ঢাকা, মঙ্গলবার, ২৪ চৈত্র ১৪২৬, ০৭ এপ্রিল ২০২০
Risingbd
সর্বশেষ:

ভারতীয় নির্বাচনে গুজব ছড়ানো ঠেকাতে হোয়াটসঅ্যাপের ‘চেকপয়েন্ট’

মোখলেছুর রহমান : রাইজিংবিডি ডট কম
     
প্রকাশ: ২০১৯-০৪-০৩ ৫:৩৩:৫৮ পিএম     ||     আপডেট: ২০১৯-০৪-০৩ ৭:৫৫:৫০ পিএম

মোখলেছুর রহমান : ভারতের আসন্ন নির্বাচনের সময় হোয়াটসঅ্যাপের মাধ্যমে যেন কেউ গুজব ছড়াতে না পারে, তার জন্য নতুন একটি কৌশল প্রণয়ন করেছে ফেসবুকের মালিকানাধীন এই মেসেজিং অ্যাপটি।

কোম্পানিটি ভারতে তাদের ২০০ মিলিয়ন ব্যবহারকারীর জন্য ‘চেকপয়েন্ট’ নামে একটি নতুন টিপ লাইন ফিচার চালু করেছে, যেখানে ব্যবহারকারীরা যেকোনো বার্তা, ছবি বা ভিডিও পাঠাতে পারবে সেগুলোর সত্যতা যাচাই করার জন্য। ‘ভেরিফিকেশন সেন্টার’ তাৎক্ষণিকভাবে ব্যবহারকারীদেরকে জানিয়ে দিবে যে তাদের কাছে আসা বার্তাটি সত্য, মিথ্যা, বিভ্রান্তিকর বা বিতর্কিত কিনা।

আর এ উদ্দেশে হোয়াটসঅ্যাপ ভারতীয় একটি স্টার্টআপের সঙ্গে অংশীদারিত্বের ভিত্তিতে ‘চেকপয়েন্ট’ নামে একটি টিপ লাইন ফিচার তৈরি করেছে। এটি ইংরেজি এবং ভারতীয় চারটি ভাষা- হিন্দি, তেলেগু, বাংলা এবং মালয়ালাম এ পাওয়া যাবে।

নির্বাচনের সময় ভুয়া সংবাদ এবং গুজব ছড়ানোর বিরুদ্ধে তাদের চলমান প্রচেষ্টাকে বিস্তৃত করার জন্য নতুন এই পরিষেবাটি কার্যকর ভূমিকা রাখবে বলে আশা করছে হোয়াটসঅ্যাপ। এছাড়াও সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমগুলো গুজব এবং হ্যাকারদের মোকাবেলা করতে পারে কিনা তাও বুঝা যাবে এই নতুন পরিষেবাটি কতটুকু সফল হলো তার ভিত্তিতে।

শুধু হোয়াটসঅ্যাপ নয়, ফেসবুক এবং টুইটার সহ অন্যান্য সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমগুলোও তাদের প্ল্যাটফর্ম ব্যবহারে করে আসন্ন ভারতীয় নির্বাচনে গুজব এবং ভুল তথ্য ছড়ানো ঠেকাতে  বিভিন্ন পদক্ষেপ নিয়েছে। তারা ইতিমধ্যেই বার্তা ফরোয়ার্ডিং সীমিতকরণ, ফেক অ্যাকাউন্ট নিষিদ্ধকরণ, রাজনৈতিক বিজ্ঞাপন লেবেল দেয়া এবং সত্য যাচাইকরণ ওয়েবসাইটের সঙ্গে অংশীদারিত্ব তৈরি করা সহ বেশ কিছু পদক্ষেপ নিয়েছে।

হোয়াটসঅ্যাপ আশা করছে, তাদের এই টিপ লাইন উদ্যোগ নির্বাচনে নিরাপত্তা রক্ষায় অবদান রাখতে সহায়তা করবে এবং জনগণকে যেকোনো ধরনের গুজব শেয়ার করতে বাধা দেবে যার আসলে কোনো ভিত্তি নেই।

তথ্যসূত্র : সিএনএন

 

 

 

রাইজিংবিডি/ঢাকা/৩ এপ্রিল ২০১৯/ফিরোজ