ঢাকা, মঙ্গলবার, ২৩ আষাঢ় ১৪২৭, ০৭ জুলাই ২০২০
Risingbd
সর্বশেষ:

শিক্ষায় ব্যবহৃত ২০ নবজাতকের লাশ ডাস্টবিনে!

জে.খান স্বপন : রাইজিংবিডি ডট কম
     
প্রকাশ: ২০১৯-০২-১৮ ৯:৩৭:২৭ পিএম     ||     আপডেট: ২০১৯-০২-১৯ ৬:৩১:০০ পিএম

নিজস্ব প্রতিবেদক, বরিশাল : বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে গাইনি বিভাগের শিক্ষার কাজে ব্যবহৃত ২০ নবজাতকের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে ডাস্টবিন থেকে।

আজ সোমবার রাতে হাসপাতালের প্রধান ডাস্টবিন থেকে ক্ষত-বিক্ষত লাশগুলো উদ্ধার করে কোতয়ালি থানা পুলিশ। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন হাসপাতালের ওয়ার্ড মাস্টার আবুল কালাম আজাদ।

হাসপাতাল পরিচালক ডা. মো. বাকির হোসেন জানান, মেডিকেল কলেজের শিক্ষার্থী ও ইন্টার্ন ডাক্তারদের শিক্ষার কাজে ব্যবহৃত বেশ কয়েকটি নবজাতদের লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। তবে এগুলো কেন ডাস্টবিনে ফেলা হয়েছে, সেই বিষয়ে তদন্ত করা হচ্ছে। তিনি বলেন, এ বিষয়ে তিন সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করা হবে।

হাসপাতালের গাইনি বিভাগের বিভাগীয় প্রধান অধ্যাপক ডা. খুরশিদা জানান, প্রায় ৩০ বছর পূর্ব থেকে শিক্ষার্থীদের শিক্ষাদানের জন্য ফরমালিন দিয়ে ওই সকল অপরিণত শিশুর দেহ, শরীরের বিভিন্ন অংশ, টিউমার সংরক্ষিত রাখা হয়। গত কয়েক বছর ধরে ওগুলো আর কাজে আসছে না। শিক্ষাদানের জন্য এখন ছবি প্রদর্শন করা হয়। গাইনি বিভাগের ক্লাস রুমের পেছনে ওই সকল নমুনা বস্তায় রাখা ছিল। এগুলো মাটিতে পুতে ধ্বংস করার জন্য আয়া, বুয়াদের বলা হয়। গাইনি বিভাগের বহিরাগত বৃদ্ধা আয়া মালেকা ওই নমুনাগুলো ডাস্টবিনে ফেলে দেয়। ফলে এ ধরনের ঘটনা ঘটেছে।

হাসপাতালের ওয়ার্ড মাস্টার আবুল মোদাচ্ছের আলী কবির জানান, রাতে পরিচ্ছন্ন কর্মীরা হাসপাতালের পশ্চিমে কেন্দ্রীয় পানির ট্যাংকের পাশে থাকা ডাস্টবিনের ময়লা অপসারণ করছিলেন। এ সময় তারা ময়লার ভেতরে বালতিভরা অপরিণত শিশুর মরদেহগুলো দেখতে পায়। পরে তারা বিষয়টি জানালে ২০টির মতো নমুনা খুজে পাওয়া যায়।

রাইজিংবিডি/বরিশাল/১৮ ফেব্রুয়ারি ২০১৯/জে. খান স্বপন/বকুল

       
 

আরো খবর জানতে ক্লিক করুন : বরিশাল, বরিশাল বিভাগ