ঢাকা, সোমবার, ৫ কার্তিক ১৪২৬, ২১ অক্টোবর ২০১৯
Risingbd
সর্বশেষ:

সাকিব-রশিদ খান যেখানে একমত

ইয়াসিন : রাইজিংবিডি ডট কম
     
প্রকাশ: ২০১৯-০৯-০৪ ৬:২০:১৩ পিএম     ||     আপডেট: ২০১৯-০৯-০৪ ১১:৪৩:৪৫ পিএম

চট্টগ্রাম থেকে ক্রীড়া প্রতিবেদক: উপমহাদেশে কোনো টেস্ট শুরুর আগে স্পিন আক্রমণ নিয়ে এতোটা কথা হয়েছে কিনা তা অজানা।

চট্টগ্রাম টেস্ট শুরুর আগে বাংলাদেশ-আফগানিস্তান ম্যাচ নিয়ে প্রচুর কথা হচ্ছে।  দুই দলের স্পিনার নিয়ে মূল আলোচনা।  একপাশে রশিদ খান, মোহাম্মদ নবী, কায়েস আহমেদ ও জহির খান।  আরেক পাশে সাকিব আল হাসান, মেহেদী হাসান মিরাজ, তাইজুল ইসলাম ও নাঈম হাসান।  দুই দলের স্পিন আক্রমণ ভরপুর।  চট্টগ্রাম টেস্টে স্পিনারদের দাপট থাকবে তা বলার অপেক্ষা রাখে না। কিন্তু দুই দলের অধিনায়কই মনে করছেন চট্টগ্রাম টেস্টে ব্যবধান গড়ে দেবেন ব্যাটসম্যানরা।

বুধবার সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত অনুশীলনে ঘাম ঝড়িয়েছে বাংলাদেশের খেলোয়াড়রা।  আফগানিস্তানের আজ ছিল ঐচ্ছিক অনুশীলন।  পুরো দল নিয়ে দুপুরে মাঠে এসেছিল আফগানরা।  ম্যাচের আগের দিন ফিটনেস ট্রেণিংয়ে মনোযোগী ছিল দল।

রশিদ খানের আগে সংবাদ সম্মেলনে এসে সাকিব বলেছেন,‘আমার মনে হয় এখানে পার্থক্য গড়ে দিতে পারে, দুই দলের ব্যাটিংটাই।’ সাকিবের ভাষ্য,‘চ্যালেঞ্জ অবশ্যই থাকবে ব্যাটসম্যানদের পারফর্ম করার। কারণ ওদের যারা ফাস্ট বোলার আছে তারাও বেশ ভালো মানের। স্পিনাররা তো খুবই ভালো। স্বাভাবিকভাবেই আমাদের ব্যাটসম্যানদের জন্য অনেক বড় চ্যালেঞ্জ অপেক্ষা করছে। কিন্তু আমি আমার ব্যাটসম্যানদের ওপর পুরোপুরি আস্থা রাখছি। আসলে গত দুই সপ্তাহে যতটা প্রস্তুতি নিয়েছে, এর চেয়ে বেশি কিছু করা আমার কাছে উচিত বলে মনে করি না। সবাই যার যার জায়গা থেকে সর্বোচ্চটা দিয়েছে। এখন শুধু মাঠে ওই অনুশীলনের প্রতিফলন ফেলতে পারলে আমরা ভালো কিছু করতে পারব।’

সাকিবের পর সংবাদ সম্মেলনে এসে রশিদ খানও বললেন একই কথা,‘হ্যাঁ, আমিও সাকিবের সঙ্গে একমত।  এই কন্ডিশনে ব্যাটসম্যানরা ভালো কিছু করতে পারে তাহলে যেকোনো দল এগিয়ে যাবে।  চাপের মধ্য থেকে যদি তারা এগিয়ে এসে পারফর্ম করে তাহলে জয় পেতে সমস্যা হবে না।  তবে ব্যাটসম্যানদের কঠিন পরীক্ষা দিতে হবে।  যারা ভালো খেলবে, স্নায়ু ধরে রাখতে পারবে তারা ম্যাচ জিতে যাবে।’

ব্যাটসম্যানদের বড় দায়িত্ব দিলেও তাদের ফ্রি করে দিচ্ছেন সাকিব।  নিজের মতো করে খেলার মন্ত্র দিয়েছেন। উইকেটে টিকে থাকতেই হবে, আগ্রাসন দেখানো যাবে না কিংবা উইকেটে থিতু হয়ে ব্যাটিং করতে হবে তেমন কোনো টোটকা নেই অধিনায়কের।  সাকিব মনে করেন নিজের মৌলিক খেলাটা খেলতে পারলেই সাফল্য পাবেন ব্যাটসম্যানরা। 

‘অনেক সময় ব্যাটসম্যানরা আত্মবিশ্বাস অনুভব করার জন্য কিছু শট খেলে। শট ব্যাটে লাগলে আত্মবিশ্বাস বেড়ে যায়। দ্বিতীয়ত, একজন ব্যাটসম্যান কখনোই সেট নয়, যতক্ষণ না রান করছে। আপনি যদি ১০০ বলে ১০ করেন, তখনও আপনি সেট নন। কিন্তু ১০০ বলে ৪০ বা ৫০ করলে সেট।  তো রান করতে হবে। উইকেটে শুধু থাকাই এখনকার টেস্ট ক্রিকেট নয়।  আগে যেমন ছিল, উইকেটে থাকাটাই গুরুত্বপূর্ণ। এখন থাকার সঙ্গে রানও করতে হয়। ’ – বলেছেন সাকিব।


রাইজিংবিডি/চট্টগ্রাম/৪ সেপ্টেম্বর ২০১৯/ইয়াসিন

ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন