ঢাকা, রবিবার, ১০ ভাদ্র ১৪২৬, ২৫ আগস্ট ২০১৯
Risingbd
সর্বশেষ:

লক্ষ্মীপুরের মাঠে মাঠে সয়াবিনের আবাদ

ফরহাদ হোসেন : রাইজিংবিডি ডট কম
     
প্রকাশ: ২০১৮-০৩-১১ ২:৪৪:০০ পিএম     ||     আপডেট: ২০১৮-০৫-১৩ ৭:০৭:২২ পিএম
লক্ষ্মীপুরের মাঠে মাঠে সয়াবিনের আবাদ
Walton E-plaza

লক্ষ্মীপুর সংবাদদাতা: লক্ষ্মীপুরের বিস্তীর্ণ মাঠজুড়েই এখন সয়াবিনের আবাদ। চারদিকে তাকালেই চোখে পড়ে গ্রামের পর গ্রাম সয়াবিন ফলানো সবুজের বিস্তার।

সয়াবিন খেতের পরিচর্যায় চাষিরা এখন ব্যস্ত সময় কাটাচ্ছেন। এবারও বাম্পার ফলন হবে বলে প্রত্যাশা তাদের।

জেলা কৃষি অধিদপ্তর সূত্রে জানা যায়, অনুকূল আবহাওয়া ও উর্বর মাটির কারণে এ অঞ্চলে সয়াবিনের বাম্পার ফলন হয়ে থাকে। দেশের উৎপাদিত প্রায় ৮০ ভাগ সয়াবিন এ জেলায় উৎপাদিত হয়। এখন রবি মৌসুম। এই মৌসুমই সয়াবিন আবাদের উপযুক্ত সময়।

চলতি মৌসুমে সয়াবিন আবাদের সময় জমি স্যাঁতসেঁতে থাকায় চাষিরা কাঙ্ক্ষিত আবাদ করতে পারেনি। ফলে এবার জেলার সয়াবিন আবাদের লক্ষ্যমাত্রা পূরণ হয়নি। জেলার রায়পুর, রামগঞ্জ, কমলনগর, রামগতি ও লক্ষ্মীপুর সদর উপজেলার চাষিরা আমন ধান কাটার পরই সয়াবিন আবাদের প্রস্তুতি নেন। চলতি মৌসুমে ফেব্রুয়ারি মাসেই সয়াবিনের বীজ বোনা শেষ হয়েছে। এখন গাছ বেড়ে উঠছে, চলছে পরিচর্যা। এখানকার চাষিরা ভালো ফলন ঘরে তুলতে খেতে অবিরাম সময় দিচ্ছেন।
 


জানা যায়, জেলার রায়পুর উপজেলার চরলক্ষ্মী, চর আবাবিল, চর বংশি, রামগতি উপজেলার চর আবদুল্লাহ, চরগাজি, চর লক্ষ্মী, চর আলেকজান্ডার, চর বাদাম, কমলনগর উপজেলার চর ফলকন, চর জাঙ্গালিয়া, চন কালকিনি, চর মার্টিন, চন লরেন্স, সদর উপজেলার চর রমণীমোহন, চর মনসা, টুমচর সহ জেলার প্রায় সর্বত্র সয়াবিনের আবাদ হয়েছে।

জেলার চাষিদের সাথে কথা বলে জানা যায়, গত বছর ভাল ফলন না হওয়ায় লোকসান গুনতে হয়েছে তাদের। কিন্তু এবার ভালো ফলনের সম্ভাবনা দেখছেন তারা। তাই সকাল-বিকাল খেত পরিচর্যায় ব্যস্ত সময় কাটাচ্ছেন। আবহাওয়া অনুকূলে থাকলে গত বছরের কিছুটা ক্ষতি পুষিয়ে নিতে পারবেন বলে মনে করছেন তারা।

লক্ষ্মীপুর জেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক বেলাল হোসেন খান বলেন, ‘এবার সয়াবিন আবাদের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছে ৫০,৫০৫ হেক্টর। তার মধ্যে ৪১,২৭০ হেক্টরে সয়াবিনের আবাদ হয়েছে।’

তিনি বলেন, ‘বীজ বপনের সময় বৃষ্টি হয়েছিল। ফলে দীর্ঘদিন জমি স্যাঁতসেঁতে ছিল। তাই চাষিরা অধিকাংশ জমিতে সয়াবিন আবাদ করতে পারেনি। যার ফলে আমাদের লক্ষ্যমাত্রা অর্জন হয়নি।’



রাইজিংবিডি/লক্ষ্মীপুর/১১ মার্চ ২০১৮/ফরহাদ হোসেন/টিপু

Walton AC
ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন
       

Walton AC
Marcel Fridge