ঢাকা, মঙ্গলবার, ৭ শ্রাবণ ১৪২৬, ২৩ জুলাই ২০১৯
Risingbd
সর্বশেষ:

শেষ ওভারে আরিফুল কেন?

আবু হোসেন পরাগ : রাইজিংবিডি ডট কম
     
প্রকাশ: ২০১৯-০১-১২ ৮:২৭:৫৯ পিএম     ||     আপডেট: ২০১৯-০১-১২ ৮:৩৮:৩৮ পিএম
শেষ ওভারে আরিফুল কেন?
Voice Control HD Smart LED

ক্রীড়া প্রতিবেদক : শেষ ওভারে আরিফুল হকের হাতে বল তুলে দিয়ে বেশ চমকই দিয়েছিলেন খুলনা টাইটান্সের অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহ। কিন্তু শেষ ওভারে ১৮ রান ডিফেন্ড করতে পারেননি আরিফুল। ম্যাচ হয়েছে টাই। খুলনা হেরেছে সুপার ওভারে। ম্যাচ শেষে শেষ ওভারে আরিফুলকে বল দেওয়ার কারণ ব্যাখ্যা করলেন অধিনায়ক।

শেষ ওভারে জয়ের জন্য চিটাগং ভাইকিংসের দরকার ছিল ১৯ রান। জুনাইদ খান, কার্লোস ব্রাফেট, শরিফুল ইসলাম, তাইজুল ইসলামের চার ওভারের কোটা শেষ হয়ে যাওয়ায় এই ইনিংসে আগে বোলিং না করা আরিফুলের হাতে বল দেন মাহমুদউল্লাহ। কিন্তু রবি ফ্রাইলিঙ্ক ও নাঈম হাসান ১৮ তুলে ম্যাচ টাই করেন। পরে সুপার ওভারে চিটাগংয়ের কাছে ১ রানে হারে খুলনা।

শেষ ওভারে আরিফুলের হাতেই কেন বল তুলে দিলেন মাহমুদউল্লাহ। গত বিপিএলে অফ স্পিনে শেষ ওভারে দারুণ বোলিংয়ে খুলনাকে জয় এনে দিয়েছিলেন মাহমুদউল্লাহ নিজেই। তিনিই বা কেন বোলিংয়ে এলেন না?

ম্যাচ শেষে সংবাদ সম্মেলনে কারণ ব্যাখ্যা করলেন মাহমুদউল্লাহ, ‘ওই সময় অফ স্পিনটা হয়তোবা একটু কঠিন হতো। শেষ ওভারে ১৯ রান, আমি ভাবলাম আরিফুল ভালো অপশন। ও হয়তো ওয়াইড ইয়র্কার করবে! কিন্তু দুর্ভাগ্যবশত হয়নি।’

সুপার ওভারে জয়ের জন্য খুলনাকে করতে হতো ১২ রান।ম্যাচটা জেতা উচিত ছিল বলে মনে করেন খুলনার অধিনায়ক, ‘দুইটা সময় আমাদের ম্যাচ জেতার সুযোগ ছিল। টানা তিনটি ম্যাচ হেরে যাওয়ার পর আজকে ভালো একটি সুযোগ ছিল। কিন্তু আমরা দুইবারই সুযোগটা হারালাম। সুপার ওভারে ১১ রান (আসলে ১২) বড় কোনো লক্ষ্য না। এটা তাড়া করা সম্ভব। আমরা করতে পারেনি।’

‘জিততে পারলে ভালো লাগতো অবশ্যই। প্রথমবারের মতো বিপিএলে সুপার ওভার। কেউইতো আসলে সুপার ওভার চায় না। কোনো অধিনায়কই সুপার ওভার খেলতে চাইবে না।আগেই বললাম, ১ ওভারে ১৯ রান ডিফেন্ড করা আমাদের উচিত ছিল। সুপার ওভারেও ১২ রান তাড়াকরে জেতা উচিত ছিল। কিন্তু আমরা পারিনি।’



রাইজিংবিডি/ঢাকা/১২ জানুয়ারি ২০১৯/পরাগ

Walton AC
ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন
       

Walton AC
Marcel Fridge