ঢাকা, শুক্রবার, ১৫ ফাল্গুন ১৪২৬, ২৮ ফেব্রুয়ারি ২০২০
Risingbd
সর্বশেষ:

বড় সিরিজের আগে অগোছালো বাংলাদেশ

ইয়াসিন : রাইজিংবিডি ডট কম
     
প্রকাশ: ২০১৯-১০-২৮ ১০:১৬:১৭ পিএম     ||     আপডেট: ২০১৯-১০-২৯ ১০:২১:৪৫ এএম

‘আমি যখন বোর্ডে আসলাম সবার একটা চাওয়া- যে কোনোভাবে ভারতের সঙ্গে একটা টেস্ট ম্যাচ খেলার ব্যবস্থা করে দিন। আমি চেষ্টা করলাম। তাতে সফলও হলাম। এরপর সবাই চাইল একটা দ্বিপাক্ষিক সিরিজ হলে ভালো হয়। সেটারও ব্যবস্থা করলাম। কত বড় সফর সামনে। আর এই সফরে না যেতে ষড়যন্ত্র হচ্ছে….।’

ক্রিকেটারদের আন্দোলনের পরদিন বোর্ড সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন কথাগুলো বলছিলেন আর রাগে গজ গজ করছিলেন। নাজমুল হাসানের মুখের অবয়ব দেখে বোঝা যাচ্ছিল ভারত সফরের গুরুত্ব এবং তা ‘বাতিলের ষড়যন্ত্রে’ কতটা ক্ষিপ্ত তিনি। ক্রিকেটারদের মানিয়ে, দাবি-দাওয়া মেনে তাদের মাঠে ফিরিয়েছেন বোর্ড প্রধান। কিন্তু বড় সিরিজের আগে পুরোই অগোছালো বাংলাদেশ দল। ড্রেসিংরুমে কান পাতলেই শোনা যায় অস্থিরতার কথা। 

একাধিক গণমাধ্যমে খবর এসেছে, ভারত সফরে এখনো অনিশ্চিত সাকিব আল হাসান। বাংলাদেশ অধিনায়কের নেই অসুস্থতা, নেই কোনো চোট। তাহলে এখনো কেন সাকিবকে নিয়ে অনিশ্চয়তায়? সেই উত্তর দিতে পারেননি ক্রিকেট পরিচালনা বিভাগের চেয়ারম্যান আকরাম খান, ‘সাকিবের ব্যাপারে অফিসিয়ালি কিছু আসেনি।’

বুধবার ভারত সফরের উদ্দেশে দিল্লির বিমান ধরবে বাংলাদেশ দল। অথচ দলের অধিনায়ক যাবে কি না, তা সোমবার পর্যন্তও নিশ্চিত করতে পারেননি দল সংশ্লিষ্ট কেউই। 

ভারতে তিনটি টি-টোয়েন্টি ও দুটি টেস্ট খেলবে বাংলাদেশ। এরই মধ্যে টি-টোয়েন্টি দল ঘোষণা করেছে বাংলাদেশ। তামিম ইকবাল ও মোহাম্মদ সাইফউদ্দিন না থাকায় নিশ্চিতভাবে দলে পরিবর্তন আসছে। কিন্তু বোর্ড নতুন করে দল ঘোষণার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। সেই তালিকায় সাকিব আছে কি না, তা জানা যাবে মঙ্গলবার দুপুরে।

আকরাম খান বলেছেন, ‘আপনারা টি-টোয়েন্টি দলের জন্য অপেক্ষা করছেন। সেখানে কিছু পরিবর্তন আসছে। তামিম যাচ্ছে না। আমরা চিন্তা-ভাবনা করে নতুন দলটা দিচ্ছি। সাকিবেরটাও আমরা কালকে বলব।’

ভারত সফরের ক্যাম্প হলো চার দিন। প্রথম দুদিন অনুশীলনের পর শেষ দুদিন দুটি প্রস্তুতি টি-টোয়েন্টি ম্যাচ। অসুস্থতায় ক্যাম্পের প্রথম দিন ছিলেন না সাকিব। পরদিন এসে হালকা ব্যাটিং অনুশীলন করে সাকিব ফিরেছেন বাসায়। শেষ দুদিন তার দেখা নেই। বোর্ডের অনেকেই জানেন না সাকিব কোথায়, কেনই বা অনুশীলনে নেই।

ক্রিকেট পরিচালনা বিভাগের চেয়ারম্যান হিসেবে জানার কথা আকরাম খানের। কিন্তু নিজের অসহায়ত্বের কথা লুকাননি জাতীয় দলের সাবেক অধিনায়ক, ‘আমাদের সঙ্গে সাকিবের যোগাযোগ হয়নি। কোচের সঙ্গে হয়তো হয়েছে।  সভাপতির সঙ্গে হয়েছে কি না জানি না।’

চলমান অস্থিরতার মধ্যে কিছুটা সুখবর পেয়েছেন জাতীয় দলের বাইরে থাকা ক্রিকেটাররা। জাতীয় লিগে ক্রিকেটারদের ম্যাচ ফি দ্বিগুণ করেছে বিসিবি। প্রথম স্তরের খেলোয়াড়দের ৩৫ হাজার থেকে ৬০ হাজার এবং দ্বিতীয় স্তরের খেলোয়াড়দের ২৫ হাজার থেকে ম্যাচ ফি ৫০ হাজার করা হয়েছে। এমন অস্থিরতার মধ্যে বোর্ডের এমন সিদ্ধান্তে পরিবেশ কিন্তু শীতল হয়নি।  সাকিব ইস্যুতে বিসিবি এখনো থমথমে।

তবে ‘অস্থিরতা’ শব্দটা ব্যবহার করতে নারাজ বিসিবি পরিচালক ও মিডিয়া কমিটির চেয়ারম্যান জালাল ইউনুস। সংকট শব্দে তার আপত্তি নেই। কিন্তু এমন সংকটের জন্য বিসিবি প্রস্তুত ছিল না মোটেও। বিশেষ করে ক্রিকেটারদের আন্দোলনের পরপরই সাকিবের গ্রামীণফোনের সঙ্গে চুক্তি এবং তার অনুশীলন ও প্রস্তুতি ম্যাচে না আসা; কোনোভাবেই মানতে পারছে না বিসিবি। পারফরমার সাকিবকে কখনো কখনো ছাড় দিয়েছে বিসিবি। সেই ‘ফলই’ হয়তো এখন ভোগ করছে বোর্ড!  

যে কোনো সফরের আগে ক্রিকেট পরিচালনা বিভাগের কার্যক্রম থাকে চোখে পড়ার মতো। দীর্ঘ সফরের আগে সবকিছু গুছিয়ে নেওয়া, ক্রিকেটারদের জার্সি, কিট, ব্যাগ এবং আনুষাঙ্গিক সবকিছু সরবরাহ করার দায়িত্বটা তাদের। অথচ ভারত সফরের আগে তেমন তোড়জোর নেই। থাকবে কী করে, কোন ক্রিকেটাররা দিল্লির ফ্লাইট ধরবেন, সেটাই যে এখনো নিশ্চিত নয়!

বুধবার ভারতে উড়াল দেওয়ার আগে মঙ্গলবার অধিনায়কের গণমাধ্যমের মুখোমুখি হওয়ার কথা ছিল। সিরিজ পূর্ববর্তী পরিকল্পনা, লক্ষ্য নিয়ে কথা বলার কথা। অথচ মঙ্গলবার জানা যাবে কারা সফরে যাবে, আর কারা যাবে না! এমন বড় সফরের আগে অগোছালো বাংলাদেশ মাঠে কেমন পারফর্ম করবে, তা বোঝা যাচ্ছে আগেভাগেই!


ঢাকা/ইয়াসিন/পরাগ

     
 
রাইজিংবিডি স্পেশাল ভিডিও