪ বলে ১০ রানে অপরাজিত আছেন।

১০ ওভারের ৮টিই করেছেন দুই স্পিনার মুজিব উর রহমান ও মোহাম্মদ নবী। লিটনের উইকেটটা নিয়েছেন অফ স্পিনার মুজিব। ৫ ওভারে তিনি দিয়েছেন মাত্র ১৭ রান।

পারলেন না লিটন

ওপেনিংয়ে নামার সুযোগটা কাজে লাগাতে পারলেন না লিটন দাস। মুজিব উর রহমানের বলে ডানহাতি ব্যাটসম্যান আউট হয়ে গেলেন শুরুতেই।

অফ স্পিনারের ফুল লেংথ বলে শট খেলেছিলেন লিটন। শর্ট কাভারে নিচু ক্যাচ নেন হাশমতউল্লাহ শাহিদি। টিভি আম্পায়ার বেশ কয়েকবার রিপ্লে দেখার পর জানান সিদ্ধান্ত। মাঠের আম্পায়ারের ‘সফট সিগন্যাল’ আউট বদলানোর মতো প্রমাণ খুঁজে পাননি টিভি আম্পায়ার।

১৭ বলে ২ চারে লিটন করেন ১৬ রান। তার বিদায়ের সময় ৪ ওভার ২ বলে বাংলাদেশের সংগ্রহ ১ উইকেটে ২৩ রান। তামিম ইকবাল ৫ ও সাকিব আল হাসান শূন্য রানে অপরাজিত আছেন।



তামিমের সঙ্গে ওপেনিংয়ে লিটন

টুর্নামেন্টে আগের সব ম্যাচে তামিম ইকবালের সঙ্গে ব্যাটিং ওপেন করতে নেমেছিলেন সৌম্য সরকার। তবে আজ তামিমের সঙ্গে ওপেন করতে নেমেছেন লিটন দাস। আগের দুই ম্যাচে লিটন ব্যাট করেছিলেন পাঁচ নম্বরে।

আফগানিস্তানের দুই পরিবর্তন

বাংলাদেশের মতো আফগানিস্তানও একাদশে দুটি পরিবর্তন এনেছে আজ। ভারতের বিপক্ষে খেলা ম্যাচ থেকে বাদ পড়েছেন হজরতউল্লাহ জাজাই ও আফতাব আলম। দলে ফিরেছেন দৌলত জাদরান। টুর্নামেন্টে প্রথমবারের মতো সুযোগ পেয়েছেন সামিউল্লাহ শেনওয়ারি।

আফগানিস্তান একাদশ

সামিউল্লাহ শেনওয়ারি, গুলবাদিন নাইব (অধিনায়ক), রহমত শাহ, হাশমতউল্লাহ শাহিদি, আসগর আফগান, মোহাম্মদ নবী, নজিবুল্লাহ জাদরান, রশিদ খান, ইকরাম আলী খিল, দৌলত জাদরান, মুজিব উর রহমান।

ফিরলেন মোসাদ্দেক-সাইফউদ্দিন

চোটের কারণে আগের ম্যাচে খেলতে পারেননি মোসাদ্দেক হোসেন ও মোহাম্মদ সাইফউদ্দিন। চোট কাটিয়ে আজ একাদশে ফিরেছেন এই দুজন। তাদের জায়গায় অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে সুযোগ পেয়ে ভালো করতে পারেননি সাব্বির রহমান ও রুবেল হোসেন। দুজনই আজ বাদ পড়েছেন।

বাংলাদেশ একাদশ

তামিম ইকবাল, সৌম্য সরকার, সাকিব আল হাসান, মুশফিকুর রহিম, লিটন দাস, মাহমুদউল্লাহ, মোসাদ্দেক হোসেন, মাশরাফি বিন মুর্তজা (অধিনায়ক), মেহেদী হাসান মিরাজ, মোহাম্মদ সাইফউদ্দিন, মুস্তাফিজুর রহমান।

টস

বৃষ্টির কারণে টস হয়েছে নির্ধারিত সময়ের ১০ মিনিট পরে। টস জিতে বোলিং নিয়েছেন আফগানিস্তান অধিনায়ক গুলবাদিন নাইব। সাউদাম্পটনের রোজ বোলে ম্যাচ শুরু বাংলাদেশ সময় বিকেল তিনটা ৪০ মিনিটে।

বৃষ্টিতে টস হতে দেরি

সাউদাম্পটন থেকে রাইজিংবিডি’র ক্রীড়া প্রতিবেদক ইয়াসিন হাসান জানিয়েছেন, কালো মেঘে ঢেকে আছে পুরো সাউদাম্পটন। সাত সকালে রৌদ্রজ্জ্বল আবহাওয়া থাকলেও এখন গুমোট পরিবেশ। স্থানীয় সময় সকাল ১০টায় টস হওয়ার কথা ছিল। কিন্তু বেরসিক বৃষ্টির বাগড়ায় টস বিলম্ব হচ্ছে।

আবহাওয়ার পূর্বাভাসে বৃষ্টির কোনো সম্ভাবনা ছিল না। কিন্তু সোমবার সকালের পূর্বাভাস অনুযায়ী দুপুর ১২টা পর্যন্ত ঝিরিঝিরি বৃষ্টি হবে। এরপর সাদা ফকফকে আকাশ। সন্ধ্যার পর আবার বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে।

নকআউটের শুরুতে বাংলাদেশের আফগান পরীক্ষা

আফগানিস্তানের বিশ্বকাপের সেমিফাইনাল খেলার সম্ভাবনা শেষ হয়ে গেছে আগেই। প্রথম ছয় ম্যাচের সবগুলোই হেরেছে আফগানরা। গতকাল তাদের সঙ্গে বিদায় নেওয়ার তালিকায় নাম লিখিয়েছে দক্ষিণ আফ্রিকায়ও। বাংলাদেশ দুটি ম্যাচ জিতে সেমিফাইনালের দৌড়ে এখনো টিকে আছে।

বাংলাদেশের জন্য আজ থেকে টুর্নামেন্টটা অনেকটা নকআউট পর্ব। সেমিফাইনালে যাওয়ার আশা বাঁচিয়ে রাখতে হলে বাকি তিন ম্যাচে বাংলাদেশের সামনে জয় ছাড়া কোনো বিকল্প নেই। যার শুরুটা হচ্ছে আজ আফগানিস্তানের বিপক্ষে ম্যাচ দিয়ে। এরপর আছে এশিয়ার অন্য দুই প্রতিপক্ষ ভারত ও পাকিস্তান।

বাংলাদেশ-আফগানিস্তান এর আগে ওয়ানডেতে মুখোমুখি হয়েছে সাতবার। এর মধ্যে চারবার জিতেছে বাংলাদেশ, বাকি তিনবার আফগানিস্তান। সবশেষ দেখায় এশিয়া কাপে আফগানদের হারিয়েছিল বাংলাদেশ। তবে আফগানিস্তান বিশ্বকাপে তাদের সবশেষ ম্যাচে এই মাঠেই শক্তিশালী ভারতকে কাঁপিয়ে দিয়েছে স্পিন দিয়ে। আজ বাংলাদেশকে তাই সতর্ক থাকতে হবে।

 

 

রাইজিংবিডি/ঢাকা/২৪ জুন ২০১৯/পরাগ

ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন