ঢাকা, শনিবার, ১৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭, ৩০ মে ২০২০
Risingbd
সর্বশেষ:

সহোদর কিশোরী গণধর্ষণ, গ্রেপ্তার ২

নিজস্ব প্রতিবেদক : রাইজিংবিডি ডট কম
     
প্রকাশ: ২০১৯-১২-১১ ৯:০২:৩৫ পিএম     ||     আপডেট: ২০১৯-১২-১১ ৯:০২:৩৫ পিএম

গাজীপুর সিটি করপোরেশনের টঙ্গীতে চাঞ্চল্যকর ২ সহোদর কিশোরী গণধর্ষণের ঘটনায় ২ ধর্ষককে গ্রেপ্তার করেছে র‌্যাব।

বুধবার বিকেলে এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে র‌্যাব-১ এ তথ্য জানায়।

গ্রেপ্তারকৃত ধর্ষকরা হলেন টঙ্গী হাজীর মাজার বস্তি এলাকার বাবুল মিয়ার ছেলে শরীফ (২২) এবং টঙ্গীর সান্দারপাড়া এলাকার নাজিম মিয়ার ছেলে মমিন মিয়া (২৪)।

র‌্যাব জানায়, মঙ্গলবার রাত ৮টার দিকে টঙ্গী বাজার এলাকায় কিশোরী (১৮) ও তার ছোট বোন কিশোরী (১৭) তাদের ফুফাতো ভাইয়ের সাথে দেখা করতে আসেন। ফুফাতো ভাইয়ের মোবাইল বন্ধ পেয়ে তারা তুরাগ নদীর পাশে ফুফাতো ভাইয়ের জন্য অপেক্ষা করতে থাকেন। তখন ভিকটিমদ্বয়কে দেখতে পেয়ে নাঈম (২২), রাসেল, শরীফসহ অজ্ঞাতনামা ২/৩ জন তাদের সাথে যাওয়ার জন্য দুই সহোদরকে চর-থাপ্পর মারতে থাকেন এবং প্রাণ নাশের হুমকি দেন। একপর্যায়ে তাদের টঙ্গী হাজীর মাজার বস্তির একটি গার্মেন্টসের পেছনে ফাঁকা জায়গায় নিয়ে জোরপূর্বক ধর্ষণ করেন। এ ঘটনায় ভিকটিম (১৮) বাদী হয়ে টঙ্গী পশ্চিম থানায় মামলা করেন।

এ ঘটনায় র‌্যাব-১ তাৎক্ষণিকভাবে ধর্ষণকারীদের খুঁজে বের করে আইনের আওতায় আনতে দ্রুততার সাথে ছায়া তদন্ত শুরু করে এবং গোয়েন্দা নজরদারি বৃদ্ধি করে। এরই ধারাবাহিকতায় গোপন সংবাদের ভিত্তিতে মঙ্গলবার রাত সাড়ে ১১টার দিকে হাজীর মাজার বস্তি সংলগ্ন কবরস্থানের পাশে অভিযান চালিয়ে ধর্ষণের ঘটনায় জড়িত ওই ২ ধর্ষককে গ্রেপ্তার করা হয়।

র‌্যাব আরও জানায়, জিজ্ঞাসাবাদে গ্রেপ্তার দুই ধর্ষক স্বীকার করেছে তারা ও তাদের আরও ৪ বন্ধু (পলাতক) প্রথমে জোরপূর্বক ভিকটিমদের দেশীয় চোলাই মদ এবং মদের সাথে যৌন উত্তেজক ট্যাবলেট খাওয়ান। এক পর্যায়ে তাদের নিকট থেকে নগদ টাকা এবং মোবাইল ফোন ছিনিয়ে নেন। পরে তারা সকলে মিলে দু’বোনকে জোরপূর্বক ধর্ষণ করেন।


গাজীপুর/হাসমত আলী/মাহি

     
 

আরো খবর জানতে ক্লিক করুন : গাজীপুর, ঢাকা বিভাগ