ঢাকা, সোমবার, ২২ আষাঢ় ১৪২৭, ০৬ জুলাই ২০২০
Risingbd
সর্বশেষ:

রাজুকে মনোনয়ন বঞ্চিতদের সমর্থন

নজরুল মৃধা : রাইজিংবিডি ডট কম
     
প্রকাশ: ২০১৯-০৯-০৮ ৫:০২:০০ পিএম     ||     আপডেট: ২০১৯-০৯-০৮ ৫:০২:০০ পিএম

নিজস্ব প্রতিবেদক, রংপুর : এইচ এম এরশাদের মৃত্যুতে শূন্য রংপুর-৩ (সদর) আসনের উপনির্বাচনে আওয়ামী লীগের প্রার্থী সাবেক ছাত্র নেতা ও রংপুর জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট রেজাউল করিম রাজুকে সমর্থন দিয়েছেন দলের মনোনয়ন বঞ্চিতরা।

আওয়ামী লীগের সংসদীয় বোর্ড ও স্থানীয় সরকার মনোনয়ন বোর্ডের যৌথ সভায় রাজুকে মনোনয়ন দেয়ার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়। কেন্দ্রের সিদ্ধান্তে মনোনয়ন বঞ্চিত প্রার্থী ও আওয়ামী লীগের অধিকাংশ নেতাকর্মী খুশি হলে তাদের মনে শঙ্কা রয়েছে, শেষ পর্যন্ত আসনটি জাতীয় পার্টিকে ছেড়ে দেয়া হতে পারে।

জাতীয় পার্টিতে দেবর-ভাবির দ্বন্দ্ব মিটে যাওয়ায় নেতাকর্মীরা আশায় আছে, শেষ পর্যন্ত এখানে জোটগত নির্বাচন হবে। রিটা রহমানকে বিএনপির প্রার্থী করায় স্থানীয় বিএনপির অনেক নেতাকর্মী খুশি হতে পারেননি।

রাজু উপনির্বাচনে নৌকার প্রার্থী হওয়ায় স্বস্তি প্রকাশ করেছেন স্থানীয় নেতা-কর্মীরা। অনেকে মিষ্টিমুখ করেছেন।

আওয়ামী লীগের মনোনয়ন বঞ্চিত জেলা আওয়ামী লীগের দপ্তর সম্পাদক তৌহিদুর রহমান টুটুল বলেন, রংপুর সদর আসনের উপনির্বাচনে দলের সভাপতি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা যোগ্য প্রার্থী দিয়েছেন। তারা রাজুর পক্ষে মাঠে কাজ করবেন। দীর্ঘ দিন থেকে এই আসনের ভোটাররা নৌকা প্রতীকে ভোট দিতে পারছে না। এবার নৌকায় ভোট দেবে। এটা তাদের বড় পাওয়া।

শেষ পর্যন্ত আসটি যদি বিগত দিনের মতো জাতীয় পার্টিকে ছেড়ে দেয়া হয়,  সেই ক্ষেত্রে আপনাদের ভূমিকা কী হবে- এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন,  এর আগেও এই আসনে জোটগত নির্বাচন হয়েছে। দলের প্রধান যদি মনে করেন, এই আসন জাপাকে ছেড়ে দেয়া উচিত, সেখানে দলের সিদ্ধান্তই মেনে চলতে হবে।

মহানগর আওয়ামী লীগ নেতা, মেট্রোপলিটন চেম্বারের সভাপতি রেজাউল ইসলাম মিলন বলেন, ‘‘প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা যাকে মনোনয়ন দিয়েছেন, তিনিই যোগ্য প্রার্থী। আমরা তার পক্ষে নৌকার বিজয়ের জন্য কাজ করব।  জাপাকে আসন ছেড়ে দেয়া হলে নেতাকর্মীরা আশাহত হবেন ঠিকই, তবে কেন্দ্রের সিদ্ধান্ত মেনে চলতে হবে।’’

রংপুর সদর আসনে উপনির্বাচনে অংশ নেয়ার জন্য ১৬ জন দলীয় ফরম সংগ্রহ করেন। শনিবার রাতে আওয়ামী লীগের সংসদীয় সভায় রেজাউল করিম রাজুকে দলীয় মনোনয়ন দেয়া হয়।

গত ১৪ জুলাই জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান এইচ এম এরশাদের মৃত্যু আসনটি শূন্য ঘোষণা করা হয়। নির্বাচন কমিশন ঘোষিত তফসিল অনুযায়ী ৫ অক্টোবর ভোটগ্রহণ হবে। মনোনয়ন দাখিলের শেষ তারিখ ৯ সেপ্টেম্বর। যাচাই-বাছাই ১১ সেপ্টেম্বর, প্রার্থিতা প্রত্যাহার ১৬ সেপ্টেম্বর।

রংপুর সদর উপজেলা ও সিটি কর্পোরেশন নিয়ে গঠিত এ আসনের মোট ভোটার ৪ লাখ ৪২ হাজার ৭২ জন।


রাইজিংবিডি/রংপুর/৮ সেপ্টেম্বর ২০১৯/নজরুল মৃধা/বকুল

       
 

আরো খবর জানতে ক্লিক করুন : রংপুর, রংপুর বিভাগ