ঢাকা, বুধবার, ৭ কার্তিক ১৪২৬, ২৩ অক্টোবর ২০১৯
Risingbd
সর্বশেষ:

শখের কবুতর পালন

মামুন চৌধুরী : রাইজিংবিডি ডট কম
     
প্রকাশ: ২০১৭-০৪-২০ ১:৩৭:২৩ পিএম     ||     আপডেট: ২০১৭-০৪-২০ ১:৩৭:২৩ পিএম

হবিগঞ্জ প্রতিনিধি : মঈনুল হাসান রতন। পেশায় ব্যবসায়ী। সাংবাদিকতাও করেন। শখের বশে ঢাকার বাড্ডা থেকে এক জোড়া কবুতর ক্রয় করেন। এরপর নানা প্রজাতির আরও পাঁচ জোড়া ক্রয় করে পালন শুরু করেন। যা থেকে বেড়ে এখন ১০০ জোড়া।

আলাপকালে তিনি জানান, ২০১৬ সালের নভেম্বর মাস থেকে কবুতর পালনের প্রস্তুতি নেন। প্রথমে গিরিবাজ দিয়ে শুরু করা। এরপর ক্রমে সিরাজী, বিউটি হুমার, কালো কিংসহ পাঁচ প্রজাতির কবুতর সংগ্রহ করে পালন করতে লাগলেন। এ সব কবুতর বাচ্চা দেওয়া শুরু করে। এভাবে বৃদ্ধি পেয়ে ১০০ জোড়া কবুতর হয়েছে। কবুতর বাচ্চা দেওয়া অব্যাহত রেখেছে।

 


তিনি জানান, স্থানীয় অনেকে তার কাছ থেকে কবুতরের বাচ্চা ক্রয় করে নিয়ে বাড়িতে পালন করছেন।

৫০ হাজার টাকা ব্যয়ে ছাদের উপরে ঘর তৈরি করে কবুতরের সঙ্গে তিনি যুক্ত করেছেন খরগোশ, ঘুঘু, টার্কি মুরগি, সরাইলের আছঁলি মোরগ, তিতির মুরগি। ব্যবসা ও সাংবাদিকতার পাশাপাশি শখের খামার নিয়মিত পরিচর্যা করেন রতন।

এ পর্যন্ত তিনি কবুতর, খরগোশ, ঘুঘু, মুরগি বিক্রি করে ৫০ হাজার টাকা পেয়েছেন। বাণিজ্যিকভাবে পালনের চিন্তা ছিল না। শখ থেকেও কিছুটা আয় হচ্ছে তার।

 


বর্তমানে তার খামারে উৎপাদিত দেশি-বিদেশি জাতের কবুতরের বাচ্চা বিভিন্ন স্থানে জোড়ায় বিক্রি হচ্ছে। তিনি নিয়মিত গম, ভূট্টাসহ বিভিন্ন দানাদার জাতীয় খাবার দিচ্ছেন। রোগ থেকে রক্ষায় তিনি নিয়মিত ওষুধ ব্যবহার করছেন।।

এ ব্যাপারে হবিগঞ্জ জেলা প্রাণি সম্পদ কর্মকর্তা ডা. মো. ইসহাক মিয়া জানান, বিশ্বের বিভিন্ন দেশে টার্কির মাংস বেশ জনপ্রিয়। পাখির মাংসের মধ্যে হাঁস, মুরগি, কোয়েলের এরপর টার্কির অবস্থান। টার্কির মাংসে প্রোটিন বেশি, চর্বি কম এবং অন্য পাখির মাংসের চেয়ে পুষ্টিকর। পশ্চিমা দেশে টার্কি খুব জনপ্রিয়।

তিনি জানান, কবুতর পালনে লোকসান হয় না। তবে শখ করে নয়, নিয়মনীতি মেনে কবুতরের সঙ্গে টার্কি মুরগি পালন করলে বেকার সমস্যা দূর হবে।

 

 

রাইজিংবিডি/হবিগঞ্জ/২০ এপ্রিল ২০১৭/মো. মামুন চৌধুরী/বকুল

ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন